ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

মোবাইল ফটোগ্রাফিঃ পিক্সলার এক্সপ্রেস-মোবাইল এন্ড্রয়েড ডিভাইসে বেসিক ফটো এডিটিং এর জন্য চমৎকার একটি অ্যাপ্লিকেশন

ADs by Techtunes ADs

আমরা যারা অ্যামেচার তারা আজকাল ছবি তুলতে সম্ভবতঃ ক্যামেরার চেয়ে আমাদের হাতের মোবাইল ডিভাইসটিকেই বেশী পছন্দ ও স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। আর তা হবেই বা না কেন বলুন। মাত্র কিছুদিন আগেই যা ছিল ধরা ছোঁয়ার বাইরে, সেই মেগাপিক্সেল ক্যামেরা ইদানিং আমাদের সবার হাতে হাতে। তো স্বভাবতই, মোবাইল ফটোগ্রাফির এই বিবর্তন আমাদের একটি অন্য মাত্রায় নিয়ে গেছে। এর কল্যাণেই ইন্সটাগ্রাম, ফেসবুক, ফ্লিকার, গুগল প্লাস, হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইবার, স্কাইপের মত প্ল্যাটফর্মগুলোতে স্মার্টফোন বা ট্যাবের মাধ্যমে তোলা ছবি মুহূর্তেই শেয়ার করতে পারছি, আত্মীয়-স্বজন বা বন্ধু-বান্ধবের সাথে।

প্রচলিত বা কনভেনশনাল ক্যামেরার মাধ্যমে তোলা ছবি শেয়ার করা মাঝে মাঝে জটিল ও সময়সাপেক্ষ হয়ে দাঁড়ায়। তবে এটাও ঠিক, প্রফেশনাল ছবি তোলার যে প্রয়োজন তা আমাদের উন্নত ক্যামেরার মাধ্যমেই মেটাতে হয়। মোবাইল ফটোগ্রাফি হালকা বা জরুরী প্রয়োজন মেটাতেই মূলত ব্যবহৃত হয়।

মোবাইল ফটোগ্রাফিতে অনেক সময় একটি ফটো এডিটর প্রয়োজন হয়, যার মাধ্যমে হালকা-পাতলা বেসিক কিছু এডিটিং করা যায়। এন্ড্রয়েড ডিভাইসের স্টক (ডিভাইসের সাথে আসা) ক্যামেরা অ্যাপ্লিকেশনে অনেক সময় একটি এডিটর থাকে, কিন্তু তা বেসিকেরও বেসিক, যার কারনে আমাদের এডিটিং অভিজ্ঞতা ভাল হয় না প্রায়ই। আর এই কথাটা ভেবেই আজকের টিউন।

বেসিক এডিটিং এর জন্য আমার দেখা কিছু এন্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশনের মধ্যে বিখ্যাত নির্মাতা অটোডেস্ক এর পিক্সলার এক্সপ্রেস (Pixlr Express) একটি বেশ ভাল ফটো এডিটর। এর বর্তমান গড় রিভিউ রেটিং ৪.৫/৫.০, রিভিউ করেছেন ৩৩১,৩২৫ জন আর ফাইভ স্টার রেটিং দিয়েছেন ২৩৯,৩০০ জন যা সর্বমোটের ৭২.২২%।

ওপেনিং স্ক্রিন

তো আসুন দেখে নেই ঝটপট কি আছে চমৎকার এই অ্যাপ্লিকেশনটিতে।

প্রথম স্ক্রিনে আছে চারটি অপশনঃ ক্যামেরা (ছবি তুলে তা এডিট করার জন্য), ফটোস (গ্যালারিতে আগের কোন ছবি এডিট করার জন্য), কোলাজ (ফটো থেকে কোলাজ করার জন্য) ও ফ্রেশ (সদ্য তোলা ছবিতে কাজ করার জন্য)।

ADs by Techtunes ADs

এর পরের স্ক্রিনে আপনি দেখবেন ফটো এডিটিং অপশনগুলোঃ

এডিটরের মেইন মেনু

এখানে আপনি দেখবেন, Adjustment, Effect, Overlay, Borders, Type, Stickers নামে মোট ৬টি ফটো এডিটিং অপশন।

অ্যাডজাস্টমেন্ট

Adjustment সিলেক্ট করলে দেখবেনঃ Doodle (আঁকিবুঁকি), Add Image, Stylize, Brighten, Heal, Focal, Splash, History, Contrast, Blur, Sharpen, Smooth, Red Eye, Crop, Rotate, Auto Fix, Color, Vibrance নামের মোট ১৮টি অপশন। যারা ফটো এডিটর নিয়ে কাজ করেন তারা এদের নাম শুনেই বুঝবেন এগুলো দিয়ে কি করা হয়-বিস্তারিত লিখলাম না, চেষ্টা করে দেখুন - মজা পাবেন।

Adjustment অপশন

ইফেক্ট

এডিটরের মেইন মেনু থেকে Effect সিলেক্ট করলে Unicolor, Vintage, Creative, Default, Soft, Subtle, Too Old নামের ৭টি ইফেক্ট অপশন দিয়ে ছবিতে নানারকম ইফেক্ট দিতে পারবেন।

ইফেক্ট অপশন

ADs by Techtunes ADs

ওভারলে

এরপরে মেইন মেনুতে আছে ওভারলে অপশন। এখান থেকে Smoke, Space, Tie Dye, Vignette, Light Paint, Neon, Olga, Paper, Retro Poster, Fireworks, Flame, Grunge, Leaking Hd, Leaks, Bokeh, Canvas, Chem Burn, Color Correction, Default নামে ১৯টি ওভারলে যোগ করার অপশন নিয়ে কাজ করতে পারবেন।

ওভারলে অপশন

বর্ডারস

মেইন মেনু স্ক্রিনে এর পরের আইটেম হল Borders, যার মাধ্যমে আপনি Pattern, Ripped Paper, Rounded Corner, Squared, White Ripped, Default, Film, Grunge, Ink, Nature নামে মোট ১০ ধরনের বিভিন্ন বর্ডার বা ফ্রেম ছবিতে যোগ করতে পারবেন।

বিভিন্ন বর্ডার/ফ্রেম অপশন

টাইপ

এর পরে আছে Type নামের মেইন মেনু অপশন যেখানে ট্যাপ করে আপনি মোট ৭টি ফন্ট ক্যাটাগরি থেকে শতাধিক ফন্ট ব্যবহার করতে পারবেন ও ছবির উপর লিখতে পারবেন।

ADs by Techtunes ADs

টাইপ অপশন

স্টিকারস

মেইন মেনুর শেষ অপশন হল স্টিকারস। এই অপশনটি ব্যবহার করে Summer, Symbols, Tattoos, Zodiac, Kawaii, Love, Marks, Nature, Pride Accessories, Antiquarian, Comic, Effects নামের ১৪টি স্টিকার ক্যাটাগরি থেকে বহু সংখ্যক স্টিকার ব্যবহার করে ছবিতে যোগ করতে পারবেন।

স্টিকার অপশন

এডিটর দিয়ে কাজ করবার পর সেভ করতে পারবেন গ্যালারিতে অথবা শেয়ার করতে পারবেন অনলাইনে।

সেভ করা/শেয়ার করা

ADs by Techtunes ADs

ছবি দিয়ে কোলাজ

অনেকগুলো ছবি দিয়ে নানারকম প্যাটার্নে কোলাজ তৈরি করার জন্য পিক্সলার এর প্রথম স্ক্রিন থেকে Collage সিলেক্ট করুন ও বিভিন্ন কাস্টমাইজেশন ব্যবহার করে কাজ করুন।

 

 

 

 

 

 

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ

একটা কথা বলে নেয়া ভাল। এই এডিটরের অপশনগুলোর অনেকগুলোই ডাউনলোড করে নিতে হয়। তাই ইন্সটল করবার পর অন্তত একবার আপনার ডিভাইসকে 3G বা WiFi নেটওয়ার্কে কানেক্ট করুন যাতে সবগুলো অপশন একবারেই ডাউনলোড হয়ে যায়, এবং পরে আপনি অফলাইনে কাজ করতে পারেন।

তো আর দেরি না করে আজই ফ্রি ইন্সটল করে নিন দারুন মজার (ও কাজের) এই অ্যাপ্লিকেশনটি। আপনার নিশ্চয়ই কাজে আসবে। সবাই ভাল থাকবেন, আল্লাহ হাফেজ।

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 2

আমি odrissho। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 96 টি টিউন ও 1058 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

অনেক ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য।

    Level 2

    @Moyin Emon: আপনাকেও ধন্যবাদ মইন ভাই।

অনেক সুন্দর হয়েছে @ ধন্যবাদ

    Level 2

    @হোছাইন আহম্মদ: আপনাকেও ধন্যবাদ

সিরাম অইচে বেরাদার….!!!!!

    Level 2

    @Hossainpower: ধন্যবাদ

Fotor
https://play.google.com/store/apps/details?id=com.everimaging.photoeffectstudio
এই এপসটাও খারাপ না। গুগল প্লেতে ৪.১ রেটিং। সবচেয়ে ভাল দিক হচ্ছে এত কোন অফলাইন ডাটা ডাউনলোড করতে হয় না।

    Level 2

    @আশরাফ: দেখলাম, বেশ ভাল মনে হচ্ছে- ট্রাই করে দেখব একসময়।