এবার থেকে আনইন্সটল করুন পিসির অত্যন্ত দরকারি সফটওয়্যার Revo Uninstaller দিয়ে

আমরা অনেকেই মনে করি Control Panel এ গিয়ে আন-ইন্সটলে একটা টিপ দিলেই সেই সফটওয়্যার কম্পিউটার থেকে মুছে যায়। ধারনাটা পুরোপুরি ঠিক না। আনইন্সটলের পর অনেক Leftover registry আর Program Data পিসিতে রয়ে যায়। ৪০ ডলার মুল্যের একটা সফটওয়্যারের বিনামুল্যে ডাউনলোড করে আমরা সেই অদরকারি ডাটাগুলোকে চিরতরে কম্পিউটার থেকে বিদায় করে দিবো।

প্রথমেই এখান থেকে Revo Uninstaller Pro + Crack ডাউনলোড করে নিন।

এটা এক্সট্রাক্ট করে সেটাপ ফাইলটা ওপেন করে ইন্সটল দিন। হয়ে গেলে Lunch না করেই Finish দিন।

এখন আমার দেওয়া Crack ফাইলটা নিচের মত ওপেন করে ফাঁকা বক্সে আপনার নাম লিখে Register চাপুন। এটা কোন ভাইরাস না, তবে আপনার এন্টিভাইরাস ঝামেলা করা শুরু করলে কিছুক্ষনের জন্য প্রটেকশন ডিসেবল করে নিন।

Crack হয়ে গেলে এরকম দেখাবে ব্যাস, ইন্সটলেশন পর্ব শেষ। এবার আসুন দেখাই কিভাবে ব্যবহার করবেন।

ডেস্কটপ থেকে শর্টকাট এপ্লিকেশন ওপেন করুন। আপনার ইন্সটলকৃত সকল এপ্লিকেশন উপরের ছবির মত দেখতে পাবেন।

এবার অপশনগুলো প্রয়োজনমত সেট করে নিন, যাতে ব্যবহার করা আরো সহজ হয়ে যায়। না বুঝলে কী-বোর্ডে ALT+O চেপে নিচের মত সব সেট করে নিন।

এখন চাইলেই যেকোন প্রোগ্রাম আন-ইন্সটল করতে পারবেন। ধরেন আমি Football Generation গেমটা আনইন্সটল করবো। এটাতে ডাবল ক্লিক করলে এর Built in Uninstaller রান হবে। কনট্রল প্যানেল থেকে করলে যেটা হয় আরকি।

   

হয়ে গেলে Advance Mode এ Scan করুন।

Scan হতে কয়েক সেকেন্ড লাগবে

দেখবেন আনইন্সটলের পরেও কত্তগুলো ফাইল রয়ে গেছে। সব মার্ক করে ডিলেট করে দিন।

এটা রেভো-আনইন্সটলার প্রো এর একটা অন্যতম বড়ো উপকারিতা, যেটা নরমালভাবে আনইন্সটল করলে আমরা পাবো না। এই জিনিস Iobit বা এইটাইপের অনেক সফটওয়্যার দিয়ে করা গেলেও এটার মত ভালো কেউ পারে না। ফেসবুকে একবার দেখছিলাম, IDM ফেক সিরিয়াল দেখায় বলে একজন নাকি উইন্ডোজ পর্যন্ত সেটাপ দিছেন। কারন যতবারই নতুন করে ইন্সটল দেয়, ততবারই সিরিয়াল-কী চায়। ৩০ দিনের ট্রায়ালও চলে না। আরেকজন বলছিলো সে একটা সফটওয়্যারের আপডেট ইন্সটল করতে চাচ্ছে, কিন্তু ইন্সটল দেওয়ার পরে বারবার খালি পুরাতনটাই আসে। নতুনটা আর দেখায় না 😯

এরকম এক সমস্যায় একবার আমিও পড়ছিলাম, এভাস্ট ইন্সটল দিছি। কিছুদিনের মধ্যেই বুঝে গেছি এটা কত ফালতু জিনিস। 😡 এরপর Control Panel থেকে আনইন্সটল দেই, কিন্তু এটা আর কম্পিউটার থেকে যায় না। যতবারই পিসি চালু করি, এভাস্ট আবার ভুতের মত ঘাড়ে চেপে বসে। তখন নতুন নতুন পিসি চালাই, উইন্ডোজও দিতে পারতাম না।

সেইসময় এটা থাকলে ব্যাপক সুবিধা হতো। কারন উপরের সকল সমস্যার সমাধান কিন্তু রিভোতেই আছে।

আনইন্সটলার ছাড়াও রিভো আনইন্সটলারের আরো কিছু অস্থির ফিচারের মধ্যে আছে -

  1. জাংক ফাইল ডিলেট - পিসির অপ্রয়োজনিয় সব ফাইল ডিলেট করে জায়গা বাঁচায়
  2. ফোর্স আনইন্সটলার - যেগুলা আনইন্সটল হতে চায় না, সেগুলাকে ঘাড় ধরে বিদায় করে
  3. Unrecoverable Delete - কোন ফাইল বা ফোল্ডার এমনভাবে ডিলেট করবে, যে ডাটা রিকভারির দাদাও সেগুলা ফেরত আনতে পারবে না। পেন্ড্রাইভের প্রাইভেসির জন্য এটা একটা চরম ফিচার।
  4. MS Cleaner - মাইক্রোসফট অফিসের সমস্ত হিস্টোরি ডিলেট করে।

Windows Cleaner - জনপ্রিয় ক্লিনার সফটওয়্যারগুলার যোগ্য প্রতিদ্বন্দ্বী।

  • Autorun Manager - কম্পিউটার চালুর সাথে সাথে অনেকগুলা সফটওয়্যারও চালু হয় যেগুলা সব সময় দরকার পরে না। কিন্তু সেই সফটগুলো ব্যাকগ্রাউন্ডে বসে ইন্টারনেট ডাটা + Ram ঠিকই খেয়ে পিসি স্লো করে দেয়। অটোরান ম্যানেজারের সাহায্যে সেগুলোকে শুরুতেই অটোমেটিক বন্ধ করে দিয়ে সব দিকই সাশ্রয় করা যায়। পরে চাইলে আপনি সেগুলো ডাবলক্লিক করে ওপেন করতে পারবেন।

- এবং আরো অনেক কিছু তো ব্যবহার করুন ৩ হাজার টাকা সমমুল্যের এই সফটওয়্যারটি, আর কম্পিউটার ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে নিয়ে যান আরো এক ধাপ উচুতে।  আজকে এপর্যন্তই, দেখা হবে পরবর্তী টিউনে, সেপর্যন্ত ভালো থাকবেন।

Level New

আমি Bootable Ishraque। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 29 টি টিউন ও 190 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

অপ্রয়োজনীয় এটা, ফালতু এমবি নষ্ট করবেন না।

এটা আমি ব্যবহার করছি

আপনার লেখাটির জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ

এই সফট দিয়ে আনইন্সটল করা যায়না সহজে।এর চেয়ে ডিফল্ট টাই ভালো।

মতামতের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ।

যাদের কাছে অনেক জটিল মনে হচ্ছে, কিংবা ভালো লাগেনি, মাপ করবেন। ভালোমত কম্পিউটার ব্যাবহার করার বয়স হয়নি আপনাদের।