ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

সহজেই ১০০ বছরের পুরনো ফাইল রিকভারি করুন শক্তিশালী EaseUs Data Recovery Wizard সফটওয়্যার ব্যবহার করে – Mac রিভিউ

টিউন বিভাগ ডাউনলোড
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

আপনারা আমার টাইটলে দেখেই বুঝতে পেরেছেন, আমি আজকে নিয়ে রিভিও করবো। শুরুতেই বলে রাখি, আমি টাইটেল এ বলছি ১০০ বছরের পুরনো ফাইল রিকভারি করেন- এটা বলার কারণ আছে, কারণ টা হল হার্ডডিস্ক/স্টোরেজ থেকে ডিলিট বা ফরমেট হওয়া ফাইল অন্য কোথাও যায় না স্টোরেজ এ থাকে শুধু এর রেফারেন্স টা অপারেটিং সিস্টেম দেখতে পারে না তাই ডিলিট/ফরমেট করার ফলে স্টোরেজ এর যায়গা খালি দেখায়। এই নিয়ে বিস্তারিত জানতে গুগলে সার্চ করেন তাহলে বুঝতে আরও সুবিধা হবে।

ADs by Techtunes ADs

আপনাদের কম্পিউটারে অনেক গুরুত্ব পূর্ণ ফাইল থাকে, যা অনেক সময় মনের ভুলে আপনারা ডিলিট করে ফেলেন অথবা হার্ডডিস্কে সমস্যা হওয়ার কারণে সব ফাইল গুলো ফরমেট বা ডিলিট করতে বাধ্য হন। এই রকম সমস্যায় যদি কখনো পরে থাকেন, তাহলে সেটা কিভাবে রিকভারি করতে পারেন সেটাই আজকে আমারা দেখবো। আর যারা এই সমস্যার সম্মুখীন এখনো হতে হয়নি, তারা অবশ্যই অবশ্যই পোস্টটি সম্পূর্ন দেখবেন যাতে সমস্যা হলে দ্রুত সমাধান করতে পারেন।

অনেক ধরনের ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার আছে, কিন্তু পাওয়ারফুল সফটওয়্যার ব্যবহার না করলে বেশির ভাগ ডাটা রিকভারি করা যায় না। অধিকাংশ ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার পেইড হয়ে থাকে আর যেগুলো ফ্রি ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার সেগুলোতে অনেক লিমিটেশন থাকে। তবে, EaseUS Data Recovery Wizard এটি ম্যাক এর জন্য পাওয়া যাচ্ছে এবং এটি একটি শক্তিশালী ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার দুটি এডিশনে পাওয়া যাচ্ছে, Free, Pro এডিশন। EaseUS Data Recovery Wizard এটি ম্যাক অপারেটিং সিস্টেম এর ১০.১৪-১০.৬ ভার্সন সমর্থন করে।

EaseUS Data Recovery Wizard

ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার EaseUS Data Recovery Wizard- পছন্দ করা হবে বুদ্ধিমানের কাজ। কেননা, এটি একটি পাওয়ারফুল সফটওয়্যার এবং সিম্পল ইউজার ইন্টারফেজ। এই সফটওয়্যার'টি যেকোনো ডাটা রিকভারি করতে পারে, যেমনঃ পিসি/ ল্যাপটপ এর সিস্টেম ফাইল, হার্ডডিস্ক (HHD/SSD), USB Drive, Micro Card,  SD Card, Digital Camera, Pen Drive.

অপারেট করা খুবই সহজ করেছে এর সিম্পল ইউজার ইন্টারফেজ। স্টেপ বাই স্টেপ অপশন ফলো করে খুব সহজে দরকারি ফাইল রিকভারি করতে পারবেন। আপনি চাইলে নির্দিষ্ট ফাইল ফরমেট এর ডাটা রিকভারি করতে পারবেন (১০০০ এরও বেশি ফাইল ফরমেট রিকোভার করতে সক্ষম) যেমনঃ ভিডিও, অডিও, ডকুমেন্ট, পিকচার, পিডিএফ ইত্যাদি।

আইওএস ডিভাইস এবং আইপড এর মত মিউজিক প্লেয়ার থেকেও ডাটা রিকভার করতে সক্ষম এই  EaseUS ডাটা রিকভারি উইজারড। EaseUS ডাটা রিকভারি সফটওয়্যারকে কিছু অসুবিধা খুঁজে পাবেন অন্য সব ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার এর সাথে তুলনা করলে, তবে এর অনেক ইউনিক ফিচার এবং ইউজার ফ্রেন্ডলি ইন্টারফেস একে অন্যসব সফটওয়্যার এর থেকে উচ্চমান সম্পন্ন ও আলাদা করেছে।  এই সফটওয়্যারটি ব্যবহার করাটা অন্যসব এর তুলনায় অনেক সহজ।

EaseUS Data Recovery Wizard-  ম্যাক এর আছে ফ্রি এবং পেইড এডিশন (Pro ভার্সন)। পেইড (Pro ভার্সন) এডিশন ৩০ দিনের ট্রায়াল ভার্সন অফার করে থাকে, যারে করে নতুন ব্যবহারকারীরা তাদের চাহিদা অনুযায়ী সকল ফিচার আছে কিনা তা পরখ করে দেখতে এবং পেইড ভার্সন ক্রয় করবে কিনা তার সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

এই মুহূর্তে এই অসাধারণ ডাটা রিকভারি সফটওয়্যার'টির Pro ভার্সন মাত্র $৮৯.৯৫ ডলারে কিনতে পাবেন, যেটার দাম বাংলাদেশী টাকায় প্রায় ৳৭৫৮৫ টাকার মতো। সবচাইতে ভালো কথা হচ্ছে, এই সফটওয়্যার ম্যাক এবং উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমকে সমর্থন করে।

নোটঃ যেকোনো পেইড ডাটা রিকভারি সফটওয়্যারে আপনার মূল্যবান টাকা খরচ করার আগে অবশ্যই সেটি চেক করে দেখুন যে সেটা আপনার জন্য কতোটুকু উপকারি এবং এতে আপনার চাহিদা অনুসারে ফিচার গুলো রয়েছে কিনা। সাথে যেহেতু এর ফ্রী ভার্সন এবং Pro ভার্সন (৩০ দিনের ট্রায়াল) রয়েছে, তাই ক্রয় করার পূর্বে অবশ্যই Pro ভার্সন (৩০ দিনের ট্রায়াল) ভার্সনটি ব্যবহার করে দেখুন। নিচের দুটি এডিশন এ কি কি ফিচার বিদ্যমান তা একটু দেখে নেই। আরো বিস্তারিত

ADs by Techtunes ADs

EaseUS সফটওয়্যার'টির সম্পূর্ণ ফিচার গুলোকে উল্লেখ্য করলাম

  • উভয় ম্যাক এবং উইন্ডোজ ইউজাররা এই EaseUS ডাটা রিকভারি সফটওয়্যারটি ইন্সটল করতে পারবেন।
  • ভুলবশত ডিলিট অথবা ভাইরাস অ্যাটাক এর ফলে হারানো ফাইল দ্রুত রিকভার করা যায় এই সফটওয়্যার দিয়ে।
  • ভুলবশত ডিলিট অথবা ফরমেট করা স্টোরেজ থেকেও আপনি সম্পুর্ণ ডাটা রিকভার করতে পারবেন EaseUS data recovery সফটওয়্যার দিয়ে।
  • আপনার সম্পুর্ণ পার্টিশন ডিলিট হয়ে গেলে অথবা অপারেটিং সিস্টেম কোন পার্টিশন খুঁজে না পেলেও, আপনার ডাটা এখনো সম্পুর্ণ রিকভার করা সম্ভব।
  • যখন হার্ড ড্রাইভ কারাপ্টেড হয়ে যায় এবং ড্রাইভে প্রবেশ করা যায় না, তখনও EaseUS data recovery সফটওয়্যার আপনার ডাটা রিকভারি করতে সক্ষম।
  • ভাইরাসের অ্যাটাক এর ফলে কম্পিউটার ঠিক মত কাজ করে না আবার অনেক ফাইল খুঁজে পাওয়া যায় না, EaseUS data recovery সফটওয়্যার সম্পুর্ণ ডাটা রিকভার করতে পারে খুব দ্রুত।
  • ম্যাক যদি বুট না করে EaseUS ডাটা রিকভারি সফটওয়্যারটিতে ম্যাক বিল্ট ইন বুটেবল মিডিয়া ফিচার সিস্টেম রয়েছে, যার ফলে সহজেই ক্র্যাশ হওয়া অপারেটিং সিস্টেম থেকেও যেকোনো ডাটা রিকভার করতে পারবেন।
  • এখানে সম্পূর্ণ স্ক্যান রেজাল্ট এর ব্যাকআপও রাখা যায়; এতে করে আরেকবার স্ক্যান তথা রি-স্ক্যান করা ছাড়াই আপনি পূর্বের ডিলিটেড ফাইল আবার পুনরায় রিকোভার করতে পারবেন।
  • EaseUS সফটওয়্যারটির ফ্রি ভার্সন থেকে ৫০০ মেগাবাইট ডাটা রিকভার করতে পারবেন এবং ফেজবুক এবং টুইটারে শেয়ার করার মাধ্যমে ২জিবি পর্যন্ত ডাটা রিকভার করা যেতে পারে।
  •  Pro ভার্সন এর জন্য ফ্রি লাইফ টাইম টেকনিক্যাল সাপোর্ট তো আছেই।

যেভাবে ডাটা রিকভারি করবেন

তিনটি সিম্পল প্রসেস ফলো করে খুব সহজেই আপনি আপনার হারিয়ে যাওয়া ডাটাগুলো রিকভারি করতে পারেন। সর্বপ্রথম উপরের ডাউনলোড বাটনটিতে প্রেস করে অফিশিয়াল লিংক থেকে (Free/Pro ভার্সন ৩০ দিনের এর ট্রায়াল) সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন, তারপরে অন্যান্য সফটওয়্যারের মতো করে EaseUS ডাটা রিকভারি সফটওয়্যারটি ইন্সটল করুন। ইন্সটল হয়ে গেলে এবার আপনি হার্ড ড্রাইভ কারাপ্ট করা, পেন ড্রাইভ ফরম্যাট হওয়া, এসএসডি থেকে ডিলিট হওয়া, আক্সেস না করতে পারা, হারিয়ে যাওয়া ফাইল রিকভারির করতে আর মাত্র তিনটি ধাপ দূরে আছেন।

প্রথম ধাপঃ লোকেশন সিলেক্ট করুন

সর্বপ্রথম EaseUS ডাটা রিকভারি সফটওয়্যারটি চালু করুন এবং এর স্কিনে আপনি হার্ড ড্রাইভে অথবা সিস্টেমে থাকা সকল ড্রাইভের লিস্ট দেখতে পাবেন। এবার আপনি হার্ড ড্রাইভ কারাপ্ট করা, পেন ড্রাইভ ফরম্যাট হওয়া, এসএসডি থেকে ডিলিট হওয়া, আক্সেস না করতে পারা, হারিয়ে যাওয়া ফাইল রিকভারির করতে চান সেটা স্ক্যান করার জন্য লোকেশনটি সফটওয়্যারটিকে দেখিয়ে দিন। এখন আপনি ইন্টানাল হার্ড ড্রাইভ পার্টিশন ও দেখাতে পারেন কিংবা এক্সটার্নাল মিডিয়াও দেখাতে পারেন। আমি সিস্টেম ড্রাইভ এর EaseUs নামের ড্রাইভটি সিলেক্ট করেছি, আপনারা আপনাদের পছন্দের ইন্টানাল হার্ড ড্রাইভ পার্টিশন কিংবা এক্সটার্নাল মিডিয়াও সিলেক্ট করুন।

দ্বিতীয় ধাপঃ হারানো ফাইল খুঁজতে স্ক্যানে (Scan) বাটনে ক্লিক করুন

আমারা ফাইল রিকভারি করার জন্য পছন্দের ইন্টানাল হার্ড ড্রাইভ পার্টিশন কিংবা এক্সটার্নাল মিডিয়াও সিলেক্ট করার পরে উপরের ডান কোনায় স্ক্যানে (Scan) বাটনে ক্লিক করে দিলেই স্ক্যানিং প্রসেস শুরু হবে। প্রাথমিক স্ক্যানিং অনেক দ্রুত পার্ফরম করবে, এই স্ক্যানিং কে কুইক স্ক্যানিং বলে। এই ফিচারটি খুব দ্রুত সাম্প্রতীক ডিলিট হওয়া ফাইলে গুলো খুঁজে বের করে। কুইক স্ক্যানিং শেষ হওয়ার পর, ডীপ স্ক্যানিং ফিচারটির সাহায্যে আপনার পছন্দ করা লোকেশনকে আরও বেশি এক্সপ্লোর করবে এবং সম্পুর্ন ড্রাইভের উপর স্ক্যানিং চালানো হবে যাতে করে সম্ভাব্য সকল ফাইল গুলোকে খুঁজেতে এবং রিকভার করতে পারে। এই ডীপ স্ক্যানিং এ তুলনামূলক ভাবে বেশি সময় লাগে এবং অনেক বেশি সংখ্যার ফাইল রিকভার করা হয়।

তৃতীয় ধাপঃ রিকভার এবং সেভ করুন

কুইক স্ক্যানিং বা ডীপ স্ক্যানিং শেষে সফটওয়্যারটি স্ক্যান করে খুঁজে পাওয়া সকল ফাইল গুলোর প্রিভিউ (রিকভারি করার আগে ফাইল গুলে ওপেন করে লাইভ ভিউ দেখতে পারবেন) এবং লিস্ট প্রদান করবে। ফাইল ফরমেট, লোকেশন অনুসারে ফাইল গুলোকে শর্ট করতে পারবেন। আপনার যে ফাইল ফরমেট রিকভার করা প্রয়োজন সেই ফরমেট এর ফাইল গুলো সিলেক্ট করুন। আমি সিলেক্ট করে এর ভিতরের যেই ফাইল আমার দরকার সেই ফাইল গুলো আমি রিকভারি করার জন্য সিলেক্ট করেছি। এখন Recover Now বাটন এবং তার সাথেই একটি ড্রপডাউন মেনু দেখতে পারবেন- Recover Now বাটনে ক্লিক করলে লোকাল স্টোরেজ এ সেভ করার ওয়িজার্ড মেনু স্কিনে ভেসে আসবে এবং কাঙ্ক্ষিত লোকেশনে সেভ করুন। আর ড্রপডাউন মেনু ক্লিক করলে দুইটি অপশন দেখতে পারবেন, লোকাল স্টোরেজ এ রিকভার করার অপশন এবং ক্লাউড স্টোরেজ এ রিকভার করার অপশন।

আমার কিছু কথা

সিম্পল ইউজার ইন্টারফেস যেটা আমার কাছে খুব ভাল লেগেছে, কেননা এটা যে কেঊ নিজে নিজেই চালাতে পারবে কারও সহায়তা ছাড়াই। আরও একটি ফিচার ভাল লেগেছে তা হল, উভয় ম্যাক অপারেটিং সিস্টেম বুট না হলে এই সফটওয়্যার এর বিল্ট ইন বুটেবল মিডিয়া ফিচার সিস্টেম রয়েছে, যার ফলে সহজেই ক্র্যাশ হওয়া অপারেটিং সিস্টেম থেকেও যেকোনো ডাটা রিকভার করতে পারবেন।

ADs by Techtunes ADs
Level 5

আমি রায়হান ফেরদৌস। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 55 টি টিউন ও 92 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 17 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ভাগ্যিস ১০০ বছর লিখেছেন, ১০০০ বছর লিখেননি ! আপনার পিসির হার্ডডিস্কটা কত বছর পুরানো ভাই? কোন কিছুকে অতিরঞ্জিত করা বোধহয় ঠিক না।

    আসলে আমি কেন ১০০ বছরের কথা বলেছি তা আমার টিউনের মধ্যে ক্লিয়ার করে দিয়েছি, আপনি দয়া করে পুনরায় টিউনটি পড়ুন শুধু টাইটেল দেখে আপনি কমেন্টে করেছেন বলে আমি ধারনা করছি। আর আমার পিসির হার্ডডিস্কটা ৭ বছরের পুরনো।
    ধন্যবাদ আপনার মন্তব্যের জন্য।