ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

HTC U12 Plus

টিউন বিভাগ ইলেক্ট্রনিক্স
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

যখন স্যামসাঙ। হুয়াওেই। ওয়ান প্লাস সিক্স। এল জি। নিজেদের ফ্লাগশিপ ফোন নিয়ে আসছে তখন এইচ টি সি কে ভুলে যাওয়াই স্বাভাবিক। কারন আমরা এখন পর্যন্ত এইচ টি সি এর পক্ষ থেকে কন ফ্লাগশিপ ফোন দেখিনি। কিন্তু, অবশেষে (তাইওয়ান কম্পানি)এইচ টি সি নিয়ে আসলো নিজেদের ফ্লাগশিপ ফোন এইচ টি সি ইউ টুয়েলভ(HTC U12+)। কিন্তু কি কি আছে এই ফ্লাগশিপ কিলার ফনের মধ্যে?

ADs by Techtunes ADs

চলো একটু দেখে আশি কি কি আছে এইচ টি সি এর নতুন এই ফ্লাগশিপ কিলার ফোনে।

ডিজাইন-ডিসপ্লে ঃগত দুই মাশে এই ফোনের জত লিক আসছিলো শেগুল অবশেষে সত্যি হোল। এইচ টি সি পুনরাই তাদের লিকুইড ডিজাইন ব্যবহার করছে। তারমানে হুয়াওেই এর হনর ১০ এর মত যখন এর ব্যাক এ লাইট পরবে তখনী এর কলর পরিবর্তন হয়ে যাবে। এই ফোনের পিছনে এল জি এর ভি ৩০ এর মত ডিজাইন করা হয়েছে। এর পিছনে এবং সামনে গরিল্লার গ্লাস ৩ ব্যবহার করা হয়েছে, যেখানে অন্ন সকল ফ্লাগশিপ ফোনে গরিল্লার গ্লাস ৫ ব্যবহার করা হয়েছে। পিছনে গ্লাস থাক্লেও ওয়্যারলেস চারজিং এর সুবিধা নেই। এইচ টি সি এর ডিসপ্লে আগের চেয়ে অনেক উন্নত হয়েছে। এবারের ডিসপ্লেটি হলো ৬ ইঞ্চির সুপার এমলেড এল সি ডি। এটির রেজোল্যুশন হোল কুয়াডকর অর্থাৎ ২২৮০পিক্সেল*১৪৪০পিক্সেল। এর পিক্সেল ডেনসিটি হচ্ছে ৫৩৭ পিক্সেল পার ইঞ্চি।

যখন আমরা ফ্রন্ট এ আশি তখন দেখতে পাব এখানে কোন প্রকার নচ নেই, যেটা কিনা অন্ন সকল মোবাইলে আমার খেয়াল করে থাকি। এইচ টি সি সবসময় কিছু ভিন্ন করারই চেষ্টা করে। আর একটু নিচে নাম্লে খেয়াল করতে পারব যে এখানে দুটি স্পিকার ব্যবহার করা হয়েছে। এইচ টি সি চেষ্টা করছে তাদের অডিও টেকনোলজি কে ভাল করা জন্য। আর আমিও চেষ্টা করছি আমার আরটিকেল আপনাদের কাসে ভাল লাগার জন্য। এই ফোনটি ওয়াটার রেসিস্টেন এবং আইপি ৬৮ ব্যবহার করা হয়েছে। তারমানে আমরা এই ফোনেটি কে ১.৫ মিটার এ ৩০ মিনিট এর মত রাখতে পারব। জেটা আমদের জন্য খুবই গুরুত্তপূর্ণ। এই ফ্লাগশিপ কিলার ফোনেটিতেঁ গেসচর কন্ট্রল ব্যবহার করা হয়ছে এত বড় স্ক্রিন অনেকের কাছে সুবিধা জনক নাই লাগতে পারে। তাই গেসচর কন্ট্রল করে ফোনটি এক হাতে চালানর উপজগি করতে পারবেন। এছারাও আর অনেক কিশু করতে পারবেন।

অনেক তহ হোল এর ডিসপ্লে এবং ডিজাইন এর কথা এবার আশা যাক  এর নারিভুরি অর্থাৎ এর হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার ও কেমরাতেঁ।

হারদ্বারে-সফটওয়্যার-কেমেরাঃএইচ টি সি তেঁ স্নাপড্রাগন এর ৮৪৫ ব্যবহার করা হয়েছে। এর র‍্যাম ৬ জিবি র‍্যাম এ কন চয়েস না থাকেলও রোম এ আছে। এর রোম দুটি হোল ৬৪ জিগি/১২৮ জিবি। অনেকের কাছে এইটাও কম লাগতে পারে তাই এইখানে আলাদা মেমোরি কার্ড বেবহারের সুবিধাও আছে। ব্লুটুথ এর লেটেস্ট ভার্সন ৫.০ ব্যবহার করা হয়েছে। এবং ইউএসবি- সি ব্যবহার করা হয়েছে। এবার আশি এর মুল জাইগাই, কেমেরাতে।

এখানে ডুটি কেমেরা রয়েছে পিছনে একটি ১২ মেগেপিক্সেল এর এফ ১.৭ এবং একটা টেলিফটো লেন্স ১৬ মেগাপিক্সেল এর এফ ২.৬ এপারচার। এর অপ্টিকাল জুম ২* এবং সর্বচ্চ ১০* জুম। এই কেমেরাতে ফেস ডিটেকসনো রয়েছে, বুকেহ মুড রয়েছে। এবার আশি ফ্রন্ট কেমেরাই। ফ্রন্ট এ ডুয়াল ৮ মেগাপিক্সেল এর কেমেরা ব্যবহার করা হয়েছে এফ ২.০ এর সাথে। এটার সাহায্যে ফেস আনলক করা যাবে। ফ্রন্ট এর এ দুটি কেমেরা সেলফি প্রেমিদের জন্য যথেষ্ট না হলেও এটি অনেক ভাল সেলফি তুলতে সাহায্য করবে আপনাকে। অনেক হোল কেমেরার কথা এবার চল দেখে আশি ব্যাটেরি এর কি অবস্থা?

ব্যাটারি ঃএই ফোনটি ৩, ৫০০ এম এ এইচ এর ব্যাটারি ধারন করে রেখেছে। এবং মজার কথা হোল এটিও হুওায়াই এর মত কুইক চার্জ করতে সক্ষম। এখানে কুইক চার্জ ৩.০ ব্যবহার করা হয়েছে। জার মানে আপনি এই ফোনটিকে আধা-ঘন্টার মধ্যে ৫০% চার্জ করতে পারবেন। সফটওয়্যার এর কথাই আশি।
সফত্বারেঃএতে অ্যান্ড্রয়েড ৮.০ ব্যবহার করা হয়েছে কিন্তু আপনি চাইলেই অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ অর্থাৎ (পি) তেঁ আপগ্রেড করতে পারবেন।

মূল্য ঃজতদুর আমি জানি এইচ টি সি এর মূল্য হবে ৭৫, ০০০ টাকা এর কাছা-কাছি।

বিদ্রঃএই টিউন টি আমার ২য়। ভাল লাগ্লে জসস দিবেন অবশ্যই।

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি পলাশ আহমেদ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 2 বছর 6 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 2 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস