ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

আমার ল্যাপটপই যখন আমার অফিস

আমরা সত্যিই সৌভাগ্যবান যে আমরা তথ্যপ্রযুক্তি ও ইন্টারনেট-এর যুগে বাস করছি। আমার একটা অফিস আছে আর সেটা আমার ল্যাপটপের মধ্যেই থাকে। আমি একটা স্মার্টফোনের মাধ্যমে সেটা আমার পকেটেও নিয়ে আসতে পারি। কারো ল্যাপটপের মধ্যে অফিস থাকার অনেক সুবিধা রয়েছে। কিন্তু তার আগে আমি আপনাদেরকে একটা ছোট্ট ঘটনা বলতে চাই।

ADs by Techtunes ADs

গত বছরের এক ছুটিতে আমি একটা ডাক্তারের চেম্বারে গিয়েছিলাম। আমি অসুস্থ ছিলাম না; ডাক্তার সাহেব আমার বন্ধুর মামা, তার সাথে দেখা করতে গিয়েছিলাম। উনার অফিসটা খুব ছোট ছিল, প্রায় ১২ বাই ১২ ফুট রুম হবে। রুমে একটা টেবিল, কিছু চেয়ার, রোগীর জন্যে বেড, ল্যাপটপ সংযুক্ত টেবিল, একটা আল্ট্রাসনোগ্রাম মেশিন আর আরো অনেক খুটিনাটি জিনিসপত্র। টেবিলে অসংখ্য ডাক্তারি সরঞ্জাম ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিল। এই যে নিচে তার চেম্বারের একটি ছবি দেওয়া হল-

এখন আমি এসব দেখে এটাই চিন্তা করছিলাম যে, এখন ডাক্তার সাহেবের যদি অফিস স্থানান্তর করতে হয় তবে তার কত ঝামেলা হবে। যদি ডাক্তার সাহেবের পূরো অফিসটি একটা ছোট জিনিসে ভরে নেওয়া যেত?

হ্যাঁ আমাদের দেশে এই ধরনের অনেক চেম্বার রয়েছে কিন্তু এগুলোর কথা বলছি না,

ডাক্তার, উকিল, ইঞ্জিনিয়ার এরা সবাই ফ্রিল্যান্সার বা পেশাদার কর্মী। এদের বেশিরভাগই এক পর্যায়ে এসে চাকরী ছেড়ে দিয়ে নিজের প্রাইভেট অফিস চালান। এখন আপনার উচিত সবার মত গতানুগতিক পথ অনুসরণ না করে নতুন ও আধুনিক কিছু করা। একমাত্র এভাবেই আপনি কেবল প্রতিযোগীতায় টিকে থাকতে পারবেন।

এখন যেহেতু আমার পেশাটা অনলাইন নির্ভর আর আমি সেখানে বেশ সফলও বটে -আমার মনের ভিতরেও ইচ্ছে ছিল একটা বাস্তব অফিস হবে, কর্মচারী থাকবে আর অন্যদের দেখাবো যে আমিও কিছু একটা হয়ে গেছি।

কিন্তু পরক্ষণেই আমি ভাবলাম যে, এটা একটা সনাতন ধারার চিন্তা। কারণ আমার কাজটা ১০০% অনলাইন নির্ভর। অনলাইনে কাজ করার প্রথম লক্ষ ছিল যেন আমাকে ৯টা থেকে ৫টা অফিস করতে না হয়। তাই এই বুদ্ধি বাদ দিয়ে দিলাম আর আমার সব সরঞ্জাম অনলাইনে নিয়ে আসলাম।

ADs by Techtunes ADs

আমার ল্যাপটপই আমার অফিস হওয়ার যেসব লাভ আমি পাচ্ছি তার সংক্ষিপ্ত বর্ণনা এখানে উল্লেখ করলাম,

অফিসের কোন জায়গা বা ভাড়া লাগেনা

একবার চিন্তা করে দেখুন একটা অফিস না থাকায় মাসে আমার কত টাকা বেচে যায়? ঢাকা শহরে একটা ভালো অফিস এর জায়গা ভাড়া পাওয়া খুবই কষ্টসাধ্য ও ব্যয়বহুল। তাই আমি শুধু যে ভাড়ার টাকাই বাঁচাচ্ছি তাই নয় আমি আমার দুপুরের লাঞ্চ-এর টাকা ও ফার্নিচার-এর টাকাও বাঁচাচ্ছি।

আমার কোন কর্মচারী নেই তাই এ জাতীয় কোন ঝামেলাও নেই

আমার বিজনেস একটা স্বনির্ভর বিজনেস আর আমি একাই এতে সর্বেসর্বা। আমার ভাইবোনরাই মাঝে মধ্যে আমার জন্য স্ব-বেতনে কাজ করে। এছাড়া আমার কোন সাহায্য প্রয়োজন হলে তা আমি আউটসোর্স করে নিই আর তাদের চুক্তি অনুসারে টাকা দিয়ে দিই। তাই আমার কোন সুন্দরী রিসিপশনিস্ট, সেক্রেটারী কিংবা চা বানানোর জন্যে পিয়ন রাখার প্রয়োজন নেই। বিশাল বড় অফিস আর একদল চাকর বাকর নিয়ে আমাকে কারো ইমপ্রেস করার দরকার নেই।

আমার কোথাও যাতায়াত করা লাগেনা

আমি কোথাও পড়েছিলাম যে এক গবেষণা অনুযায়ী আমরা দিনের প্রায় ৪ ঘন্টা যাতায়াতেই ব্যয় করি। এর মধ্যে আরো আছে বৃষ্টিতে ভেজা, কাদা পানিতে পা ডুবিয়ে হাটা; কনকনে শীতে আর ঠান্ডা বাতাসে জমে যাওয়া; অথবা প্রচন্ড গরমে ঘামতে থেকে বাসের জন্য অপেক্ষা করা। আর এরপর আমরা দূষিত বাতাস গ্রহণ করি আর ট্রাফিক সিগনালে ঘন্টার পর ঘন্টা সময় নষ্ট করি। আমি সেই অতিরিক্ত সময়টুকু আমার বিজনেসের কাজে লাগাই আর বাকিটা আমার পরিবারের সাথে ব্যয় করি।

আমার কোন রক্ষণাবেক্ষন খরচ লাগেনা

আমার যদি একটা অফিস থাকত, তাহলে আমাকে গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানির বিল দিতে হতো। আর যদিও কিছু অফিসে গ্যাস ও পানির বিল দেওয়া লাগেনা তবুও তাদের আরো কিছু বাড়তি খরচ দিতে হয়, যেমন- ইন্টারনেট বিল, দারোয়ানের বেত্ন, অফিস মেইনটেনেন্স ইত্যাদি। আমার ল্যাপটপেই অফিস হওয়ায় আমি এসব খরচ থেকে মুক্ত। আমার যা যা ব্যয় হয় সেগুলো হলো- ল্যাপটপ (যদি রিপেয়ার করতে হয় তার খরচ) আর আমার ইন্টারনেট বিল এর খরচ।

আমি যেখানেই যাই সেখানে “অফিস” টাকেও সাথে নিয়ে যাই

ADs by Techtunes ADs

একটা বাস্তব অফিস আপনাকে অনেকটা পঙ্গু করে দেবে। আপনি বেশিদিন অফিস থেকে দূরে থাকতে পারবেন না। আপনি যখন ছুটিতে যাবেন আপনার কাজ ও আয় তখন বন্ধ থাকবে। কিন্তু আমার অফিস আমার ল্যাপটপেই মধ্যেই আছে, গত বছর ছুটিতেও আমি আমার ল্যাপটপ নিয়ে গিয়েছিলাম। এর ফলে আমি ছুটিতেও কাজ করেছি আর ইনকামও করেছি। আমার অফিসটা বেশ হালকা এবং সাথে করে যেখানে সেখানে নিয়ে যাওয়া যায়।

আমার বিজনেস স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলে

আমার ওয়েবসাইট ও সফ্টওয়্যার দিনে ২৪ ঘন্টা আর সপ্তাহের ৭ দিনই চলতে থাকে। একে বলে অটোমেশন বা স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতি। এটা নিজেই নিজের কাজ করে চলেছে আমার আর আমার টাকা আয় হচ্ছে। শুধু আমার সময়ে সময়ে এটাকে দেখে শুনে রাখতে হয় যে সব ঠিকমত চলছে কিনা।

আমার অফিসের রুটিন ধরে চলতে হয়না

একটা বাস্তব অফিস এবং কর্মচারী থাকলে আপনাকে অনেক টাইম টেবিল রক্ষা করতে হবে। কিন্তু আপনার কি মনে পড়ে না, এ ধরনের জীবন থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্যেই আপনি অনলাইনে কাজ শুরু করেছিলেন? আমি যখন খুশি তখন কাজ করব আর আমি যখন খুশি তখন ছুটি নিব। আমার কোন রুটিন মানতে হবে না।

আমাকে কোন ট্যাক্স দিতে হয়না

ইন্টারনেট বিজনেস একটা এক মালিকানা ব্যবসা। আর একক মালিকানাধীন ব্যবসা শুরু করতে কোন প্রকার আইনগত কাগজপত্র লাগেনা। আর ইন্টারনেট বিজনেস কোন ট্যাক্স-এর আওতায়ও পড়েনা। ইন্টারনেট বিজনেস সারাবিশ্বে একটি নতুন বিষয়, তাই এখনো পর্যন্ত এ ধরনের বিজনেসের কোন প্রকার আইন প্রণীত হয়নি। তাই যতদিন সময় আছে আপনি কর অবকাশে এই ব্যবসাটি করে যেতে পারবেন।

পরিশেষে আমি বলতে পারি যে, আমার অফিসের ওজন মাত্র আড়াই কেজি আর আমি একটা স্লিম ল্যপটপ নিলে এটা আরো কমে যাবে।

তবে আর অপেক্ষা কিসের? এখনি সময়, আপনার কাছে “ইন্টারনেট” নামক প্রয়োজনীয় হাতিয়ারটি রয়েছে। আপনি যদি এখনি কিছু না করেন, তাহলে এক সময় আপনি আপনার বংশধরকে বলবেন, “আমার কাছে ইন্টারনেট ছিল, কিন্তু সেসময় আমি এটাকে কোন কাজে লাগাতে পারিনি। ” তাই আর দেরি না করে ইন্টারনেটকে কাজে লাগান করে ফেলুন ল্যাপটপকে নিজের অফিস।

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level New

আমি তমাল আনোয়ার। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 16 টি টিউন ও 76 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আমার পেশাটা চট্টগ্রাম বন্দর কেন্দ্রীক অনলাইন নির্ভর আর আমি সেখানে বেশ সফলও বটে –
তবে আমার একটা বাস্তব অফিস আছে, সহকারীও আছে…
আমার বাসার পিসি আর হাতের নকিয়া এন ৮ মোবাইল দিয়েই দিনের বেশির ভাগ সময় অনলাইনে কাটাই…

inspired and want to be like you…cheers.
[email protected]

ভাল লাগলো আপনার পোস্ট টি পড়ে ।

প্রিয় টিউন

এ ধরনের পোষ্ট মোটিভেশনাল পোস্ট । নদুনদের জন্য খু্বই কাজের। আমি ফ্রীল্যান্সিং করি না । নিজের সাইট টা নিজে ডেভেলপ করছি। এস ই ও করছি। অনুপ্রানিত হলাম । ধন্যবাদ ভাই ।

    @তানভীর সজীব: আপনার কমেন্টটা পড়ে ভাল লাগলো, আমি ফ্রিল্যান্সিং থেকে সেমি রিটায়ারমেন্ট নিয়েছি। এখন নিজের ব্যাবসার কাজে বেশি সময় দিচ্ছি।

Level 0

Amr Laptop Office deika Aste Paren http://www.techcontinue.com

আপনি কি ইউ আই এস সি উদ্যোক্তা? কোন ইউনিয়নের?

কি ফ্রিল্যান্সিং করছেন বুঝি?

    @Iron maiden: ফ্রিল্যান্সিং থেকে এবছর অবসর নিয়ে নিচ্ছি। কাজ করছি নিজের ব্যবসাটা নিয়ে।

Level 0

কি দিলেন দাদা এত দিন শুরু করব করব করে করা হয়নি কিন্তু আপনার কথা শুনে এবার শুরু করে দিলাম আমাকে দোয়া করবেন যেন আমি আমাকে লক্ষে যেতে পারি।

    @B.M.BILLAL:

    আশা করি আপনি খুব তারাতারি এ লক্ষে পৌছে যেতে পারবেন। সর্ব প্রথম সমস্যা দাঁড়ায় কিভাবে এবং কি দিয়ে শুরু করব, আমার একটা অনলাইন কোচিং প্রোগ্রাম আছে সেখান থেকে আপনি শিখতে পারবেন। http://www.blogkoriacademy.com/

Level 0

ki kaj kora jete pare…..freelancing chara………..?
apnar lekha pore khub ichhe korche amaoro erokom ekta kaj thakbe,,,,,,,,,khub bhalo….

    @bapiroy:

    সবসময় নতুন কিছু, গতানুগতিক ধারা থেকে বাইরে থাকতে হয়। যখন আমি ফ্রিল্যান্সিং শুরু করি, হাতে গোনা কয়েকজন ফ্রিল্যান্সিং করতো। সবাই করত ডাটা এন্ট্রি আর আমি করতাম ওয়েব ডিজাইন। আপনি এফাইলিয়েট মার্কেটিং করতে পারেন, ব্লগিং অথবা পারসোনাল কনসালটেন্সি।

আমি গুগল এডসেন্স থেকে মাসে গড়ে কত করে পেতে পারি?কেও কি জানেন?

ব্যাপক

আমার অফিস ২ টা । একটা আপনার মত ল্যাপটপ অফিস আর একটা কর্মচারী ওয়ালা অফিস। তবে ১ম টাই আমাকে বেশি টানে

Level 0

+

Level 0

ভাই , অনেক সুন্দর লিখেছেন । তাই অনেক ধন্যবাদ।

ধন্যবাদ সুন্দর লেখাটির জন্য

good

কেও কি বলতে পারবেন-
গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে কতটা ভালমানের আয় করা সম্ভব?
আর দিনে এ ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন কত সময় ব্যয় করতে হয়?
[বি.দ্র.:অনেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢোকার পর প্রাইভেট টিউটারিং এর মাধ্যমে লেখাপড়ার খরচ চালায়।
আমি টিউনার ভায়ের মতই ব্যতিক্রমী প্রসেসে আয় করে লেখাপড়ার খরচ চালাতে ইচ্ছুক।]

অনেক সুন্দর টিউন পড়ে খুব ভালো লাগল। ধন্যবাদ সুন্দর টিউনটি শেয়ার করার জন্য ।

Level 0

সুন্দর টিউন করার জন্য ধন্যবাদ

Yes i am really agree with you as that post 100% related about me. i did work everyday,s in my home 8-10 hour and inshallah monthly doing good income. I can tell you my home table and chair is my office and laptop is mine work power.

আপনারা যারা ইন্টারনেটে কাজ করছেন অথবা ইন্টারনেটকে নিজের পেশায় কাজে লাগাতে চান, আপনারা অবশ্যই লক্ষ রাখবেন ল্যাপটপ, ট্যাবলেট অথবা স্মার্টফোনকে নিজের অফিস বানাতে।
এই লেখা + ইনফোগ্রাফিকটি পড়ুনঃ- http://www.blogkori.com/start-your-own-online-business/

Vai amare apner cell number ta mail koiren: [email protected]

শিরনাম আর ছবি গুলো দেখে নিলাম এখন টিউনটা পরে দেখি।

কিভাবে সফল হবো আরেকটু গাইডলাইন যদি পেতাম? আপনার নাম্বারের জন্য রিকোয়েস্ট রইল… আমার মেইল ঃ [email protected]

    @Mohabbat:
    সব ধরনের গাইডলাইন আমার ওয়েবসাইটে আছে। আরো চাইলে আমার কোর্স সাইট আছে।

Level 0

চমতকার আপনার উদাহরন এবং লেখনি । ঠিক এই ধারনা নিয়েই এপ্রিল’১২ থেকে আউটসোর্সিং শুরু করেছি ।আলহামদুলিল্লাহ বেশ সফল হয়েছি । আপনাকে অভিনন্দন !!!!
আপনি তো ব্যাবসা ও শুরু করেছেন । একটু শেয়ার করবেন কীসের ব্যাবসা ?

ধন্যবাদ

    @spaceled:
    ফ্রিল্যান্সিং হলো অন্যের জন্য কাজ করা আর আমি এখন কাজ করছি নিজের জন্য। সবকিছু আমি আর শেয়ার করব না, সময় আসলে সবাই জানতে পারবে।

@ blog kori.
আমি ফ্রী লান্সিং করি। কিন্তু আমার কোন ।credit কার্ড নেই। আমি ছাত্র …কিভাবে আমি উপার্জিত অর্থ আনতে পারি??

তমাল ভাই ভালই লিখেছেন , আমিও গতানুগতিক ধারায় অফিস ও নিয়ম এগুলো পছন্দ করি না । বর্তমানে অনেক বাংলাদেশি ইন্টারনেট নির্ভর বিজনেস শুরু করেছে যেটা দেশের জন্যও মঙ্গল , যে হারে দেশের বেকার সমস্যা তৈরি হচ্ছে ! দিন দিন বাড়ছে , তাই তমাল ভাই-এর সাথে গলা মিলিয়ে সবাই কে বললাম কিছু একটা করুন , সেটা বিজনেস , ফ্রীলাঞ্চিং , ব্লগিং যে কোন কিছু হতে পারে (অবশ্যই অবৈধ নয়) ।

খুব সুন্দর পোস্ট, তবে ছবি গুলোকে মাঝ বরাবর শো করলে পোস্টটি আরও সুন্দর দেখা যেত।

    @শাহী:
    প্রথম দুটো ছবি বাদে, বাকি সবগুলোই টেকটিউন্স এড করেছে নির্বাচিত পোস্ট বানানোর সময়।

Level New

ভাল

@ blog kori
ধন্যবাদ আর আপনার লিঙ্ক থেকে সাইন আপ করলে কি ২৫ ডলার ফ্রী পাওয়া যাবে নাকি?

    @rashed rahul:
    যাবে তবে শর্ত প্রযোজ্য! ১০০ ডলার পেমেন্ট পেতে হবে তারপর ২৫ ডলার কার্ডে আসবে।

Level 0

Ashole amra amader projoktti golo ke propori vabe us kori na,jar karone amader onek voganti tea porte hoi. r amra jodi ta valo vabe us korte pari, tahole amader onek kaj golo aro onek shohoj hoye jeto……pode valo laglo.

Level 0

খুব ভাল লাগলো। টিউন করার জন্য দন্যবাদ।

ভালো লাগলো

গ্রেট টিউন। ইমেজগুলা পাইসেন কই ভাই। অচাম!!

valo laglo…………..

খুব সুন্দর টিউন।

ধন্যবাদ অসাধারণ টিউনের জন্য…
আমি একটি এন্ড্রয়ড এপ তৈরি করেছি, বিক্রয়[ডট]কম এর অল্টারনেটিভ হিসেবে। ইচ্ছে হলে ট্রাই করে দেখতে পারেন।
এপটির ফীচার সমূহঃ
* কোনো রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই এড পোস্ট করতে পারবেন
* দিনে আনলিমিটেড এড পোস্ট করতে পারবেন
* লোকেশন বেইসড এড সার্চ করতে পারবেন
* কোন হিডেন চার্জ নেই, একদম ফ্রী
* ইনশা আল্লাহ, আমি যতদিন বেঁচে থাকব, অতদিন সার্ভিসটা ফ্রী রাখব
* ইউজার ফ্রেন্ডলি ইন্টারফেস
* ছোট APK সাইজ ( মাত্র ৩ এমবি)
.
গুগল প্লে ডাউনলোড লিঙ্কঃ https://play.google.com/store/apps/details?id=p32929.buysellbd
APK ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://tiny.cc/buy_sell_bd
.
এপটি ডাউনলোড করে দয়াকরে একটি হলেও এড পোস্ট করুন। অনেক খুশি হব। আগাম ধন্যবাদ…