গেমস জোন [পর্ব-১১৮] :: HALO 3 (২০০৭)

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

এহেম! এহেম! কেমন আছো?

ঘন্টায় ঘন্টায় লোডশেডিং এর মাঝে থেকেই আমি নিয়ে এসেছি গেমস জোন এর আরেকটি নতুন পর্ব। হালো ৩ একটি ফাস্ট পারসন শুটার ভিডিও গেম নির্মাণ করেছে বানজিই শুধুমাত্র এক্সবক্স ৩৬০ কনসোলের জন্য। গেমটি হালো গেমস সিরিজের তৃতীয় সংস্করণ। গেমটির কাহিনীচক্র ২৬ শতকের মানুষ এবং একটি এলিয়েন জাতি “কোভেন্যান্ট” এদের মধ্যে যুদ্ধকে নিয়ে তৈরি। গেমটিতে তোমাকে একজন সাইবারন্যাথিক্যালি সুপার সোল্ডার “মাস্টার চিফ” এর ভূমিকায় খেলতে হবে।

মাইক্রোসফটের গেমস মানেই চমক! মাইক্রোসফট হালো ৩ গেমটির বিজ্ঞাপনেই প্রায় ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার খরচ করেছে! ওদিকে মুক্তির প্রথম সপ্তাহে গেমটি ৩০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করতে সক্ষম হয়! মা গো! গেমস এখন সবচেয়ে লাভ জনক “ব্যবসা”।

হালো ৩ (হেইলো ৩)

 

নির্মাতা:

বানজিই

 

প্রকাশক:

মাইক্রোসফট গেম স্টুডিওস

সিরিজ:

হ্যালো

খেলা যাবে:

শুধুমাত্র এক্সবক্স ৩৬০ গেমস কনসোলে

মুক্তি পেয়েছে:

সেপ্টেম্বর, ২০০৭

ধরণ:

ফার্স্ট পারসন শুটার

খেলার ধরণ:

সিঙ্গেল এবং মাল্টিপ্লেয়ার

ট্রেইলার ভিডিও:

www.youtube.com/watch?v=uCsdPszJLNQ

www.youtube.com/watch?v=wXrYSEOg3Ro

হালো ৩। গেমসটি ২০০৭ সালের সেপ্টেম্বর ২৫ , ২৬ এবং ২৭ এ শুধুমাত্র এক্স.বক্স ৩৬০ গেম কনসোল এর জন্য রিলিজ করা হয়।

মানে পিসির জন্য গেমটি রিলিজ হয় নি। তাতে কি? আমি আমার পিসির জন্য এক্স.বক্স কনসোল এ্যমোলেটর ডাউনলোড করে মাকের্ট থেকে সিডি কিনে তারপর খেলেছি! তবে এজন্য ৪০% এক্সট্রা র্যাম এবং ২৩% বেশি গ্রাফিক্স কার্ড মেমোরি লেগেছে আমার। তাই আপনাদের জন্য আজ কোনো ডাউনলোড লিংক থাকছে নাহ। গেমটি পছন্দ হলে অবশ্যই মার্কেট এ গিয়ে একটু খোঁচা মেরে দেখিয়েন।

Halo 3 গেমটি Halo গেমস সিরিজের ৩য় গেম। Halo 3 গেমটি Halo 2 এর সিকুয়্যাল। গেমটির বিষয় হলো ২৬শ শতকের মানুষ এবং কয়েকটি এলিয়েন গোষ্ঠীর মধ্যকার যুদ্ধ। যেখানে আপনাকে মানব ফোর্স এর সুপার সোল্ডার Master Chief এর ভূমিকায় খেলতে হবে।

Halo 3 গেমটি মাইক্রোসফট এর গেম কনসোল এক্স.বক্স৩৬০ এর জন্য নির্মিত হয়। মজার ব্যাপার হল মাইক্রোসফট হালো ৩ গেমটির মার্কেটিং এর পিছনে প্রায় ৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করে রিলিজ এর প্রথম সপ্তাহেই ৩০০ মিলিয়িন মার্কিন ডলার আয় করে!
রিলিজ এর প্রথম ২০ ঘন্টায় ১ মিলিয়নের বেশি লোক গেমটি খেলেন।

গেমটিতে মাল্টিপ্লেয়ার এর বেশি জোর দেওয়া হয়। বিশেষ করে প্লট এবং ক্যামপেইন লেআউট এ।

সিরিজের আগের গেম হালো ২ এর তুলনায় হালো ৩ এ মারাত্বক গ্রাফিক্স ইফেক্ট যোগ করা হয় । গেমটির গল্প বেশির ভাগই পা’য়ে তবে অবশ্য গাড়িতে উঠেও খেলা যায়।
আগের সিরিজের তুলনায় আরো কিছু নতুন অস্ত্র এবং গাড়ি যোগ করা হয় । রয়েছে একক অস্ত্র সাথে ডুয়াল অস্ত্র। ডুয়াল অস্ত্র ব্যবহারে প্লেয়ার এর হাঁটা-চলার স্পিড কমে গেলেও ডুয়াল অস্ত্র গুলো ফায়ার-পাওয়ার মারাত্বক।
প্লেয়ার একক এবং ডুয়াল অস্ত্র মিলিয়ে এক সাথে মোট ৩টি অস্ত্র বহন করতে পারবে।

গেমটিতে দুটি টুলস যুক্ত করা হয়। একটি Forge এবং একটি Map-editing Tool.
Forge দিয়ে মাল্টিপ্লেয়ার এর ম্যাপ, অস্ত্র সহ যেকোন কিছু নিজের ইচ্ছে মত ডিজাইন করা যায়। (অনেকটা Delta Force এর Mission Editor Tools এর মতই)

হালো ৩ গেমটির পটভূমি তে রয়েছে ২৫৫২ এবং ২৫৫৩ সাল। (হালো গেমটির সিরিজ শুরু হয়েছিল ২৫২৫ সালের পটভূমি দিয়ে)
হালো ২ গেমটির একদম শেষের দিকে একটি এলিয়েন; পৃথিবীর সন্ধান পায় এবং হালো ৩ গেমটি পৃথিবীর মধ্যে যু্দ্ধ নিয়ে রচিত হয়।

“হালো” হল গুটি কয়েক “রিং-বিশ্ব” যাদের আয়তন ডায়ামিটার এ প্রায় ১০০ কিলোমিটার। এই রিং-বিশ্ব গুলো হাজার হাজার বছর আগে Forerunners দ্বারা তৈরি করা হয় ভৌতিক এলিয়েন জাতি Flood কে ধ্বংস করার জন্য। হালো রিং গুলো একটিভ করা হলেই পুরো galaxy ধ্বংস হয়ে যাবে। তবে মজার ব্যাপার হলো, রিং গুলো তৈরি করার পরই Forerunners রা উধাও হয়ে যায়। তবে Forerunners দের বুদ্ধিমান মেশিন 343 Guilty Spark থেকে যায়।

হালো ৩ গেমটির গল্প শুরু হয় পশ্চিম আফ্রিকায় প্লেয়ার ক্রাশ-লেন্ডিং এর মাধ্যমে। যেখানে এলিয়েন জাতির লিডার Arbiter এবং মানব ফোর্স এর লিডার ক্যাপটেন Keyes এর মধ্যে যুদ্ধ চলছিল। এভাবেই শুরু হয় হালো ৩ গেমটি।

Halo 3 এর কাজ Halo 2 রিলিজের আগেই শুরু করা হয়েছিল। গেমটির প্রতি সপ্তাহের উন্নয়ন কর্ম Bungie কোম্পানি ওয়েবসাইট এ প্রকাশ করা হত। ডেভেলপমেন্ট পর্ব টি single player and multiplayer দুটি ভাগে বিভক্ত করা হয়। মাল্টিপ্লেয়ার ডেভেলপমেন্ট সরাসরি ওয়েবসাইট এ-ই করা হত। তবে single player ডেভেলপমেন্ট টি সম্পূর্ণ গোপন রাখা হয় ব্যবসার জন্য।

হালো ৩ গেমটিতে চমক-প্রদক গ্রাফিক্স প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়। এদের মধ্যে রয়েছে High Dynamic Range, Global Lighting and Depth of field effects within Cutscenes, Motion Blurring.

গেমটি এই উন্নত গ্রাফিক্স দিয়ে তৈরি করা হয়েছে যে 1280×720 (HD) resolution এর নিচে খেলা যায় না।
হালো ৩ গেমটি Fully Supports 5.1 surround sound audio.
সর্বমোট ৫০,০০০ (পঞ্চাশ হাজার) অডিও পিস রয়েছে।
৪০ হাজার এর কম-বেশি ডায়ালগ রয়েছে। (হালো ২ গেমটি তে কম-বেশি ১৫ হাজার অডিও ডায়ালগ ছিল)

গেমটি খেলতে হলে আপনার দরকার হবে একটি এক্স.বক্স ৩৬০ গেম কনসোল। যাদের কাছে এটি নেই তারা নেট থেকে এর এ্যামুলেটর টি পিসিতে ডাউনলোড করে নিন। এরপর মার্কেট থেকে হালো ৩ ডিভিডি টি কিনুন। কিছু কিছু ক্ষেত্রে হালো ৩ এর পিসি ভার্সন মার্কেট এ পেতে পারেন যেখানে আগে থেকেই এ্যামুলেটর টি দেওয়া আছে।

এ্যামুলেটর এর মাধ্যমে গেমটি আপনার পিসিতে খেলতে হলে আপনার পিসিতে যা যা লাগবে:

Operating System:
Windows XP, Windows Vista, Windows 7 (উইন্ডোজ চলবে কিনা তা আমি শিউর নই। কারণ আমার কাছে উইন্ডোজ নেই)

Processor:
Minimum Quard-Core 2.8GHz.
Core i7হলে Maximum Graphic দিয়ে খেলতে পারবেন

Ram:
Minimum 2GB.
8GB হলে সবোর্চ্চ স্পিড পাবেন

Graphic Card:
Minimum 758MB.
2GB হলে ভাল

Hard-Disk:
7.2 GB free space

 

Xbox 360 Emulator:

http://www.emulator-zone.com/download.php/emulators/xbox/xeon/Xeon_10.rar

একটা কথা স্পষ্ট করে বলে রাখছি, আমার লেখা গেমস জোন শুধুমাত্র ফেসবুকে আমার নিজস্ব এবং গেমস জোনের আসল পেজ http://www.facebook.com/games.zone.bd এই পেজটাতে আমি শেয়ার করে থাকি। বাকি কোনো পেজে আমার গেমস জোনের পোষ্ট শেয়ার করা হয় না। যদি করে থাকে তাহলে তারা আমার পারমিশন ছাড়াই এ কাজ টি করেছে। আপনারা যদি ফেসবুকে আমার গেমস জোনের পোষ্ট সমূহ অন্যান্য পেজে পেয়ে থাকেন তাহলে একটু কষ্ট করে আমাকে জানিয়ে দেবেন প্লিজ। বহু কষ্ট করে বহু সময় খরচ করে গেমস জোনের এক একটি পর্ব লিখি আমি।

গেমস জোন মুলত টিউনারপেজ (www.tunerpage.com) ব্লগে আমি নিয়মিত এবং প্রথম থেকে লেখা আরম্ভ করেছিলাম। সেখানে গেমস জোনের মোট পর্বের সংখ্যা এখন পর্যন্ত ১৯৫টি। আমি নিজে টিউনারপেজ, টেকটিউনস এবং বাংলা ফ্যামিলি ব্লগে গেমস জোন টিউন করে থাকি। আগে পিসি হেল্পলাইনে করতাম এখন করি না। তাই আপনারা যদি নিচের ৩ টি ব্লগের বাইরে অন্য কোনো ব্লগে আমার গেমস জোনের কপি দেখে থাকেন তাহলে দয়া করে কমেন্টে জানান অথবা ফেসবুকেও আমাকে জানাতে পারেন (fb.com/talented.fahad)

http://www.tunerpage.com

http://www.techtunes.co

http://www.banglafamily.com

>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>>><<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<<

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 662 টি টিউন ও 429 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 118 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

গেইম গেইম গেইম কি লাভ আপনার দেয়া গেইম গুলি চালাইয়া। আলা বন্ধ করেন 123 টা দিয়া ফালাইছেন তাতে লাভ কি হলো আপনার অযথা ব্যান্ডউইথ নষ্ট হলো। কেউ বলেছে ভাই আপনার গেইম খেলে আমার মাথা ব্যাথা, পেট ব্যাথা, আমাশা ভালো হইয়া গেছে, না কেউ বলে নাই বরং সমাজকে অলস প্রকৃতির পরিবেশ সৃষ্টি করছেন।

@jaman, apnar game pochondo na hole review dekhte aschen kano? kar bandwidth nosto holo
eta jene apnar ki dorkar? game valo na lagle chup thaken, chagol er pet e ghee moje na. jottosob
aise game er durnam korte.

ভাই দয়া করে Halo 1 বা 2 এর ডাওনলোড লিংক দিবেন।
আমার PC dual core 2.6 ghz, 384 builtin graphics.
ধন্যবাদ।
ভাল থাকবেন।