গেমস জোন [পর্ব-১৭৬] :: TITANFALL – প্রিভিউ (2014)

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

কল অফ ডিউটি সৃস্টিকারী কোম্পানি ইনফিনিটি ওর্য়াড এর “বহিস্কারকৃত” কর্মকর্তারা এবার বানাচ্ছে মাল্টিপ্লেয়ার FPS গেম!

“TITANFALL” একটি আপকামিং ফার্স্ট পারসন শুটার ভিডিও গেম নির্মাণ করেছে রিস্পোয়ান এন্টারটেইমেন্ট এবং প্রকাশ করবে ইলেক্ট্রনিক আর্টস । গেমটি শুধুমাত্র এক্সবক্স ওয়ান, এক্সবক্স ৩৬০ এবং মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ভিক্তিক পিসিতেই খেলা যাবে। ২০১৩ সালের মাইক্রোসফটের ই৩ প্রেস কনফারেন্সে গেমটি উন্মোচন করা হয় এবং গেমটি ২০১৪ সালের মার্চে মুক্তি পাবার কথা রয়েছে।

গেমটিতে প্লেয়াররা একে অপরের সাথে “অনলাইন মাল্টিপ্লেয়ার” মোডে যুদ্ধ করবে। পটভূমি হিসেবে থাকছে যুদ্ধকবলিত একটি প্ল্যানেট। গেমটিতে মাইক্রোসফটের “ক্ল্যাউড কম্পিউটিং” সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে এবং এর মাধ্যমে গেমটির সার্ভার এবং হোম পিসির গ্রাফিক্স্যাল পারফরমেন্স নিয়ন্ত্রণে আনা সহজতর করা হয়েছে।

গেমটি ই৩ ২০১৩ প্রেস কনফারেন্সে প্রায় ৬০টির বেশি এওর্য়াড জিতে নেয়। এছাড়াও গেমসকোম এবং টোকিও গেম শো এর অফিসিয়াল এওর্য়াডও বাগিয়ে নেয় গেমটি।

আর মাইক্রোসফট মামুর গেম, সেইরকম লেভেলের তো হবেই! তাও ভালো, গেমটির পিসি সংস্করণ রয়েছে। কিছু কিছু গেমস তো শুধুমাত্র এক্সবক্স কনসোলের জন্যই সেট করা হয়েছে যেমন HALO, FORZA ইত্যাদি।

নির্মাতাঃ

রিস্পোয়ান এন্টারটেইমেন্ট

প্রকাশ করবেঃ

ইলেক্ট্রনিক আর্টস

পরিচালকঃ

স্টিভ ফুকুডা

প্রযোজকঃ

ড্রিউ মিককোয়

ইঞ্জিণঃ

Source

খেলা যাবেঃ

এক্সবক্স ওয়ান,

এক্সবক্স ৩৬০

মাইক্রোসফট উইন্ডোজে

মুক্তি পাবেঃ

২০১৪ সালের মার্চে।

ধরণঃ

ফার্স্ট পারসন শুটার

খেলার ধরণঃ

মাল্টিপ্লেয়ার

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টসঃ

কমপক্ষেঃ

সেলেরন ডুয়াল কোর ২.৮ গিগাহার্জ অথবা এথলন ৬৪ এক্স২ ডুয়াল কোর গতির প্রসেসর,

২ গিগাবাইট র‌্যাম,

জির্ফোস জিটি ৩৩০ অথবা রাডিয়ন এইচডি ৩৬০০ সিরিজের গ্রাফিক্স কার্ড,

উইন্ডোজ এক্সপি (সার্ভিস প্যাক ৩) ৩২ বিট অপারেটিং সিস্টেম,

ডাইরেক্ট এক্স ৯

অফিসিয়ালঃ

কোর ২ ডুয়ো ২.৩৩ গিগাহার্জ অথবা এথলন ৬৪এক্স২ ডুয়াল কোর ৫৬০০+ প্রসেসর,

৪ গিগাবাইট র‌্যাম,

জির্ফোস ৮৮০০ জিটিএস অথবা রাডিয়ন এইচডি ৫৬৭০ ডিডিআর৩ গ্রাফিক্স কার্ড,

উইন্ডোজ সেভেন ৬৪ বিট অপারেটিং সিস্টেম,

ডাইরেক্ট এক্স ১০

 

ভালো ভাবে খেলতে হলেঃ

কোর আই ৩ প্রসেসর,

৬ গিগাবাইট র‌্যাম,

জির্ফোস জিটিএস ৬৪০ কিংবা রাডিয়ন এইচডি ৬৬৭০ গ্রাফিক্স কার্ড,

উইন্ডোজ ৮ ৬৪বিট অপারেটিং সিস্টেম,

ডাইরেক্স এক্স ১১

 ট্রেইলারঃ

https://www.youtube.com/watch?v=tIyAk_ATxec‎

গেমটিতে তুমি “পাইলট” এর ভূমিকায় পায়ে হেঁটে যুদ্ধ করতে পারো অথবা বড়সড় মেশিনের ভিতর গিয়েও যুদ্ধ করতে পারো। এইসব মেশিনকে “টাইটানস” বলা হয়। গেমটিতে দুটি পক্ষ রয়েছে; আইএমসি এবং মিলিটিয়া। এদের মধ্যে যেকোনো একটি দলের হয়ে তোমাকে যুদ্ধ করতে হবে। গেমটি অনলাইট মাল্টিপ্লেয়ার হলেও এর মধ্যে কিছু কিছু সিঙ্গেল প্লেয়ার উপাদানও রয়েছে।

গেমটির শুরুতে তোমাকে তোমার পছন্দমত একজন পাইলটকে নির্বাচন করতে হবে। এরপর তোমাকে ম্যাপে নামিয়ে দিবে। তোমার দলের টাইটানসমূহ একটি নির্দিষ্ট সময়ের ব্যাবধানে ম্যাপে আসবে। এই সময়ের পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে যদি তোমার দলের কেউ মরে যায়। টাইটানসমূহ ম্যাপে আসার পর ৩০ সেকেন্ড একটি শিল্ড এর ভিতর থাকে। যার মাধ্যমে উক্ত সময় পর্যন্ত পাইলট এবং টাইটান উভয়ই ড্যামেজ থেকে সুরক্ষিত থাকবে।

এছাড়াও গেমটিতে ওয়ালে দৌড়ানো যাবে। উচাঁ উচাঁ লাফও দেওয়া যাবে গেজেডের মাধ্যমে। গেমটিতে অনেক ধরণের টাইটান রয়েছে। যাদের প্রত্যেকটি ভিন্ন ভিন্ন ইউনিক ফিচার সর্মথন করে।

গেমটিতে পাইলট – টাইটান মিক্স ম্যাচ ছাড়াও শুধুমাত্র টাইটান ভার্সেস টাইটান ম্যাচও রয়েছে। টাইটান রা সাইজে হেভি হওয়ায় তাদের মুভমেন্ট হবে হালকা স্লো। তবে টাইটান এবং পাইলট; এদের নিজস্ব কিছু সুবিধা এবং অসুবিধা দুটোই রয়েছে।

দেখা যাক আমাদের দেশে মাল্টিপ্লেয়ার গেমসগুলো কতটুকু জনপ্রিয়তা পায়। যেহেতু থ্রিজি নেটওর্য়াক বাংলাদেশে এসে গেছে, তো তেমন কোনো সমস্যা হবে না এই জাতীয় অনলাইন মাল্টিপ্লেয়ার খেলতে। কাউন্টার স্ট্রাইক এবং HALO এই দুটি গেমসের অনলাইন মাল্টিপ্লেয়ার হিসেবে দেখছি এই TITANFALL গেমটিকে।

জ্ঞাতব্য:

> গেমস জোন শুধুমাত্র বিনোদনের জন্য তৈরি করা হয়েছে। এর উপাদান সমূহের দ্বারা কেউ মনে কষ্ট কিংবা আঘাত পেলে তা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আহ্বান জানাচ্ছি।

> গেমস জোনে ব্যবহৃত বাংলা কভার, ওয়ালপেপারসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে লেখকের নিজস্ব সৃস্টি। এর সাথে আসল গেমটির কোনো সর্ম্পক নেই

> গেমস জোন এর সাথে উক্ত গেমসগুলোর কোনো সরাসরি সম্পৃত্ত নেই এবং থাকবে না।

> গেমস জোন এর গেমসগুলোর রিলিজ তারিখ, নির্মাতা, প্রকাশক, মুক্তির তারিখ, সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস এবং চিটকোড  তথ্য গুলো বিভিন্ন ওয়েবসাইট হতে সংগৃহকৃত। লেখক এখানে শুধুমাত্র বাংলায় লিখেছেন।

> ডাউনলোড লিংক এবং এর ফাইলসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে অন্য সাইট হতে কপিকৃত। লেখকের সাথে ডাউনলোড লিংক এর কোনো সম্পৃত্ততা নেই।

> সর্বপরি গেমস জোন লেখক গেমওয়ালার ব্যক্তিগত কর্ম মাত্র। এর সাথে এই ব্লগের কোনো সর্ম্পক নেই এবং গেমস জোনের সকল তথ্য (ডাউনলোড লিংক ব্যাতিত) এর জন্য শুধুমাত্র লেখক গেমওয়ালা দায়ী থাকবে।

> গেমস জোন একটি সর্ম্পূণ ফ্রি গেমস রিভিউ এবং প্রিভিউ টিউন। তাই এর যেকোনো উপদান স্বাধীনভাবে “ব্যক্তিগত” উদ্দেশ্যে যে কেউ ব্যবহার করতে পারবে। তবে গেমস জোন কে “করপোরেট” ভাবে কখনোই ব্যবহার করা যাবে না।

> বর্তমানে গেমস জোন  লেখক এর দ্বারা নিচের ব্লগ সমূহে টিউন করা হচ্ছে:

http://www.tunerpage.com

http://www.techtunes.co

> গেমস জোন সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা, পরামর্শ, অভিযোগ এবং অন্যান্য যে কোনো বিষয়ের জন্য গেমস জোন এর ফেসুবক পেইজ http://www.facebook.com/games.zone.bd তে যোগাযোগ করুন অথবা সরাসরি লেখক গেমওয়ালার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন fb.com/talented.fahad

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 662 টি টিউন ও 429 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 118 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস