গেমস জোন [পর্ব-২২৫] :: ডেভিল মে ক্রাই ৪ (২০০৮)

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

শয়তান হয়তো বা কাঁদবে! কাঁদার ইচ্ছা না থাকলেও গেমটি খেলার ইচ্ছে অবশ্যই থাকবে যদি সিরিজের আগের গেমসগুলো তুমি খেলে থাকো। এক্কেবারে কোপা সামসু!

হ্যাঁ! চলে এলাম আমি গেমওয়ালা নিয়ে এলাম গেমস জোন, আজকের জোনে থাকছে ডেভিল মে ক্রাই সিরিজের ৪র্থ তম সংস্করণ ডেভিল মে ক্রাই ৪ নিয়ে।

ডেভিল মে ক্রাই ৪ একটি একশন এডভেঞ্চার হ্যাক এন্ড স্ল্যাশ ভিডিও গেম যেটি নির্মাণ এবং প্রকাশ করেছে জাপানি কোম্পানি ক্যাপকম। গেমটি ২০০৮ সালের মাঝামাঝি তে প্লে-স্টেশন ৩, এক্সবক্স ৩৬০ এবং উইন্ডোজ সংস্করণের জন্য বাজারে ছাড়া হয়। সিরিজের আগের গেমটির মতোই ডেভিল মে ক্রাই ৪ গেমটি সিরিজের প্রথম দুটি গেমসের সিকুয়্যাল হিসেবে এসেছে।

গেমটিতে তোমাকে নিরো নামের এক টিনএজার এর হয়ে খেলতে হবে। তার কাছে রয়েছে ডেমনিক পাওয়ার। গেমটিতে তুমি মানে নিরো  এর মিশন হবে সিরিজের মেইন ক্যারেক্টার ডেন্টে কে বাঁধা দেওয়া, যেখানে ডেন্টে দ্যা অর্ডার অফ দা সোর্ডএর কয়েক জন নেতাকে গুপ্ত হত্যায় লিপ্ত রয়েছে।

তবে গেমটিতে তুমি ডেন্টেরও চরিত্র নিয়ে খেলতে পারবে তবে সেটা পরে। যাই হোক, গেমটি সিরিজের প্রথম গেম যেটি সকল প্ল্যাটফর্মে একই গ্রাফিক্সে রিলিজ দেওয়া হয়েছে এবং সিরিজের প্রথম গেমস যেখানে ডাইরেক্স এক্স ১০ প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। গেমটিতে রয়েছে নতুন নতুন মাইর এবং ডিফিকাল্টি।

২০১১ সাল পর্যন্ত গেমটির প্রায় ২.৭ মিলিয়ন কপি বিশ্বব্যাপি বিক্রি হয়েছে।

নির্মাতা এবং প্রকাশকঃ

ক্যাপকম

সিরিজঃ

ডেভিল মে ক্রাই

ইঞ্জিণঃ

MT Framework v1.3

খেলা যাবেঃ

বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে

মুক্তি পেয়েছেঃ

জানুয়ারী – জুলাই ২০০৮ সাল জুড়ে

ধরণঃ

একশন-এডভেঞ্চার,

হ্যাক এন্ড স্ল্যাশ

খেলার ধরণঃ

সিঙ্গেল প্লেয়ার

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টসঃ

কোর ২ কোয়াড প্রসেসর,

৪ গিগাবাইট র‌্যাম,

১ গিগাবাইট গ্রাফিক্স কার্ড,

উইন্ডোজ এক্সপি সার্ভিস প্যাক ৩ অপারেটিং সিস্টেম

ডাইরেক্স এক্স ৯ সাথে শেডার মডেল ৩.০

ডেভিল মে ক্রাই ৪ গেমটির গেমপ্লে অধিকাংশ ভাবে সিরিজের আগের গেমসগুলোর মতোই। কোপাকুপি আর হ্যান্ডগানের গুলি! হাহাহা! নতুন আপগ্রেড হিসেবে থাকছে নতুন মাইরের কোম্বো আর ইভিল শক্তির সমাহার।

গেমটিতে তোমাকে বিভিন্ন লেভেলের মধ্য দিয়ে খেলে যেতে হবে। লেভেলগুলো এক একটি “মিশন” নামে পরিচিত। প্রতিটি মিশনে রয়েছে কিছু পাজল আর হিডেন মিশন। প্রত্যেক মিশন খেলার সময় মাইরের ধরণ এবং কোম্বোর উপর স্কোর বা গ্রেড দেওয়া হবে তোমাকে। গ্রেডগুলো D গ্রেড হতে শুরু করে C, B, A, S, SS, SSS পর্যন্ত দেওয়া হবে। আর এছাড়াও রয়েছে লাল রংয়ের Orbs যা সংগ্রহ করেও মিশন শেষে গ্রেড পয়েন্ট বাড়ানো যায়। আর শত্রুকে কোপাকুপির সময়ও এইরূপ গ্রেডিং দেওয়া হয় তবে একে স্টাইলিশ পয়েন্ট বলা হয়।

গেমটিতে একই সাথে মানে দুটি চরিত্র নিয়ে খেলা যাবে। যেমন প্রথম মিশনে তুমি চাইলে নিরো কে নিয়ে খেলতে পারো এবং পরবর্তী মিশনে তুমি ডেন্টে কে নিয়ে খেলতে পারো। তবে ডেন্টে কে আনলক করতে হলে প্রথমে তোমাকে গেমটি একবার গেমওভার করতে হবে।

আর তোমার সংগ্রহকৃত পয়েন্ট সমূহ দিয়ে তুমি তোমার এবিলিটি এবং মাইর কোম্বোগুলোর আপগ্রেড কিনতে পারো। তবে ক্রয়কৃত আপগ্রেড টি আবার তুমি একই মূল্যে বেঁচেও দিতে পারো!

গেমস জোনে আগে আমি গেমসগুলোর পুরো কাহিনী বলে দিতাম। তবে সেটা করা উচিত হয় নি বলে এখন আমার মনে হচ্ছে। কারণ এতে গেমস খেলার মজাই নেই যদি কাহিনী তুমি জেনে যাও :p

তবে কিছু অংশ বলতে পারি যাতে গেমটি খেলতে তোমরা উৎসাহিত হও।

নিরো একজন তরুণ ডিমন হান্টার। যে The Order of the Sword গ্রুপের হয়ে কাজ করে। গ্রুপটি Legendary Dark Knight Sparda এর উপাসনা করতো । যাই হোক গেমটির শুরু হয় একটি অপেরা হাউজে গ্রুপটির একটি অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে। সেখানে গ্রুপের প্রধান স্যানটাস কে হত্যা করে ডেন্টে, Sparda এর পুত্র!

তবে পরে জানা যায় যে গ্রুপের লিডার আসলে একজন শয়তান বা ডিমন ছিলো । যাই হোক তবে ডেন্টের পিছে ধাওয়া করতেই গেমটির অর্ধেক শেষ করে দেয় নিরো! আরো জানতে হলে এখনই গেমটি খেলতে বসে পড়ো।

গেমটিতে ডুয়াল ডাইরেক্ট এক্স মোড রয়েছে। তুমি গেমটি ডাইরেক্ট এক্স৯ কিংবা ডাইরেক্ট এক্স১০ প্রযুক্তিতে খেলতে পারো। তবে তোমার কাছে সেইরকম মানে গ্রাফিক্স কার্ডের সার্পোট না থাকলে এদের মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পারবে না।

গেমটির নির্মাণ কাজ কবে শুরু হয় এটা না জানা গেলেও গেমটির কাজ শুরু হয়েছে এরকম খবর প্রথম পাওয়া যায় সেপ্টেম্বর, ২০০৬ সালে। তখন এও জানা যায় যে সিরিজের মূল চরিত্র ডেন্টে, গেমটিতে হিরোর চরিত্রে থাকছে না।

গেমটিতে ইঞ্জিণ হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে MT Framework ইঞ্জিণ। উল্লেখ্য যে ক্যাপকমের এটি শেষ গেম যেটিতে এই ইঞ্জিণ ব্যবহার করা হয়েছে।

মেইন মেনু তেমন আকর্ষণীয় না হলেও সাউন্ড কিন্তু সেইরাম!
চিল্লা চিল্লিরে কেউ গান কয়?!
চলো মারামারি শুরু করি!
নিরো এবং ডেন্টের ক্রসফায়ার!
গেমের প্রথম বস!
মাইনের ভিতর!
ওরে!
খা খা মাইর খা““
বসগুলোও সেইরাম!
কাকে ভাল লাগে?
ভয়ংকর!
ঠাস ঠাস!
পোলাডা জোস!

ডাউনলোডঃ

http://kickass.to/devil-may-cry-4-repack-t6959093.html

জ্ঞাতব্য:

> গেমস জোন শুধুমাত্র বিনোদনের জন্য তৈরি করা হয়েছে। এর উপাদান সমূহের দ্বারা কেউ মনে কষ্ট কিংবা আঘাত পেলে তা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আহ্বান জানাচ্ছি।

> গেমস জোনে ব্যবহৃত বাংলা কভার, ওয়ালপেপারসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে লেখকের নিজস্ব সৃস্টি। এর সাথে আসল গেমটির কোনো সর্ম্পক নেই

> গেমস জোন এর সাথে উক্ত গেমসগুলোর কোনো সরাসরি সম্পৃত্ত নেই এবং থাকবে না।

> গেমস জোন এর গেমসগুলোর রিলিজ তারিখ, নির্মাতা, প্রকাশক, মুক্তির তারিখ, সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস এবং চিটকোড  তথ্য গুলো বিভিন্ন ওয়েবসাইট হতে সংগৃহকৃত। লেখক এখানে শুধুমাত্র বাংলায় লিখেছেন।

> ডাউনলোড লিংক এবং এর ফাইলসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে অন্য সাইট হতে কপিকৃত। লেখকের সাথে ডাউনলোড লিংক এর কোনো সম্পৃত্ততা নেই।

> সর্বপরি গেমস জোন লেখক গেমওয়ালার ব্যক্তিগত কর্ম মাত্র। এর সাথে এই ব্লগের কোনো সর্ম্পক নেই এবং গেমস জোনের সকল তথ্য (ডাউনলোড লিংক ব্যাতিত) এর জন্য শুধুমাত্র লেখক গেমওয়ালা দায়ী থাকবে।

> গেমস জোন একটি সর্ম্পূণ ফ্রি গেমস রিভিউ এবং প্রিভিউ টিউন। তাই এর যেকোনো উপদান স্বাধীনভাবে “ব্যক্তিগত” উদ্দেশ্যে যে কেউ ব্যবহার করতে পারবে। তবে গেমস জোন কে “করপোরেট” ভাবে কখনোই ব্যবহার করা যাবে না।

> বর্তমানে গেমস জোন  লেখক এর দ্বারা নিচের ব্লগ সমূহে টিউন করা হচ্ছে:

http://www.tunerpage.com

http://www.techtunes.co

> গেমস জোন সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা, পরামর্শ, অভিযোগ এবং অন্যান্য যে কোনো বিষয়ের জন্য গেমস জোন এর ফেসুবক পেইজ http://www.facebook.com/games.zone.bd তে যোগাযোগ করুন অথবা সরাসরি লেখক গেমওয়ালার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন http://www.facebook.com/talented.fahad

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 662 টি টিউন ও 429 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 118 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

The House Of The Dead গেম এর লিংক লাগবে