গেমস জোন [পর্ব-২৪৭] :: Rogue Warrior (২০০৯)

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

দেরী হয়ে গেলো টিউন করতে! কেন? অবশেষে একটা সাইট খুলেছি। হ্যাঁ অনেকদিনের সাধ এবার মিটলো আমার! http://www.gamewala.net গেমস জোনের অফিসিয়াল একটি সাইট হলো। সাইটটি সম্পূর্ণ একটি বাংলা গেমিং সাইট। সাইটটিতে রয়েছে গেমস জোনের সকল এপিসোড, রয়েছে ডাইরেক্ট লিংকস নিয়ে সাজানো একটি ফোরাম এবং আমার কমপ্রেসডকৃত গেমস এর মেলা। এছাড়াও ডাইরেক্ট ডাউনলোড লিংক নিয়ে সাজিয়েছি আমার ফোরাম http://forum.gamewala.net এখানে রেজিষ্টেশন করে তুমিও বাংলা গেমিং দুনিয়াতে আড্ডা, সমস্যার সমাধান ইত্যাদি করতে পারবে।

যাই হোক টিউনে আসি। Rogue Warrior একটি ফার্স্ট পারসন শুটার ভিডিও গেম নির্মাণ করেছে রেবেলিওন ডেভেলপমেন্ট এবং প্রকাশ করেছে বেথেষ্ঠা সফটওয়কস। গেমটি নভেম্বর, ২০০৯ সালে বিশ্বব্যাপি মুক্তি পেয়েছে।

গেমটিতে আমেরিকা একজন ইউ.এস নেভি সিল দলের সদস্য রির্চাড মারচিনকো কে নর্থ কোরিয়াতে পাঠানো হয় একটি মিশনে। সেখানে তাকে ব্যালাষ্টিক মিসাইল লাঞ্চারগুলোকে ধ্বংস করতে হবে। গেমটি প্লেয়ার চরিত্রের জীবনের উপর সাজানো হয় নি।

গেমটির মূলত জুম্বি স্টুডিওস এর দ্বারা নির্মিত হয়েছিল। তবে বেথেষ্ডা কোম্পানি তাদের কাজে সন্তুষ্ট ছিলো না। তাই তারা গেমটি তাদের কাছ থেকে নিয়ে রেবেলিয়ন কোম্পানির কাছে দিয়ে দেয়। রেবেলিয়ন গেমটির জন্য নতুন নতুন সব উপাদান তৈরি গেমটিতে এনে দেয় সুন্দরতা। তবে গেমটি ২০০৯ সালের বাজে গেমটির তালিকায় ২য় স্থানে অবস্থান করছে।

  • নির্মাতাঃ রেবেলিয়ন ডার্বি
  • প্রকাশকঃ বেথেসডা সফটওয়াকস
  • ইঞ্জিণঃ Asura
  • খেলা যাবেঃ পিসি, প্লে-স্টেশন ৩ এবং এক্সবক্স ৩৬০
  • মুক্তি পেয়েছেঃ নভেম্বর-ডিস্মেবর ২০০৯
  • ধরণঃ ফার্স্ট পারসন শুটার
  • খেলার ধরণঃ সিঙ্গেল এবং মাল্টিপ্লেয়ার

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টসঃ

  • ডুয়াল কোর প্রসেসর
  • ৪ গিগাবাইট র‌্যাম
  • ৫১২ মেগাবাইট গ্রাফিক্স কার্ড
  • উইন্ডোজ সেভেন
  • ডাইরেক্স এক্স ১০ সাথে শেডার মডেল ৩.০

Rogue Warrior প্রাথমিকভাবে একটি ফার্স্ট পারসন শুটার গেম সাথে রয়েছে ট্যাকটিকাল উপাদান। গেমটিতে তুমি আমেরিকার ন্যাভি সিল এর সদস্য রির্চাড এর ভুমিকায় খেলবে। গেমটিতে তোমার প্রাথমিক অবজেক্টটিভ হচ্ছে আত্মঘাতি মিসাইল ধ্বংস করা এবং আরো অনেক কিছু। গেমটিতে অস্ত্রের পাশাপাশি হেন্ড-টু-হেন্ড কমবাট সিস্টেমও রয়েছে। আর এটায় রয়েছে অনেকগুলো কমবাট ছুড়ির সমাহার। এছাড়াও তেলের ড্রাম, গ্যাস ট্রাক সহ আরো অনেককিছু দিয়ে শত্রুকে ঘায়েল করা যাবে গেমটিতে।

গেমটির মূল গেমপ্লে হেন্ড-টু-হেন্ড কমবাটে জোড় দেওয়া হয়েছে। যেমন প্লেয়ারের রয়েছে ফিনিশিং মুভ। যেগুলো কির্বোডের কীর সাহায্যে তুমি শত্রুর পিছন থেকে প্রয়োগ করতে পারো। গেমটিতে প্লেয়ারের ২৫টি ভিন্ন ভিন্ন ফিনিশিং মুভ রয়েছে যেমন শত্রুকে ট্রেনের নিচে ফেলে দেওয়া, গলা কেটে হত্যা, আগুনে পুড়িয়ে হত্যা ইত্যাদি। ফিনিশিং মুভ মারার সময় গেমটি থার্ড পারসন ক্যামেরায় চলে যাবে এবং ফিনিশিং মুভমেন্ট এনিমেশন দেখাবে। অনেকটা ম্যানহান্ট সিরিজটির মতো।

এছাড়াও গেমটিতে কভার সিস্টেম রয়েছে সেখানেও মানে কভারে গেলে গেমটি থার্ড পারসন ক্যামেরায় চলে যাবে। যেটা রেইবো সিক্স ভেগাস সিরিজে রয়েছে।

সংক্ষিপ্ত কাহিনীচক্রঃ

১৯৮৬ সাল।

আমেরিকার নেভি সিল দলের সদস্য রির্চাড কে পাঠানো হয় নর্থ কোরিয়ার Unggi অঞ্চলে একটি ব্যালাষ্টিক মিসাইল প্রজেক্টকে বন্ধ করে দেওয়ার জন্য। তার সাথে আরো ২ জন নেভি সিল সদস্যকেও পাঠানো হয়। উল্লেখ্য যে, একজন নর্থ কোরিয়ার গুপ্তচরের তথ্যে ভিক্তিতেই এই অপারেশনটি চালানো হচ্ছে।

নর্থ কোরিয়াতে এসে রিচার্ডের টিম একটি নর্থ কোরিয়ার আর্মি ছাউনে আক্রমণ চালায় তবে সেখানে গ্রেণেডের আঘাতে রিচার্ডের দলের সকল সদস্য মরা যায়। তবে রির্চাড বেঁচে থাকে। সেখান থেকে যুদ্ধ করে সে গুপ্তচরের ফ্ল্যাটে যায় কিন্তু গিয়ে দেখে যে গুপ্তচরতে হত্যা করা হয়ে গেছে। তবে তার ঘর থেকে সে বোমের ব্যাপারে তথ্য পায় যে মিসাইল লাঞ্চার Unggi অঞ্চলে নির্মাণ করা হয়েছে।

এই তথ্যটি নেভি সিল হেড কোয়াটারে পাঠানোর সেখান থেকে রির্চাডের উপর কড়া আদেশ আসে এটিকে বন্ধ করতে।

পরে রির্চাড মিসাইল ফ্যাক্টরিতে প্রবেশ করে যুদ্ধ করে কিন্তু সেখানে মাত্র একটি মিসাইল খুঁজে পায় সে। এরপর নেভি সিল হেড কোয়াটার থেকে তথ্য আসে যে বাকি মিসাইল গুলো সমুদ্র পথে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। ফ্যাক্টরির মিসাইল টি ধ্বংস করে রির্চাড Unggi অঞ্চলের সমুদ্র বন্দরে যায় এবং সেখানে গিয়ে জানতে পারে যে আসলে মিসাইলগুলো ট্রেনের মাধ্যমে Unggi অঞ্চল থেকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে এবং এখন ট্রেনটি বন্দর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে চলে গেছে।

রির্চাড ট্রেনটিকে বর্ডার ক্রসের সময় উড়িয়ে দেয়। আর ট্রেন থেকে মিসাইলের আসল তথ্য পায় সে। মিসাইল এর উপাদানগুলো সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে আনা হয়েছে এবং মিসাইল গুলো ট্রেনের মাধ্যমে সোভিয়েত ইউনিয়নেই যাচ্ছিলো।

হেড কোয়াটার থেকে সাবধান বার্তা আসে যে, এখন যদি রির্চাড বাকি মিসাইলের উদ্দেশ্যে সোভিয়েত ইউনিয়নে চলে যায় তাহলে রির্চাডের কোর্ট মার্টিয়াল আইনে সাজা হবে এবং সোভিয়েত ইউনিয়ন ও আমেরিকার মধ্যে যুদ্ধ বাধবে। কিন্তু রির্চাড তা অমান্য করে মিসাইলের পিছে পিছে সোভিয়েত ইউনিয়নে চলে যায়।

রির্চাড কি পারবে মিসাইলগুলো ধ্বংস করতে? আর এর জন্য কি ধরণের সাজা পেতে হবে তাকে??

কাহিনী বাকি অংশ জানতে এখনি বসে পড়ো গেমটি নিয়ে।

নির্মাণঃ

গেমটির নির্মাণ কাজ শুরু হয় ২০০৬ সালের শেষের দিকে। গেমটি নির্মাণের সময় ট্যাকটিকাল ফার্স্ট পারসন শুটার লেভেলে দেওয়া হয়। আর গেমটির মুক্তির দেওয়ার সময় নির্ধারণ করা হয় ২০০৭ সালে। ব্যবহার করা হয়েছে আনরিয়েল ইঞ্জিণ ৩।

তবে ২০০৯ সাল পর্যন্ত গেমটির কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। পরে কোম্পানি চেঞ্জ করে ২০০৯ সালে আবারো গেমটির আপগ্রেড কাজ শুরু হয়।

প্রথমে বর্তমান যুগের সময়ে গেমটির প্লট সেট করা হলেও পরে গেমটির প্লট ১৯৮৬ সালে মানে ৮০ এর দশকে নিয়ে যাওয়া হয়। গেমটির নাম রাখা হয়েছিল Black Razor. তবে পরে গেমটির নাম চেঞ্জ করে Rogue Warrior রাখা হয়।

ডাউনলোডঃ

http://kickass.to/rogue-warrior-reloaded-iso-t3237335.html

জ্ঞাতব্য:

  • গেমস জোন শুধুমাত্র বিনোদনের জন্য তৈরি করা হয়েছে। এর উপাদান সমূহের দ্বারা কেউ মনে কষ্ট কিংবা আঘাত পেলে তা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখার আহ্বান জানাচ্ছি।
  • গেমস জোনে ব্যবহৃত বাংলা কভার, ওয়ালপেপারসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে লেখকের নিজস্ব সৃস্টি। এর সাথে আসল গেমটির কোনো সর্ম্পক নেই
  • গেমস জোন এর সাথে উক্ত গেমসগুলোর কোনো সরাসরি সম্পৃত্ত নেই এবং থাকবে না।
  • গেমস জোন এর গেমসগুলোর রিলিজ তারিখ, নির্মাতা, প্রকাশক, মুক্তির তারিখ, সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টস এবং চিটকোড  তথ্য গুলো বিভিন্ন ওয়েবসাইট হতে সংগৃহকৃত। লেখক এখানে শুধুমাত্র বাংলায় লিখেছেন।
  • ডাউনলোড লিংক এবং এর ফাইলসমূহ সর্ম্পূণ ভাবে অন্য সাইট হতে কপিকৃত। লেখকের সাথে ডাউনলোড লিংক এর কোনো সম্পৃত্ততা নেই।
  • সর্বপরি গেমস জোন লেখক গেমওয়ালার ব্যক্তিগত কর্ম মাত্র। এর সাথে এই ব্লগের কোনো সর্ম্পক নেই এবং গেমস জোনের সকল তথ্য (ডাউনলোড লিংক ব্যাতিত) এর জন্য শুধুমাত্র লেখক গেমওয়ালা দায়ী থাকবে।
  • গেমস জোন একটি সর্ম্পূণ ফ্রি গেমস রিভিউ এবং প্রিভিউ টিউন। তাই এর যেকোনো উপদান স্বাধীনভাবে “ব্যক্তিগত” উদ্দেশ্যে যে কেউ ব্যবহার করতে পারবে। তবে গেমস জোন কে “করপোরেট” ভাবে কখনোই ব্যবহার করা যাবে না।

গেমস জোন সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যা, পরামর্শ, অভিযোগ এবং অন্যান্য যে কোনো বিষয়ের জন্য গেমস জোন এর ফেসুবক পেইজ http://www.facebook.com/games.zone.bd তে যোগাযোগ করুন অথবা সরাসরি লেখক গেমওয়ালার সাথে যোগাযোগ করতে পারেন http://www.facebook.com/talented.fahad

সময় পেলেই ঘুরে আসো গেমস জোনের  সাইট থেকে : http://www.gamewala.net

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 662 টি টিউন ও 429 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 118 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ভালই হয়েছে, আপনাকে ধন্যবাদ।

Level 0

valo