গেমস জোন [পর্ব-২৮৬] :: গ্যাংস্টার ভেগাস (২০১৪)

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

বড় পর্দায় জিটিএ সিরিজের গেমসগুলো বাজার মাতালেও ছোট পর্দায় মানে মোবাইল ডিভাইসগুলো জিটিএ সিরিজের গেমসগুলো তেমন সাড়া ফেলতে পারে নি। তবে জিটিএ সিরিজের মতোই একশন এডভেঞ্চার ধাঁচের গেমস সিরিজ গ্যাংস্টার কিন্তু ঠিকই ছোট পর্দায় জায়গা করে নিয়েছে।

 

গ্যাংস্টার গেমস সিরিজের ৫ম গেম গ্যাংস্টার ভেগাস নিয়ে এলাম আজ। নামের অনুসরেই গেমটি ভেগাস শহরের কাহিনী নিয়ে সেট করা হয়েছে। ২০১৩ সালের জুন মাসে মুক্তি পাওয়া এই গেমটিকে অনেকেই জিটিএ সিরিজের অনুকরণে বানানো হয়েছে বলে মনে করে। কারণ গ্যাংস্টার সিরিজের এই গেমটির কাহিনীচক্র, কাটসিন, ডায়ালগ, গেম-প্লে সবকিছুই গ্র্যান্ড থেফট অটো সিরিজের প্রতিবিম্ব রয়েছে।

গেমটিতে তুমি একজন বক্সার এর ভূমিকায় খেলবে। যার নাম জেসন। সে বক্সিং এর পাশাপাশি পার্ট টাইম মাফিয়া ফ্যামিলির হয়ে ড্রাইভিং করে। আর একটি বক্সি ম্যাচে তোমার সাথে মাফিয়া ফ্যামিলির চুক্তি হয় ম্যাচ ফিক্সিং এর। তবে ঘটনাচক্রে তুমি ম্যাচটি জিতে যাও যা তোমার জেতার চুক্তি ছিলো না। আর তারপর থেকেই মাফিয়া ফ্যামিলির হিট লিষ্টে তোমার নামটি চলে আসে। আর তুমি দৌড়ের উপর থাকো!!

আর গেমটিতে এই টিউটোরিয়াল মিশনেই গেমটির বেসিক কিছু জিনিস তোমাকে শিখিয়ে দেওয়া হবে। যেমন হ্যান্ড টু হ্যান্ড ফাইটিং, ড্রাইভিং, শুটিং ইত্যাদি। যদিও গেমটির ড্রাইভিং কনট্রোল ভাইস সিটির চেয়েও বাজে!

আর গেমটিতে জেসনকে কনট্রোল করাও হালকা ঝামেলার। যেমন দৌড়ানোর ব্যাপারটা আর কনট্রোল সেন্সিভিটি টা কমিয়ে রাখলেও কেমন জানি লাগবে। আর মিশন এর মাঝে দৌড়িয়ে সঠিক দেয়াল বেয়ে উঠা টা যে কত মুশকিল! কারণ দেয়ালের কাছে না আসতেই লাফ দেয় . . . .. .  লুল!

তবে গেমটিতে হাটাচলা এবং দৌড়ানোর চেয়ে ড্রাইভিং সহজ। তবে সেই সেই ড্রিফ করা এবং U turn নেয়া কিন্তু সহজ না! আরে ভাই তোমরা যারা পিসিতে এই জাতীয় গেম খেলো তারা মোবাইলে গেমটি খেলতে একটু অসুবিধা হবেই। কারণ কোনো মাউস নেই, কির্বোড নেই, শুধুই টাচ! তবে গেমটিতে মজার ব্যাপার হচ্ছে গেমটির কোনো গাড়িতেই হর্ন নেই!! হাহাহা!

আর গেমটির সবচেয়ে সহজ সিস্টেম হচ্ছে গুলি করা। গেমটিতে গুলি করার জন্য কোনো ফ্রি এইম নেই। টার্গেট এর ‍উপর টাচ করলেই ‍Big Blue Crosshair আসবে তার উপর এবং তোমাকে শুধু গান ফায়ারের বাটনটি চাপতে হবে!

 

গ্রাফিক্সের দিক থেকে গেমটি ভালো, প্রত্যেকটি চরিত্রে আলাদা আলাদা শরীল এবং চেহেরা রয়েছে এবং ক্যারেক্টার ডিটেইলিংটাও ভালো। লাইট রিফ্লেক্ট, পানির ইফেক্ট ইত্যাদি ও চমৎকার। তবে গাড়ির সংঘর্ষ এর ইফেক্টে কিছু বাগ রয়েছে।

আর শহরে তোমার প্রত্যেকটি ক্রিমিনালগিরির জন্য তুমি Badge Icon পাবে, এইটা দিয়েই তুমি শহরের পুলিশদের কাছে ওয়ান্টেড হতে থাকবে এবং পুলিশ মামারাও তোমাকে ধরতে তোমার পিছে লাগা শুরু করবে! প্রথম তারকা ওয়ান্টেড লেভেলে মাত্র ২ টি পুলিশ ধাওয়া করবে আর সর্বোচ্চ ৫ তারকা ওয়ান্টেড লেভেলে পুলিশ, SWAT এবং Army তোমার পিছনে লাগবে!

 

তবে চিন্তার কোনো কারণ নেই, যদি মরে যাও তাহলে তুমি কাছের কোন হাসপাতালে নিজেকে আবিস্কার করবে (বাস্তবে যেখানে কবরে যাওয়ার কথা! লুল)। তোমার কাছ থেকে হাসপাতালের বিল হিসেবে কিছু ডলার কেটে রাখবে ব্যাস! পুরাই জিটিএর নকল!

তবে গেমটিতে নতুন ফিচার হিসেবে রয়েছে ক্যারেক্টার স্কিলস। যা প্রতিটি লেভেল আপ এর সাথে জড়িত। প্রতিবার ক্যারেক্টারের লেভেল আপ হলে তুমি কিছু স্কিলস পয়েন্ট আনলক করতে পারবে আর গেমটিতে কোনো কিছু আপগ্রেড করতে হলে টাকা নয় এই স্কিল পয়েন্ট এর দরকার হয়।

গেমটিতে স্টোরি মিশন ছাড়াও খেলার মতো অনেক সাইড মিশন রয়েছে। তাই স্টোরি লাইন খেলতে খেলতে বোর হয়ে গেলে শহরে ঘুরে বেড়াও এবং চমৎকার সব সাইড মিশন খেলতে পারো তুমি।

আার নেট কানেক্টশন থাকলে তো কথাই নেই, তুমি তোমার অন্যান্য বন্ধুদের কে নিয়ে সাইড মিশন খেলতে পারো।

 

গ্যাংস্টার ভেগার একটি ওপেন ওয়ার্ল্ড ধাঁচের গেম। যেখানে তুমি অনেক কিছুই করতে পারো। যদি এটি জিটিএ সিরিজের নকল তবে অবশ্যই কিছুটা ভিন্ন। গেমটি তোমার মোবাইল ডিভাইসে খেলতে হলে কোয়াড কোর প্রসেসর আর ১ গিগাবাইট র‌্যাম থাকলেই চলবে।

 

 

 

নির্মাতা এবং প্রকাশ করেছেঃ

গেম লফট

প্রথম মুক্তি পায়ঃ

জুন, ২০১৩  সালে

খেলা যাবেঃ

এন্ড্রয়েড এবং আইওএস ভিক্তিক ডিভাইসে

ধরণঃ

একশন এডভেঞ্জার

খেলার ধরণঃ

সিঙ্গেল এবং মাল্টিপ্লেয়ার

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টসঃ

কমপক্ষেঃ

এন্ড্রয়েড ৪.১ অপরেটিং সিস্টেম

কোয়াড কোর প্রসেসর,

১ গিগাবাইট র‌্যাম,

আড়াই গিগাবাইট ফ্রি মেমোরী স্পেস,

লেটেস্ট গুগল প্লে সার্ভিস

নেট কানেক্টশন মাল্টিপ্লেয়ার খেলার জন্য

মেইন মেনু
গেমটির শুরুতেই তোমাকে বক্সিং করতে হবে

 

মিডিয়াম মোবাইলগুলোতে হাই গ্রাফিক্স অপশনটি নেই
তবে অনান্য টুলস ব্যবহার করে গ্রাফিক্স হাই করা যায়

 

গেমটিতে জুয়া বাজি করা যাবে!
রয়েছে কভার সিস্টেম !

 

সেন্সিভিটি বেশি!
তবে ট্যাবলেট গুলোতে হাই গ্রাফিক্স এবং কনট্রোল করাও মজার!

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 662 টি টিউন ও 429 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 118 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস