গেমস জোন [পর্ব-২৯৬] :: সাইলেন্ট হিল: হোমকামিং (২০০৯) – গাইডলাইন – প্রথম খন্ড

টিউন বিভাগ গেমস
প্রকাশিত

গেমস জোন

অনেক দিন বাংলায় গাইডলাইন লিখি না, লেখার সময় পাই না। কিন্তু কিছুদিন আগে বেশ পুরাতন একটি গেম খেললাম, খুউবই ভালো লাগলো। গেমটির নাম হচ্ছে সাইলেন্ট হিল সিরিজের সর্বশেষ গেম সাইলেন্ট হিল হোমকামিং। আর গেমটিতে যেহেতু বেশ ধাঁধাঁময় কিছু উপাদান আছে তাই ভাবলাম গেমটির গাইডলাইন লিখলে কেমন হয়?

আজ গেমটির সম্পর্কে কিছু বেসিক ধারণা ও ডাউনলোড লিংক দিবো। আগামী খন্ডে গেমটির গাইডলাইন পেয়ে যাবে। তো চলো শুরু করি।

সাইলেন্ট হিল! যারা যারা সাইলেন্ট হিল মুভিটি দেখেছো তাদের জন্য এই গেমটি বেশ রোমাঞ্চকর হবে। কারণ মূলত সাইলেন্ট হিল গেমস সিরিজ থেকেই সাইলেন্ট হিল মুভি সিরিজটি তৈরি করা হয়েছে।

রেসিডেন্ট ইভিল সিরিজের মতোই কিন্তু ওই সিরিজ থেকে আলাদা একটি ভিন্ন মাত্রার ভৌতিক গেম হচ্ছে সাইলেন্ট হিল ৬।

সাইলেন্ট হিল: হোমকামিং গেমটি সাইলেন্ট হিল গেমস সিরিজের ৬ষ্ঠ সংস্করণ যা নির্মাণ করেছে ডাবল হেলিক্স গেমস। গেমটি গেমারদের কাছে Silent Hill V নামে পরিচিত। গেমটিতে এলেক্স শের্পাড এর কাহিনীতে এগিয়ে যাবে। এলেক্স একজন সোল্জার যে এক যুদ্ধ শেষে তার হোমটাউনে ফিরে আসে। কিন্তু এখানে এসে সে দেখে যে তার ছোট ভাই হারিয়ে গেছে বা মিসিং। ছোট ভাইকে খুঁজতে গিয়ে সে সাইলেন্ট হিল শহরের গোপন কিছু কথা এবং তার অতীতের কথাও জেনে যায়। এ এক অদ্ভুত এবং নিষিদ্ধ সংঙ্কৃতি!

গেমটি ২০০৮ সালের সেপ্টেবরের শেষের দিকে এক্সবক্স ৩৬০ ও প্লে-স্টেশন ৩ গেমস কনসোলের মুক্তি পায়। গেমটির পিসি মানে মাইক্রোসফট উইন্ডোজ সংস্করণ ২০০৯ সালের ফেব্রুয়ারীতে বাজারে আসে। উল্লেখ্য যে, গেমটি জাপানি নির্মাতাদের গেম হলেও গেমটির জাপানি সংস্করণ মুক্তির কিছু দিন আগে বাতিল করে দেওয়া হয়।

নির্মাতাঃ

ডাবল হেলিক্স গেমস

প্রকাশকঃ

কোনামি ডিজিটাল এন্টারটেইমেন্ট

সিরিজঃ

সাইলেন্ট হিল

ইঞ্জিণঃ

3D Engine: Slayer

খেলা যাবেঃ

  • প্লে-স্টেশন ৩,
  • এক্সবক্স ৩৬০,
  • মাইক্রোসফট উইন্ডোজ

মুক্তি পেয়েছেঃ

২০০৮-২০০৯ সাল জুড়ে

ধরণঃ

সুরভাইবাল হরর

খেলার ধরণঃ

সিঙ্গেল প্লেয়ার

সিস্টেম রিকোয়ারমেন্টসঃ

কমপক্ষে:

  • ডুয়াল কোর প্রসেসর,
  • ২ গিগাবাইট র‌্যাম,
  • ৫১২ মেগাবাইটের গ্রাফিক্স কার্ড,
  • উইন্ডোজ এক্সপি (সার্ভিস প্যাক ৩) অপারেটিং সিস্টেম,
  • ডাইরেক্ট এক্স ৯.০সি সাথে শেডার মডেল ৩.০ সংস্করণ
  • অফিসিয়ালঃ
  • কোর ২ ডুয়ো প্রসেসর,
  • ২ গিগাবাইট র‌্যাম,
  • ৫১২ মেগাবাইটের গ্রাফিক্স কার্ড,
  • উইন্ডোজ সেভেন
  • ডাইরেক্ট এক্স ১০

ভালোভাবে খেলতে হলেঃ

  • কোর আই৫ প্রসেসর,
  • ৪ গিগাবাইট র‌্যাম,
  • ১ গিগাবাইটের গ্রাফিক্স কার্ড,
  • উইন্ডোজ সেভেন গেমার এডিশন অপারেটিং সিস্টেম,
  • ডাইরেক্ট এক্স ১০

গেমটিতে তোমাকে এলেক্স এর ভূমিকায় খেলতে হবে। সে একজন স্পেশাল ফোর্সের সোল্জার। যুদ্ধক্ষেত্রে আহত হয়ে হাসপাতালে কিছুদিন কাটানোর পর এলেক্স তার হোমটাউনে চলে আসে পরিবারকে দেখার জন্য। কিন্তু সে এসে দেখে যে তার হোমটাউনটি কেমন জানি নিশ্চুপ গোষ্ট টাউনের মতো হয়ে গিয়েছে। আর বাসায় এসে দেখে যে তার ছোটভাই নিখোঁজ এবং তার বাবা ও তার ছোটভাইকে খুঁজতে গিয়ে নিখোজ। পরে এলেক্স আরো জানতে পারে যে, টাউনের বেশিরভাগ মানুষ বিশেষ করে ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা নিখোঁজ রয়েছে। সে বেরিয়ে পড়ে তার ছোটভাই কে খুঁজতে আর সে মুখোমুখি হয় এক ভয়াবহ যাত্রার!

গেমটি থার্ড পারসন ভিউতে খেলতে হবে। গেমটিতে রয়েছে পাজল এর ছোঁয়া। অনেক সময় গেমটির পরিবেশ এবং স্থানীয় ও ঐতিহাসিক বিভিন্ন উপাদানের মধ্য হতে তথ্য খুঁজে বের করে নিতে হবে! মানে মোট কথা হচ্ছে গেমটিতে তোমাকে অনেক ধৈর্য্য সহকারে মাথা খাটিয়ে খেলতে হবে।

তাছাড়াও গেমটিতে রয়েছে নিজের পছন্দ মতো ডায়লগ নির্বাচনের সুযোগ, আর গেমটিতে অস্ত্র দেওয়া হলেও গুলির সংখ্যা লিমিটেড রাখা হয়েছে, তাই আমি বলতে পারি যে, গেমটিতে জুম্বি ভুতদের সাথে ম্যাক্সিমাম সময়ে তোমাকে হ্যান্ড-টু-হ্যান্ড ফাইট করতে হবে!

অস্ত্রসমূহ:

কমবাট নাইফ:

এটি একটি পুরোনো মিলিটারী ছুড়ি আর গেমটির শুরু থেকে এই অস্ত্রটি তুমি ব্যবহার করতে পারবে। অস্ত্রটির এট্যাক স্পিড খুব ভালো।

স্টিল পাইপ:

ছুড়ির থেকে ধীরগতি কিন্তু তার থেকে ড্যামেজ রেট বেশি। মারামারি ছাড়াও বিশেষ কিছু গেইট খুলতে এটি বেশ কাজের।

এমকে ২৩ হ্যান্ডগান:

এটি গেমটির একটি বেসিক হ্যান্ডগান। এই অস্ত্রের ড্যামেজ রেট এবং আক্রমনের গতিও কম, তবে প্রথম দিকে এই একটিই অস্ত্র তুমি ব্যবহার করতে পারবে। নরমাল মোডে এই অস্ত্রের ৯ টি করে গুলি জমা রাখতে পারবে তুমি আর হার্ড মোডে ৫ টি গুলি থাকবে।

ফায়ার এক্স:

গেমটির বেষ্ট মিলি ড্যামেজ অস্ত্র এটি এবং একই সাথে আক্রমণের গতি সবচেয়ে কম এটির। মূলত কাঠের দরজা ভাঙতে এই অস্ত্রের ব্যবহার হয়।

১২ গজ শটগান:

গেমটির একটি বেসিক শটগান এটি, তবে আক্রমেণর গতি ও রিলোড গতি কম। তবে শর্টরেঞ্জে খুব কাজের। বস ফাইটে এটার দরকার হয়। নরমাল মোডে এই অস্ত্রের ৪ টি করে গুলি জমা রাখতে পারবে তুমি আর হার্ড মোডে ৩ টি গুলি থাকবে।

ক্রোবার:

স্টিল পাইপের চেয়ে ওজনে ভারি এবং পাওয়ারফুল অস্ত্র এটি। যা গেমটিতে পাওয়া মাত্র স্টিল পাইপের জায়গায় এটি চলে আসবে।

সেরেমোনিয়াল ড্যাগার:

এটি একটি ঐতিহাসিক ছুড়ি বিশেষ। ছুড়ির পরিবর্তে এটি ব্যবহার হয়। আর গেমটির কিছু বিশেষ লক ও দরজা খুলতে এটি ব্যবহার করা হয়।

ক্রোম হ্যামার পিস্তল:

আগের বেসিক হ্যান্ডগানের জায়গায় এটি ব্যবহার করা হয়। যাতে রয়েছে বেশি ড্যামেজ ও গুলির ধারণক্ষমতা। নরমাল মোডে এই অস্ত্রের ১২ টি করে গুলি জমা রাখতে পারবে তুমি আর হার্ড মোডে ৭ টি গুলি থাকবে।

ব্লুস্টিল শটগান:

রেগুলার শটগানের চেয়ে ওজনে ভারী ও ড্যামেজ এবং গুলি বেশি থাকবে এটায়। নরমাল মোডে এই অস্ত্রের ৫ টি করে গুলি জমা রাখতে পারবে তুমি আর হার্ড মোডে ৪ টি গুলি থাকবে।

এম১৪ এসল্ট রাইফেল:

গেমটির একটি বাজে অস্ত্র এটি, তেমন কোনো কাজের না। তবে লং রেঞ্জের ক্ষেত্রে কাজের তবে গেমটিতে লং রেঞ্জ শুটিংয়ের কোনো দরকার নেই। নরমাল মোডে এই অস্ত্রের ৫ টি করে গুলি জমা রাখতে পারবে তুমি আর হার্ড মোডে ৪ টি গুলি থাকবে।

পুলাস্কি এক্স:

ফায়ারম্যান এক্স এর থেকে সাইজে ছোট এবং অতিরিক্ত ড্যামেজ রয়েছৈ এই  এক্সে।

পুলিশ রাইফেল:

নরমাল রাইফেলের থেকে বেশি রেঞ্জ ও ড্যামেজ সাথে বেশি গুলির ধারণক্ষমতা রয়েছে এটায়।  নরমাল মোডে এই অস্ত্রের ৫ টি করে গুলি জমা রাখতে পারবে তুমি আর হার্ড মোডে ৪ টি গুলি থাকবে।

সার্কুলার করাত:

এই করাতটি  গ্যাসে চলে। খুউবই শক্তিশালি তবে অতিরিক্ত স্লো একটি মিলি অস্ত্র এটি।

লেজার পিস্তল:

গেমটির হিডেন অস্ত্র এটি। এতে রয়েছে পাওয়ারফুল ড্যামেজ রেট ও আনলিমিটেড গুলির ব্যবস্থা। গেমটিকে তোমাকে প্রথমে UFO Ending হিসেবে গেম ওভার করতে হবে। তারপরই এই অস্ত্রে দেখা মিলবে।

চরিত্রসমূহ:

এলেক্স শেপার্ড (২২)

গেমটির নায়ক ও একজন মানসিক রোগী

জোসুয়া শেপার্ড (৯)

এলেক্সের ছোট ভাই, যে ছোটবেলায় দুর্ঘটনায় মরে গেছে

এডাম শেপার্ড (৫৩)

এলেক্সের বাবা ও টাউনের পুলিশ সুপার

লিলিয়ান শেপার্ড (৪৮)

এলেক্সের মা, গেমটিতে তাকে আমরা একজন মানসিক ভারসাম্যহীন রুপে দেখতে পাবো

ইলি হলওয়ে (২২)

এলেক্সের ছোটবেলার বান্ধবী ও টাউনের একজন সাহসী পুলিশ কর্মকর্তা

ডেপুটি হুইলার (৫০)

কোরটিস একারস (৪১)

এলাকার লোকাল রিপেয়ারম্যান ও পরে গিয়ে জানতে পারবে গেমটির একজন ভিলেন সে

জর্জ হলওয়ে (৫৩)

ইলির আম্মু ও এলাকার জর্জ। তবে সেও একজন ভিলেন হিসেবে দেখবে তুমি গেমের শেষের দিকে

মেয়র বারলেট (৪৯)

এলাকার মেয়র, কিন্তু ছেলেকে হারিয়ে এখন পাগলের মতো হয়ে গেছে, নিজের মনের সুখে তিনি এখন শুরু কবর খুঁড়েন

ডাক্তার ফিটচ (৫৫)

এলাকার একমাত্র ডাক্তার যিনি বর্তমানে কালো যাদুবিদ্যায় মগ্ন

 জুম্বি ও বসসমূহ:

অ্যালকেমিয়া নার্স:

সেক্সি নার্স!!! হাতে ছুড়ি নিয়ে তোমাকে আক্রমণ করতে আসবে! মুখে ব্যান্ডেজ করা ও সারা শরীল রক্তাক্ত থাকবে

 লুকার:

কোমর থেকে নিচের দিকে তার জোড়া দেওয়া যার কারণে সে হাঁটতে পারে না। হামাগুড়ি দিয়ে যে তোমার গিয়ে আসবে তার বিশাল বিশাল নখ দিয়ে আক্রমণ করতে

 ফেরাল:

চামড়াহীন ও চক্ষু নাই এমন একটি কুকুর এটি। দ্রুত দৌড়ে এসে তোমায় কামড়ে দেবে!!

 এসফিজিয়া:

নাক-চোখ নাই কিন্তু চারতে হাত রয়েছে, বুকের ভিতর থেকে লাভা ছোঁড়ে তোমাকে আহত করা এর কাজ!

 নিডলার:

এর চারটি পা, সব উল্টো করা। আর পায়ের হাটু থেকে নিচে অংশ ব্লেড দিয়ে তৈরি!! বেশির ভাগ সময় সিলিংয়ে থাকে

সিসিম:

গন্ডারের মতো একটি জুম্বি!

সেপুলচার:

গেমটির প্রথম বস এটি!

স্কারলেট:

গেমটির ২য় বস এটি! ডাক্তার ফিটচের মেয়েকে বলি দেওয়ার পর মেয়ের পুতুলে কালো জাদু করে এইটা বানানো হয়!! অস্থির একটা পুতুল এটি!!

সিয়াম:

গেমটির একটি মিনি বস এটি। সামনের দিকে ছেলে আর পেছনের দিকে মেয়ে নিয়ে অদ্ভুত িএকটি দৈত্য এটি!

অর্ডার মেম্বার:

কালো জাদু ক্লাবের সদস্যরা এই টাইপের হয়

পোঁকা:

এমনিয়ন:

গেমটির শেষ বস এটি!

বুগিম্যান:

গেমটির আল্টিমেইট বস ইনি। যাকে সাইলেন্ট হিলের ছবিগুলোতেও দেখা গিয়েছে!! চরম মাথার ডিজাইন করা হয়েছে এনার!!

যাই হোক, আগামী পর্বে শুরু করবো মুল গাইডলাইন। যারা যারা গেমটি খেলোনি তারা এখনো কাছের কোন দোকান থেকে গেমটির ডিক্স সংগ্রহ করে খেলা শুরু করে দাও। অথবা এখান থেকে ডাউনলোড করে না্ও:

ডাউনলোড লিংকস:

টোটাল সাইজ : ৪৪৫৬ মেগাবাইট

ডাউনলোড করতে নিজের খন্ডগুলোতে ক্লিক করো:

প্রথম খন্ড

দ্বিতীয় খন্ড

তৃতীয় খন্ড

চতুর্থ খন্ড

পঞ্চম খন্ড

ষষ্ঠ খন্ড

সপ্তম খন্ড

অষ্টম খন্ড

নবম খন্ড

খন্ডগুলোর পাসওর্য়াড:

http://www.p30download.com

আজ এ পর্যন্তই। ভালো থেকে তোমরা। আর হ্যাঁ আমার সাইটটিকে নতুন করে সাজিয়েছি, সময় পেলে ঘুরে এসো:

http://www.gamewala.xyz

Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 3 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 662 টি টিউন ও 429 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 118 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

brother akta help caiteci . . . . tectune e post korar somoy lekhar modde limk ki babe de ?

    লেখাকে সিলেক্ট করে পোষ্ট বারে দেখবেন দুটো আলপিন চিহ্ন রয়েছে, প্রথমটি লিংক ঢুকানোর জন্য আরেকটি সেটা মুছে দেবার জন্য।

www,gamewala.xyz ডোমেইনে আবার শুরু করেছেন? বাহ‍! ভাল লাগল শুনে।