ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

বাজারে এসে গেল ইন্টেলের লেটেস্ট অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসর সিরিজ, আপনি এর সম্পর্কে জানেন কি?

বিশ্বের টপ কম্পিউটার চিপ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ইন্টেল তাদের নতুন প্রজন্মের প্রসেসর সিরিজ ইতিমধ্যেই বাজারে ছেড়ে দিয়েছে। ২০১৭ সালের অক্টোবর মাসে “Coffee Lake” কোডযুক্ত এই 8th Gen কোর আই ৩, কোর আই ৫ এবং কোর আই ৭ সিপিইউগুলো বাজারজাতকরণ করা শুরু করে কোম্পানিটি। বর্তমানে আপনি উচ্চমানের নতুন কোনো পিসি বা ল্যাপটপ কিনলে এই অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরগুলোকে পাবেন। তবে কম্পিউটার বাজার যে সম্পূর্ণ রূপে ইন্টেলের দখলে সেটাও কিন্তু বলা ভুল হবে।

ADs by Techtunes ADs

অধিকাংশ কম্পিউটারই ইন্টেলের প্রসেসর দিয়ে সাপ্লাই করা হলেও কিছু সংখ্যাক পিসি AMD কোম্পানির সিপিইউও ব্যবহার করে, আর বর্তমানে কোম্পানির Ryzen+ সিরিজের প্রসেসরগুলো দিয়ে বাজারে পিসি সরবরাহ করছে বিভিন্ন ম্যানুফেকচারিং প্রতিষ্ঠানগুলো। যারা এখনো ইন্টেলের অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরগুলো ব্যবহার করা শুরু করেন নি কিংবা সামনে নতুন পিসি কিনতে যাচ্ছেন কিংবা শুধুমাত্র ইন্টেলের একদমই নতুন প্রজন্মের প্রসেসর সিরিজের সম্পর্কে ধারণা নিতে চান তাদের জন্যেই আমার আজকের এই টিউন।

আজ আমি আপনাদের সামনে ইন্টেলের অষ্টম প্রজন্মের “Coffee Lake” সিরিজের প্রসেসর নিয়ে আপনাদের সামনে আলোচনা করবো। আজকের টিউনে এই অস্টম প্রজন্মের প্রসেসর নিয়ে বেসিক ধারনা, এদের মূল্যতালিকা, কফি লেক প্রসেসরের সাথে ক্যাবি লেক/স্কাই লেক/ কানন লেক ইত্যাদি “লেকের” প্রসেসরের সাথে পার্থক্য এবং এই অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরগুলো ব্যবহার করতে হলে আপনার কোন ধরনের মাদারবোর্ড লাগবে সেটা নিয়েও আলোচনা করবো। তো চলুন আর ভূমিকায় কথা না বাড়িয়ে মূল টিউনে চলে যাই:

ইন্টেল কফি লেক? (Intel Coffee Lake)

কফি লেক (Coffee Lake) হচ্ছে ইন্টেলের অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরের ম্যানুফেকচারিং কোডনেম। আগের প্রজন্মের প্রসেসরগুলোতেও এই একই ধরনের কোডনেম দেওয়া হয়েছিলো এবং এই কোডনেম দিয়ে বিভ্রান্ত হওয়ার কিছু নেই, এটা শুধুমাত্র ইন্টেলের কর্মকর্তাদের বুঝানোর জন্যেই ব্যবহৃত হয়ে থাকে। আমরা জানা কাস্টমার রয়েছি তাদের জন্য এটি হচ্ছে Intel 8th Gen বা অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসর। বর্তমানে (২০১৮) এটিই হচ্ছে ইন্টেলের একদম লেটেস্ট প্রসেসর সিরিজ। এই সিরিজের ইন্টেলের এন্ট্রি লেভেলের পেন্টিয়াম, সেলেরন থেকে শুরু করে উচ্চ লেভেলের কোর আই ৯ পর্যন্ত প্রসেসরগুলো রয়েছে।

সবথেকে সহজ উপায়ে একটি প্রসেসরের অস্টম প্রজন্মের কিনা এটা চেক করার উপায় হলো প্রসেসরের মডেল নাম্বারটি দেখা। অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরগুলো ইন্টেল ৮০০০ প্রসেসর ফ্যামিলির হয়ে থাকে। তাই Intel Core i5-8400 বা Intel Core i7-8700K প্রসেসরগুলো যদি আপনার ল্যাপটপে বা পিসিতে থাকে তাহলে আপনাকে অভিনন্দন, আপনি এখন ইন্টেলের লেটেস্ট প্রসেসরে একজন গর্বিত মালিক!

ইন্টেলের সকল কফি লেক সিপিইউ গুলো 14 Nanometer (nm) ম্যানুফেকচারিং প্রসেস এর মাধ্যমে বানানো হয়েছে। এই সাইজটি একটি প্রসেসরের টান্সিসটরকে রেফার করে থাকে। একটি প্রসেসরের টান্সিসটর যত ছোট হবে সেটায় আপনি বেশি পরিমাণে সিলিকন বসাতে পারবেন। আর তাই বড়সড় এবং বিশাল Transistors যুক্ত প্রসেসরের থেকে এই লেটেস্ট অষ্টম প্রজন্মের ছোট টান্সিসটরযুক্ত প্রসেসরে আপনি ভালো এবং উন্নত পারফরমেন্স পাবেন।

তবে এই ন্যানোমিটারের সেক্টরে ইন্টেল AMD এর থেকে টেকনিক্যাল ভাবে পিছিয়ে রয়েছে। কারণ এএমডি তাদের ২য় প্রজন্মের Ryzen+ সিপিইউগুলোতে ইতিমধ্যেই ১২ ন্যানোমিটার প্রসেসকে বসিয়ে ফেলেছে, অন্যদিকে ইন্টেল তাদের ১৪ ন্যানোমিটারেই রয়েছে। আগের Broadwell, SKylake এবং Kaby Lake প্রসেসরগুলোতেও ইন্টেল এই ১৪ ন্যানোমিটার বা 14nm প্রসেসকে ব্যবহার করেছে; তবে এই নতুন অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরগুলোকে এই সাইজের প্রসেস ব্যবহার করলেও এটি আগের সিরিজের থেকে অনেক ক্ষেত্রে আপগ্রেড করা হয়েছে বিধায় ইন্টেলের অফিসিয়াল পরিভাষায় অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরে ব্যবহার করা হয়েছে 14nm+ প্রসেস সিস্টেম।

ইন্টেলের কফি লেক প্রসেসর সিরিজের মানে অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসর সিরিজে এই ন্যানোমিটারই কিন্তু মূল আকর্ষণ নয়, অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরগুলোকে কোরের সংখ্যা ইন্টেল বৃদ্ধি করে দিয়েছে। আগের প্রজন্মের কোর আই ৩ প্রসেসরে কোরের সংখ্যা ছিলো দুটি; কিন্তু অষ্টম প্রজন্মের কোর আই ৩ প্রসেসরে আপনি পাবেন চারটি কোর। আর অন্যদিকে কোর আই ৫ এবং কোর আই ৭ প্রসেসরেও কোরের সংখ্যা ৪ থেকে বেড়ে ৬টি কোর করেছে ইন্টেল। আর এই কোর বৃদ্ধি করে আগের প্রজন্মের একই কোর সিরিজের প্রসেসরের থেকে অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরগুলোর পারফরমেন্সকে বৃদ্ধি করতে সক্ষম হয়েছে ইন্টেল। তাই ভোক্তা পর্যায়ে আপনি ৭ম প্রজন্মের কোর আই ৩ প্রসেসরের থেকে প্রায় দ্বিগুণ পারফরমেন্স পাবেন এই নতুন অষ্টম প্রজন্মের কোর আই ৩ প্রসেসরগুলোকে, আর এর জন্য বেসিক কোর সিরিজগুলোকে আপনাকে অতিরিক্ত পরিমাণের অর্থও খরচ করতে হবে না।

ADs by Techtunes ADs

কনফিগারেশন এবং মূল্যতালিকা

এবার আসি অষ্টম প্রজন্মের ইন্টেল প্রসেসরের কনফিগারেশন বা স্পেসিফিকেশণ এবং এদের মূল্য নিয়ে। আগের প্রজন্মের প্রসেসরের মতোই এবারের অস্টম প্রজন্মের প্রসেসরগুলোকেও ইন্টেল প্রধানত তিনটি ভাগে ভাগ করেছে। এগুলো হচ্ছে Core i3, Core i5 এবং Core i7। লো বাজেটের পিসি এবং ল্যাপটপগুলোকে কোর আই ৩ প্রসেসর ব্যবহার করা হচ্ছে, মিড রেঞ্জ বাজেটের অভারঅল ভালো পারফরমেন্সযুক্ত পিসি এবং ল্যাপটপগুলোকে আপনি পাবেন কোর আই ৫ প্র্রসেসর এবং হাই পারফরমেন্সযুক্ত উচ্চমানের বাজেটওয়ালা ডিভাইসে আপনি পেয়ে যাবেন এই অষ্টম প্রজন্মের কোর আই ৭ প্রসেসরগুলোকে।

উল্লেখ্য যে কফি লেক সিরিজে কোর আই ৯ প্রসেসরও কিন্তু রয়েছে। কিন্তু এই বর্তমানে এই অষ্টম প্রজন্মের কোর আই ৯  প্রসেসরগুলো আল্ট্রা হাই কনফিগারেশনের কিছু গেমিং ল্যাপটপে আপনি পাবেন। আবার এর থেকেও সুপার ডুপার পারফরমেন্সযুক্ত Optane Memory বোর্ডের Core i9+ প্রসেসরও রয়েছে যেটায় আপনি সবথেকে বেশি পারফরমেন্স পাবেন তবে সেটা আমার আজকের আলোচনার বিষয় নয়।

নিচে অষ্টম প্রজন্মের ইন্টেল প্রসেসরগুলোর “অফিসিয়াল” মূল্যতালিকাটি আমি দিয়ে দিচ্ছি। মনে রাখবেন এগুলো হচ্ছে আন্তর্জাতিক বাজার মূল্য এবং এগুলো হচ্ছে বেসিক প্রাইস। এই প্রাইসের সাথে বিভিন্ন এডিশনাল প্রাইসযুক্ত হয়েই আপনি প্রসেসরগুলো আপনার কম্পিউটার শপের দোকানে পাবেন এবং ল্যাপটপের মূল প্রাইসের সাথে এই প্রাইসটি অর্ন্তভুক্ত করা থাকবে। বি:দ্র: এই মূল্যতালিকাটি জুলাই, ২০১৮ সালের সময় মোতাবেক করা হয়েছে, তাই ২০১৯ সালে বা পরবর্তীতে এই টিউনটি পড়ে এই দাম দেখে বিভ্রান্ত হবেন না।

প্রসেসরের নামকোর এবং থ্রেডের সংখ্যামূল ক্লক স্পিডম্যাক্স টার্বো ক্লক স্পিডদাম
Intel Core i3-8350K4 Cores 4 Threads4.0GHz-$185 (১৫, ৫৮৪ টাকা)
Intel Core i3-83004 Cores 4 Threads3.7GHz-$145 (১২, ২১৪ টাকা)
Intel Core i3-81004 Cores 4 Threads3.6GHz-$120 (১০, ১১০ টাকা)
Intel Core i5-8600K6 Cores 6 Threads3.6GHz4.3GHz$245 (২০, ৬৪০ টাকা)
Intel Core i5-86006 Cores 6 Threads3.1GHz4.3GHz$220 (১৮, ৫৩২ টাকা)
Intel Core i5-85006 Cores 6 Threads3.0GHz4.1GHz$205 (১৭, ২৭০ টাকা)
Intel Core i5-84006 Cores 6 Threads2.8GHz4.0GHz$180 (১৫, ১৫০ টাকা)
Intel Core i7-8086K6 Cores 12 Threads4.0GHz5.0GHz$425 (৩৫, ৭৫৫ টাকা)
Intel Core i7-8700K6 Cores 12 Threads3.7GHz4.7GHz$350 (২৯, ৪৭০ টাকা)
Intel Core i7-87006 Cores 12 Threads3.2GHz4.6GHz$302 (২৫, ৪৩০ টাকা)
Intel Core i9-8950HK6 Cores 12 Threads2.90GHz4.80GHz$583 (৪১, ২০০ টাকা)

এই তালিকায় লক্ষ্য করলে দেখবেন যে কিছু কিছু প্রসেসরের শেষে "K" অক্ষরটি রয়েছে। এই অক্ষরযুক্ত প্রসেসরগুলো ইন্টেলের থেকে “আনলকড” করা থাকে, মানে হচ্ছে এই প্রসেসরগুলোকে আপনি আপনার মাদারবোর্ডের বায়োস থেকেই সহজেই ওভারক্লক করতে পারবেন। তবে ওভারক্লক করার জন্য আপনার দরকার হবে একটি ওভারক্লক ফিচারগুলো একটি মানানসই মাদারবোর্ড।

কফি লেক সিপিইউ এর জন্য কোন মাদারবোর্ড ব্যবহার করবেন?

Skylake এবং Kaby Lake চিপগুলোর LGA 1151 মাদারবোর্ড সকেটেই আপনি এই নতুন অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরগুলোকে ব্যবহার করতে পারবেন তবে দুঃখের বিষয় হচ্ছে পুরাতন মডেলের LGA 1151 মাদারবোর্ডে এই নতুন অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরগুলো সার্পোট করবে না। তাই আপনার মাদারবোর্ডটি ৩০০ সিরিজের হয়ে থাকে তাহলেই এই প্রজন্মের প্রসেসরগুলোকে সার্পোট করাতে পারবেন। ১০০ এবং ২০০ সিরিজের মাদারবোর্ডগুলো শুধুমাত্র Skylake এবং Kaby Lake প্রসেসরের জন্য নির্মিত হয়েছে। অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরগুলোকে ভালোভাবে ব্যবহার করতে চাইলে নিচের চার ধরনের মাদারবোর্ডকে আপনি ব্যবহার করতে পারেন:

  • H310
  • B360
  • H730
  • Z370

এছাড়াও  আপকামিং মিড রেঞ্চের আরেকটি মাদারবোর্ড Q370 এবং প্রিমিয়াম রেঞ্চের Z390 মাদারবোর্ডেও আপনি নতুন অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরের স্বাদ নিতে পারবেন।

Coffee Lake VS Kaby Lake VS Skylake

ওরে বাবা, এখান লেক দিয়ে পানি পানি করে ফেললাম নাকি! এটা আমার দোষ না বটে, ইন্টেলের এই পানি পানি কোডনেম এর জন্যেই এই অবস্থা। ২০১০ সালের শুরু দিক থেকেই ইন্টেল তাদের প্রসেসরগুলোর কোডনেড এই Lake নিয়ে ব্যবহার করা শুরু করে। ২০১১, ২০১২ সালে আমরা ব্রিজ কোডনেম দেখে এসেছি Sandy Bridge এবং Ivy Bridge প্রসেসরগুলোর মাধ্যমে, আবার ইন্টেল তার Wells কোডনেমের প্রসেসরগুলো কিন্তু বাজারে এর পরে Haswell এবং Broadwell প্রসেসরগুলো নিয়ে এসেছিলো।

এর পর আসে Skylake। স্কাইলেক কোডনেমের প্রসেসরগুলো ইন্টেলর ৬ষ্ঠ প্রজন্মের প্রসেসরকে ইঙ্গিত করে। এই প্রসেসরগুলোর ১৪ ন্যানোমিটার প্রসেস দিয়ে তৈরি হয়েছিলো। তারপর আসে ৭তম প্রজন্মের Kaby Lake প্রসেসর। আর এখন চলে এলো Coffee Lake বা অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসর। তাই টিউনে আমি বলে দিয়েছি যে এই কোডনেম নিয়ে বিভ্রান্ত হওয়ার দরকার নেই, শুধুমাত্র প্রজন্মের সম্পর্কে আপনার ধারণা থাকলেই চলবে। এই প্রজন্মের কারণেই ডুয়াল কোর প্রসেসরের দাম ২ হাজার থেকে শুরু হয়ে ৮/৯ হাজার পর্যন্ত হয়ে থাকে, আর এই প্রজন্মের কারণেই আপনি ২০ হাজার টাকায় কোর আই ৫ পিসি কিনে নিতে পারছেন আবার অনেকেই ৪০ হাজার টাকা দিয়ে কোর আই ৩ পিসি কিনছে বলে তাকে বোকা ভাবলে আপনি নিজেই বোকা বনে যেতে পারেন। 🙂

ADs by Techtunes ADs

অন্যদিকে বর্তমানে ইন্টেল Cannon Lake এবং Ice Lake নামের দুটি নতুন প্রসেসর সিরিজের উপর কাজ করছে। এই দুটি সিরিজের প্রসেসরগুলো 10nm প্রসেস এর হবে মানে এগুলো অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরের থেকেও দ্রুত গতির হবে। ২০১৯ সালের শেষ নাগাদ এদের যেকোনো একটিকে বাজারে আনার গুজব রয়েছে।

পরিশিষ্ট:

এই ছিলো ইন্টেল কোম্পানির নতুন অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসর নিয়ে কিছু বেসিক ধারণা। আশা করবো টিউনটি পড়ে অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরের সম্পর্কে কিছুটা হলেও আপনি জানতে পেরেছেন এবং এদের দাম সম্পর্কেও ধারণা পেয়েছেন। তাই বাজেটে থাকলে আপনি নিয়ে নিতে পারেন অষ্টম প্রজন্মের প্রসেসরযুক্ত যেকোনো ল্যাপটপ বা ডেক্সটপ কম্পিউটার। অষ্টম প্রজেন্মর বেস্ট ল্যাপটপগুলো নিয়ে সামনের যেকোনো দিন আরেকটি আলদা টিউন করবো। তবে সেটা করার আগে অষ্টম প্রজন্মের কিছু ভালো ল্যাপটপগুলোর মডেল দিয়ে আজকের টিউনটি এখানেই শেষ করছি:

  • Dell XPS 15
  • Acer Aspire (8th Gen)
  • Aorus X7
  • Apple MacBook Pro (2018 Version)
  • Asus VivoBook Pro
  • HP ENVY 17t
  • MSI WE72 7Rj
  • Dell G3
  • ASUS ROG Strix GL503VD

টিউনটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ। আল্লাহ হাফেজ।

ADs by Techtunes ADs
Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর 1 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 658 টি টিউন ও 429 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 91 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস