ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

মহাকাশে প্রাণের খোঁজে বেরিয়েছে কেপলার

টিউন বিভাগ খবর
প্রকাশিত

25
কেপলার নাসা নির্মিত স্পেস টেলিস্কোপ, যেটির মূল উদ্দেশ্য মহাশূন্যে পৃথিবীর মতো গ্রহ খুঁজে বের করা এবং প্রাণের অস্তিত্ব সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করা। এটি আগামী সাড়ে তিন বছরে প্রায় ১,০০,০০০ নক্ষত্র পর্যবেক্ষণ করবে। জার্মান এস্ট্রোনমান জোহানেস কেপলারের নামানুসারে এই টেলিস্কোপের নামকরণ করা হয়েছে। গত ৭ মার্চ এটি মহাশূন্যে উৎক্ষেপণ করা হয়। সব মিলিয়ে এর মোট ভর ১০৩৯ কিলোগ্রাম; আর ব্যাস .৯৫ মিটার। আর এখন পর্যন্ত এটিই মহাশূন্যে মানুষের পাঠানো সবচেয়ে বড় টেলিস্কোপ। মহাকাশে পাঠানো সবচেয়ে শক্তিশালী ক্যামেরাটি আছে কেপলারে। কেপলারের এই চোখ খুঁজে বেড়াবে পৃথিবীর মতো পাথুরে গ্রহ। সূর্যের মতো তারা খুঁজতে কেপলারের মনোযোগ বেশি থাকবে একই তাপমাত্রার কাছাকাছি তারাগুলোর দিকে। সেখানে আগে খুঁজবে তরলের অস্তিত্ব। পানি বা তরলের অস্তিত্ব থাকলে সেখানে প্রাণের অস্তিত্ব থাকার সম্ভাবনাও বেড়ে যায়। পৃথিবীর আকৃতি ছাড়াও মঙ্গল ও বৃহস্পতির আকৃতির গ্রহও খুঁজবে এটি।

ADs by Techtunes ADs

26
বিভিন্ন তারা থেকে বিচ্ছুরিত আলোর ঝলকানি এবং এর পরিবর্তন দেখে প্রাথমিক ধারণা করবে কেপলার। সাধারণত তারার সামনে যদি ওই তারারই কোনো গ্রহ চলে আসে, তাহলে এ থেকে বিচ্ছুরিত আলোক ঝলকানিতে কিছুটা পরিবর্তন দেখা যায়। এ থেকে সামনে চলে আসা সেই গ্রহটি সম্পর্কে ধারণা করা সম্ভব। কেপলার প্রথমে নজর দেবে সম্ভাব্য ‘হেবিটেবল’ অঞ্চলের তারাগুলোর প্রতি, বিশেষ করে যাদের আকার সূর্যের কাছাকাছি বা ছোট। ছোট নক্ষত্রগুলোতে পর্যবেক্ষণ চালাতে সময়ও কম লাগবে অপেক্ষাকৃত। শুধু দ্বিতীয় পৃথিবীই না, বিভিন্ন গ্রহ-নক্ষত্রের জন্ম ও বিবর্তন সম্পর্কেও ধারণা দেবে কেপলার। সূর্যের প্রতিবেশী নক্ষত্র থেকে শুরু করে কেপলার পৃথিবী থেকে তিন হাজার আলোকবর্ষ দূরত্বের তারাগুলোও পর্যবেক্ষণ করবে। পুরো মিশনের ব্যয় ধরা হয়েছে প্রায় ৬০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

ADs by Techtunes ADs
Level New

আমি সেতু। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 12 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 47 টি টিউন ও 470 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আছি কম্পিউটার আর ইন্টারনেটকে সাথে নিয়ে।ভালোবাসি নতুন আর আনকোরা সফটওয়ার নিয়ে কাজ করতে।ভালো লাগে হার্ডওয়ার নিয়ে ঘাটাঘাটি করতে।পড়ছি বুয়েটে।কাজ করছি টেকনোলজি টুডে'র সহকারি সম্পাদক হিসেবে।কম্পিউটার-এর জগতে শুধু ঘুরেই বেড়াচ্ছি গত প্রায় ১২/১৩ বছর ধরে।কম্পিউটার নিয়েই কাজ করছি ৮/৯ বছর ধরে।জড়িত আছি বিভিন্ন দেশী-বিদেশী সাইট-এর সাথে।মোটামুটি দেশীয় কম্পিউটারের সবক্ষেত্রেই নজর রাখতে...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Thanks

মনের মত টিউন