ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

Apple এর কিছু লিমিটেড এডিশনের পণ্য যা আপনি হয়ত জীবনে জানেনও না এবং শুনলেও অবাক হবেন!!

টিউন বিভাগ খবর
প্রকাশিত

অ্যাপল (Apple) নামটা শুনলেই আমাদের মনের ভেতর একটা অন্যরকম অনুভূতি জেগে ওঠে। এটাই মনে হয় প্রথিবীর সবথেকে প্রিমিয়াম একটা নাম। আর এই নামের সাথে পরিচিত না এমন লোক মনে হয় প্রথিবীতেই খুজে পাওয়া যাবে না। শুধু প্রোডাক্টের কোয়ালিটির জন্য না, নামটাও যেন অ্যপেলের ক্ষেত্রে একটা অনেক বড় ফ্যাক্ট।

ADs by Techtunes ADs

আমরা সবাই অ্যাপল (Apple) এর আইপড, আইফোন, আইপ্যাড, ল্যাপটপ, ম্যাক, অ্যপেল ওয়াচ প্রভৃতির নাম শুনেছি বা অনেকেই হয়ত ইউজও করছেন এই প্রোডাক্ট গুলো। এগুলো সবসময়ই সবস্থানে খুবই ফেমাস কয়েকটা নাম।

কিন্তু আমরা হয়ত অনেকেই জানি না যে অ্যাপেল এই প্রোডাক্ট গুলো ছাড়াও অনেক রেয়ার ও মজাদার কিছু প্রোডাক্ট তৈরী করেছে যার ভেতর এখন হয়ত অনেক প্রোডাক্টই বাজারে পাওয়া যায় না।

অ্যাপেলের কিছু লিমিটেড এডিশন প্রোডাক্ট যেমন এ্যাপল TAM কম্পিউটার, সলিড গোল্ড হেডফোন এইরকম অনেক প্রোডাক্ট রয়েছে যেগুলো এখনও মানুষের চোখের আড়ালে থেকে গেছে।

আমরা আজ এই ধরণের এ্যাপল এর কিছু লিমিটেড প্রোডাক্ট নিয়ে আলোচনা করব। তবে মনে রাখবেন যে এই প্রোডাক্টগুলো আপনি এখন ইচ্ছা থাকলেও কিনতে পারবেন না।

অ্যাপল রেইনবো লোগো :

১৯৮৩ সালে এ্যপল Myra Burg নামের একজন খুবই ফেমাস আর্টিস্ট এর সাথে কাজ করেছিল এ্যাপল,  এর কিছু রেইনবো লোগোর ওয়াল পেইন্টিং তৈরী করার জন্য। এই পেইন্টিংগুলো এ্যাপল এর গিফট ক্যাটালগ এর ভেতর ছিল। সেই সময় শুধুমাত্র ২৫ টি ওয়াল পেইন্টিং তৈরী করা হয়েছিল মার্কেটে বিক্রয়ের জন্য। এই সব পেইন্টিং গুলো Myra Burg তার নিজের হাতে তৈরী করেছিলেন। এই পেইন্টিং গুলো ৩৫০ ইউএস ডলার মূল্যে বিক্রয় করা হয়। এই পেইন্টিং গুলোর ভেতর ২ টা স্টিভ জবস এবং স্টীভ ওজনিয়াককে গিফট করা হয়।

 

The Twentieth Anniversary Macintosh (TAM):

অ্যাপল(Apple) তাদের ২০ তম এ্যনিভার্সারি সেলিব্রেট করার জন্য TAM নামের ম্যাক কম্পিউটার তৈরী করে।এটার ফুল নাম হল Twentieth Anniversary Macintosh(TAM) এটা তৈরী করা হয় ১৯৯৭ সালে। সেই সময় এই কম্পিউটারের দাম ছিল ৭৪৯৯ ইউএস ডলার। এটা ছিল জনি ইভস এর প্রথম একটা এ্যাপল প্রোজেক্ট। এই TAM কম্পিউটারের ডিজাইনটা ছিল খুবই বিষ্ময়কর। এটার সাথে ২ টি বেস স্পীকার এবং একটি স্যাটেলাইট সাবউফার যুক্ত ছিল। এই TAM কম্পিউটারের একটা বিশেষ পদ্ধতির স্টার্টআপ সিস্টেম ছিল যেটা এখনও কোন অ্যপল এর কম্পিউটারে পাওয়া যায় না।

ADs by Techtunes ADs

 

Apple এর IIGS "Woz Edition":

অ্যাপল (Apple) এর ১০তম এ্যানিভার্সারি পালন করার সময় এ্যপল কোম্পানী ৫০০০০ লিমিটেড পিস কম্পিউটার তৈরী করে। এই কম্পিউটার গুলোর নাম ছিল অ্যাপল IIGS কম্পিউটার। এই কম্পিউটার গুলোর একটা মেইন ফিচার ছিল যে, এটার সামনের কেসিং এ এ্যপল এর কো-ফাউন্ডার Steve Wozniak এর "Woz" সিগনেচার সহ বাজারে পাওয়া যাচ্ছিল। পেছনের মেশিন এর যেকোন মালিক তার রেজিস্ট্রেশন ফর্ম মেইল করে এ্যপেল এর কাছে পাঠালে এ্যাপেল তাদের "Woz" সাইন করা একটা মেশিন প্রিন্টেড অথেনটিসিটি সার্টিফিকেট এবং সেই সাথে এ্যাপল এর ১২ জন টপ ইন্জিনেয়ারের সাইন সহ একটা কপি পাঠিয়ে দিত।

অ্যাপল এর 1986 সালের হোম এক্সেসোরিস:

১৯৮৬ সালে এ্যাপল তাদের কোম্পানী থেকে "The Apple Collection" নামের কিছু হোম এক্সেসোরিস রিলিজ করে যেটা ছিল অ্যাপল (Apple) ব্রান্ডেড। এই এক্সেসোরিজ গুলো ছিল ছাতা, পকেট ছুরি, তোয়ালে, মগ, এবং একটি গোলাকার ঘড়ি। মজার, তাই না ?এ্যাপেল এর মত একটা কোম্পানী এইসব জিনিস প্রোডিউস করেছে এটা ভাবলেই কেমন অবাক হতে হয়।

অ্যাপল এর ১৯৮৬ সালের তৈরী কাপড়:

এবার আরও মজাদার ঘটনা যেটা শুনলে আপনি হয়ত চমকিত হবেন। শুধু হোম এক্সেসোরিজ না। এ্যাপেল একসময় বিভিন্ন এক্সেসোরিজ এর সাথে ফ্যাশনেবল কিছু জিনিস ও তৈরী করেছিল। যেমন বেশ ফেলাফাপা সোয়েটার, ওয়াইন্ড ব্রেকার, প্যাটার্নড শার্ট, পোলো এমনকী ছোট বাচ্চাদের জামাকাপড় ও এ্যাপল এর থেকে তৈরী করা হয়েছে। অবাক করার মতই জিনিস।

রেড সলিড গোল্ড ইয়ারপ্যাড হেডফোন:

২০১৩ সালে রেড চ্যারিটির জন্য টাকা তোলার লক্ষ্যে অ্যাপল (Apple) এর ইন্জিনিয়ার জনি ইভ একজোড়া পিওর সোনার ইয়ারপড হেডফোন তৈরী করেন। যেটা ৪৬১০০০ ডলার এ বিক্রয় হয়েছিল। এরকম অ্যাপেল এর দানশীলতা হয়ত অনেকেই জানতেন না। আজ জেনে নিন।

ADs by Techtunes ADs

অ্যাপল এর গোল্ড ব্রেসলেটের ঘড়ি:

অ্যাপল (Apple) একসময় একটা ঘড়ি বাজারে ছাড়ে যেটার ব্রেসলেট ছিল হলুদ বা সোনালী কালারের সোনা দিয়ে তৈরী। এটার প্রোডাকশন ছিল খুবই কম পরিমাণ। এখন এটা বাজারে এভেইলএবল না। এই গোল্ডেন ওয়াচ এর পেছনে যাদের অবদান আছে তারা হলেন Beyoncé, Kanye West, এবং ফ্যাশন ডিজাইনার  Karl Lagerfeld।

রেড ম্যাক প্রো :

অ্যাপল (Apple) এর সেই বিখ্যাত ইন্জিনিয়ার জনি ইভ ২০১৩ সালে অ্যাপল এর জন্য এক ধরণের লাল কালারের এ্যাপল ম্যাক প্রো তৈরী করেন। এটার দাম শুনলে হয়ত আপনারা অনেকেই বিষ্মিত বা টাস্কিত হবেন। এটা একটা অকশনে ৯৭৭০০০ ইউএস ডলারে বিক্রয় হয়। এটা হল পৃথিবীর ইতিহাসে সবথেকে বেশী দামে বিক্রয় হওয়া একটা কম্পিউটার।

অ্যাপর আইপড U2 এডিশন:

অ্যাপল (Apple) একসময় রক ব্যান্ড U2 এর সাথে যৌথ পার্টনারশীপে একটা স্পেশাল ফোর্থ জেনারেশন আইপড তৈরী করে। এটা এখন বাজারে পাওয়া যায় না। এটার কালার ছিল মূলত কাল এবং এটার সেন্টরে একটা লাল রঙের ক্লিক হুইল যুক্ত ছিল। এই মডেলটি বাজার থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। এই মডেলের আইপডটি U2 এর চারজন ব্রান্ড মেম্বার এর সিগনেচার সহ এবং পেছনের দিকে U2 এর পোষ্টর সহ বাজারে পাওয়া যেত। আর এটাই ছিল এর একটা বিশেষ আকর্ষণ।

টিম কুকের অ্যাপল ওয়াচ:

এ্যাপল এর সিইও টীম কুক একটা এ্যাপল ওয়াচ তৈরী করছেন। এটা মূলত স্টেইনলেস স্টীলের তৈরী একটা ওয়াচ। এ্যাপল এমন কোন ওয়াচ আগে কখনও তৈরী করেনি। এটাই হল প্রথম সম্পূর্ণ ইউনিক ডিজাইনের একটা ওয়াচ। এটাতে এক সাইডে একটা লাল রঙের কাষ্টম ডিজিটাল ক্রাউন বসানো আছে। এমন ওয়াচ আগে পৃথিবীতে কখনও দেখা যায়নি বা বিক্রিও হয়নি।

অনেকেই হয়ত আফসোস করছেন যে এই পণ্যগুলো কেনাতেো দূরে থাক চোখে দেখারও সুযোগ পেলেন না । সমস্যা না , আপনি পৃথির্বর ৯৯% লোকের ভেতরে আছেন যারা এই প্রযুক্তিগুলো দেখতে পাননি । অনেকে তো এগুলো সম্পর্কে জানেন ও না । অ্যাপল হল এমনই ক্রিয়েটিভ একটা স্থান যার সম্পর্কে যত জানা যায় ততই আগ্রহ বাড়তে থাকে ।

আজ এই পর্যন্তই। সবাই ভাল থাকবেন। পরের কোন পোষ্টে আরও মজাদার কিছু নিয়ে হাজির হব।আর কোন বিষয়ে কনফিউশন থাকলে অবশ্যই টিউমেন্ট করবেন। ধন্যবাদ।

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি অরিন্দম পাল। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 8 বছর যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 82 টি টিউন ও 316 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 18 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

মানসিক ভাবে দূর্বল । কোন কাজই কনফিডেন্টলি করতে পারি না , তবুও দেখি কাজ শেষ পর্যন্ত হয়ে যায় । নিজের সম্পর্কে এক এক সময় ধারণা এক এক রকম হয় । আমার কোন বেল ব্রেক নেই । সকালে যে কাজ করব ঠিক করি , বিকালে তা করতে পারি না । নিজের...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

Level 0

টাস্কিত না হয়ে বরং কিছুটা বিরক্ত বোধ হয়েছে।

Jana Silo na……….

হুম, আজব এই জাদুঘরের জিনিসগুলো জানা ছিল না মোটেও- তবে এগুলো পয়দা হয়ে ছিল ওরকম জাদুঘরে থাকার জন্যই 😛 তব একটা “IIGS” অথবা “রেড ম্যাক” পেলে বর্তে যেতাম!!!

সুবাসিত ধইন্যা নতুন এই জাদুঘরের সাথে পরিচয় ঘটানোর জন্য 🙂