ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

যে ১০ নীতি স্টিভ জবস মানতেন, মানতে বলতেন সফল হওয়ার জন্য “Think Different” এর জনক কি ভিন্ন চিন্তা করতেন আর কিইবা আমাদের চিন্তা করতে বলতেন আসুন এক পলকে দেখে আসি সফলতা তুমি পালাবে কোথায়!

হ্যালো টেকটিউনস কমিউনিটি, কেমন আছেন সবাই? আশা করি টেকনোলজির সাথে সাথে দারুণ মেতে উঠেছেন টেকটিউনসের সাথে। আজকের টিউন আপনাকে আরও একটু স্বস্তি দিবে এই আশা নিয়েই আমার পথচলা।

ADs by Techtunes ADs

স্টিভ জবসকে নিয়ে আমি এর আগেও অনেক কথা বলেছি। স্টিভ জবসকে বলা হয়  আধুনিক প্রযুক্তির পথ প্রদর্শক। তিনি আমাদের শিখেয়েছেন কিভাবে সকল বাঁধা অতিক্রম করে সফল হওয়া যায়। ঠিক সে রকমই কিছু নীতি মেনে তিনি নিজে সফল হয়েছেন। আর বিভিন্ন কনফারেন্সে স্টিভ জবস সেই জিনিসগুলোই সফল হওয়ার জন্য মেনে চলতে বলতেন।

আমরা আজকে সেই টপিকস নিয়েই আলোচনা করবো। তিনি কিভাবে সেগুলো নিজের মনে গেঁথে রেখেছিলেন আর তার সাথে সাথে কিভাবে তিনি বাঁধা অতিক্রম করলেন সেই সব দারুণ টপিকস নিয়ে আমার আজকের আয়োজন। আশাকরি সেইসব মূলমন্ত্র।

স্টিভ জবস

স্টিভ জবসের ১০ নীতি যেটা তিনি মেনেছেন মানতেও বলতেনঃ

স্টিভ জবস সবসময় ধারন করতেন সেই ১০ নীতি, যা তাঁর উন্নতির পথে সোপান ছিল।

১) আজকে ভবিষ্যৎ দেখুনঃ

ভবিষ্যৎ দেখার ক্ষমতা সবার থাকে না। কিন্তু যদি আপনি আপনার কাজের ভবিষ্যৎ আজকে দেখতে পান এবং সেইভাবে আগাতে পারেন তাহলে আপনি সফল নিচ্চিত বলা যায়।

স্টিভ জবস টাচ ফোনের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করেন এবং তিনি জানতেন এটা একদিন বাজার দখল করবে। আর সেইভাবেই তিনি নিজেকে গড়েছিলেন। ফল কি তিনি সফল।

আর তিনি খুব বেশি দূর  ভবিষ্যৎ দেখতেন, যেটা তাঁকে অনেক দূর এগিয়ে দেয়।

আজকে ভবিষ্যৎ দেখুন

২) পজিটিভ হয়ে উঠুনঃ

অন্যান্য আর ১০ টা যুবকের মতো স্টিভ জবসও  কৈশোরে বখাটে ছেলেদের সংঘ ছাড়তে পারেন নি। কিন্তু ঠিকই বুঝতে শেখার সাথে  সাথে তিনি সেগুলো অতিক্রম করে নেন। আর বিশ্বের সব থেকে লেটেস্ট জিনিস তথ্য প্রযুক্তির সাথে যুক্ত হন। যেটা তাঁকে কয়েক ধাপ এগিয়ে দেয়। সেহেতু আপনাকে নেগেটিভ চিন্তা থেকে বের হয়ে পজিটিভ চিন্তা করতেই হবে, সুন্দর ভবিষ্যতের জন্য।

পজিটিভ হয়ে উঠুন

৩) ব্যর্থতা মানে পথের শেষ নয় শুরুঃ

ব্যর্থতা মানে পথের শেষ নয়, পথের শুরু মাত্র। আপনি সফল হবেন কিন্তু ব্যর্থতা মেনে নিবেন না তাহলে আপনার দ্বারা সফলতাও সম্ভব নয়। আপনাকে ব্যর্থ হয়েও নতুন করে শুরু করতে হবে। স্টিভ জবস তাঁর জীবনীতে উল্লেখ করেছেন তিনি কতো বার অ্যাপেলে ব্যর্থ হতে হতে সফল হওয়ার দ্বারে পৌঁছালেন। সেহতু ব্যর্থতাঁকে আলিঙ্গন করতে শিখুন এবং সেখান থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যান।

ব্যর্থতা মানে পথের শেষ নয় শুরু

৪) বিশ্ব ভ্রমন করুনঃ

যে বছরে স্টিভ জবস অ্যাপেল প্রতিষ্ঠা করেছিলেন তাঁর আগে তিনি ভারত ভ্রমন করেছিলেন। একজনের চিন্তা শক্তির বিকাশে এবং সঠিক উদ্দেশ্য খুঁজে পেতে আপনার  ভ্রমন করা উচিত। যেটা একজন উদ্যোক্তার খুব বেশি প্রয়োজন।

ADs by Techtunes ADs

ভ্রমণ করতে খুব বেশি টাকার প্রয়োজন হয় না। আপনি আপনার পার্শ্ববর্তী দেশ বা শহর ভ্রমণ করতে পারেন যা আপনার চিন্তা শক্তি বাড়াতে এবং ভবিষ্যৎ দেখতে খুব সহযোগিতা করবে।

বিশ্ব ভ্রমন করুন

৫) সঠিক পার্টনার খুঁজে বের করুনঃ

স্টিভ জবস একাকি অ্যাপেল গড়ে তুলেননি। তাঁর সাথে তাঁর শ্রেষ্ঠ বিজনেস পার্টনার Steve Wozniak ছিলেন। যিনি তাঁর মতো চিন্তার অধিকারি ছিলেন এবং দক্ষও ছিলেন।

সেহেতু আপনাকে এই সঠিক ব্যক্তিকে খুঁজে নিতে হবে। যে আপনার কাজের উপযোগী হবে এবং তাঁর সাথে আপনার মতাদর্শও যাবে।

সঠিক পার্টনার খুঁজে বের করুন

৬) বাঁধা যে সুযোগ সেটা বুঝতে শিখুনঃ

সফলতার পথে বাঁধা আসবেই কিন্তু সেটা যে আপনাকে আরও বেশি সুযোগ দিতে পারে সেটা বুঝতে হবে। অ্যাপেল কম্পিউটার গড়ার সময় স্টিভ জবস এবং Steve Wozniak এর ঠিক সেই রকমই কিছু বাধার সম্মুখীন হতে হয়েছিলো, কিন্তু তিনি তা আশীর্বাদ হিসেবে নিয়েছিলেন। তাঁর অনেক কিছু হারাতেও হয়েছিলো সেজন্য, কিন্তু তিনি সেটাকে ঠিকই সুযোগে রূপান্তর করেন।

বাঁধা যে সুযোগ সেটা বুঝতে শিখুন

৭) রিস্ক নিনঃ

স্টিভ জবস তাঁর নতুন  প্রডাক্ট প্রসারের জন্য অনেক রিস্ক নিয়েছিলেন। তিনি আইফোন বের করার সময় অনেকে নিষেধ করছিলেন, আইপডের ভবিষ্যৎ ভেবে, কিন্তু তিনি রিস্ক নিয়ে অগ্রসর হয়েছিলেন। এবং তাতে তিনি সফলও হন।

এজন্য আপনাকেও রিস্ক নিতে হবে সমান তালে, না হলে  নতুন উদ্ভাবনিতে পিছিয়ে যাবেন।

রিস্ক নিন

৮) সফল মানুষদের সাথে থাকুনঃ

স্টিভ জবস যে শুধু Steve Wozniak কে নিয়ে কাজ করতেন তা নয়। তিনি আরও অনেক সফল মানুষদের সাথে উঠা বসা করতেন সমান ভাবে। যেমন পিক্সার সিইও টিম কুক। ফলে তিনি সফল হতে আরও একটু সহযোগিতা পেতেন, করতেনও।

আপনার চারপাশ যদি সফল মানুষের আনাগুনা বেশি থাকে তাহলে আপনি ভবিষ্যৎ দেখতে সুবিধা পাবেন আর অনেক বেশি আত্ম প্রত্যয়ী এবং কৌশলী হবেন। সেহেতু সফল মানুষদের সাথে থাকুন যতো পারবেন।

সফল মানুষদের সাথে থাকুন

৯) মনে রাখবেন আপনি খুব দ্রুত মারা যাবেনঃ

আমরা মানুষ হিসেবে সারা জীবন বেঁচে থাকবো না এটা স্বাভাবিক। সেহেতু আপনি যদি কিছু করতে চান তাহলে সেটা এখনি এবং এই সময়ই করতে হবে, না হলে হয়তো আপনি সেটা করার আদৌ সময় পাবেন না।

আপনার যখনি হতাশা বা পীড়া আসবে তখনই ভাববেন। যেটা আপনাকে এগিয়ে নিতে সুবিধা দিবে।

ADs by Techtunes ADs
মনে রাখবেন আপনি খুব দ্রুত মারা যাবেন

১০) অন্যের কাছ থেকে শিখতে লজ্জা পাবেন নাঃ

আপনি সফল হতে শেখার শেষ নেই। আপনি অন্যের কাছ থেকে যত পারেন নতুন কিছু ধারণা শিখতে থাকুন, তাহলে আপনাকেও সেটা  সফল হতে সাহায্য করবে।

স্টিভ জবস যখন ছাত্র তখন তিনি কম্পিউটার প্রযুক্তির বিভিন্ন ক্লাসে যুক্ত থাকতেন। তিনি ২০ বছর বয়েসের  আগে বিভিন্ন কোম্পানি যেমন এইচপিতেও তিনি কাজ করেছেন শেখার জন্য।

এটা আপানাকে আপনার কাজে সফল হতে সহযোগিতা করবে। আর আপনি বিভিন্ন প্রডাক্টিভ চিন্তাও করতে পারবেন।

অন্যের কাছ থেকে শিখতে লজ্জা পাবেন না

সম্পাদনাঃ

স্টিভ জবস আসলে আসাধারন মনের মানুষ ছিলেন। তিনি সার্টিফিকেট ধারি শিক্ষিত না হলেও অনেক কিছু শিখছেন নিজের জীবন থেকে। যে শিক্ষা একজনের বড় হওয়ার জন্য বেশি দরকার। পাঠ্য পুস্তকের বই একটা পদ্ধতি মাত্র, আপনাকে সেই সাথে নিজের জীবনের সাথে যায় এমন সব বিষয় শিখতে থাকুন নিজের মতো মরে। বিশ্বাস করুন সফল আপনি হবেনই।


যাইহোক ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন। আর বেশি বেশি বই পড়বেন এই কামনায়,

এখানেই শেষ করছি। আপনার মূল্যবান মতবাদ দিতে ভুল করবেন না।

ধন্যবাদ সবাইকে।

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি আইটি সরদার। Web Programmer, iCode বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 6 বছর 9 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 265 টি টিউন ও 1763 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 20 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

আমি ইমরান তপু সরদার (আইটি সরদার),পড়াশুনা শেষ করছি কম্পিউটার প্রযুক্তিতে (২০১৮); পেশা প্রোগ্রামার। লেখালেখি করি নেশা থেকে ফেব্রুয়ারি ২০১৩ থেকে। লেখালেখির প্রতি শৈশব থেকেই কেন জানি অন্যরকম একটা মমতা কাজ করে। আর প্রযুক্তি সেটা তো একাডেমিকভাবেই রক্তে মিশিয়ে দিয়েছে। ফলস্বরুপ এখন আমার ধ্যান, জ্ঞান, নেশা সবকিছু প্রোগ্রামিং এবং লেখালেখি নিয়ে।...


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

দারুন।

স্টিভ জবস্ এক অসাধারণ মানুষ। বিশাল প্রতিকুলতা জয় করা একজন আইকন। This is not enought to explain him.

Level 0

YES…. Boss 🙂

Level 0

Oshadharon
Onek Dhonnobad
Apnar Lekhar Dhoron Onek Unnoto
Apnar Kache “ARNOLD SCHWARZENEGGER” KE NIYE EKTA TIUN KORAR
ONURODH ROILO
DHONNOBAD

যদিও আর্নল্ড শোয়ার্জেনেগার অভিনেতা এবং বডিবিল্ডারের জন্য বিখ্যাত। আমি চেষ্টা করবো তাঁকে উঠিয়ে নিয়ে আসার কোন না কোন ভাবে। ধন্যবাদ। 🙂

Level 0

Prerona mulok Tiun
Opekkhay Roilam
Dhonno Bad.

Ak Truck Like dilam…

আপনার প্রত্যেকটা টিউন ই অনুপ্রেরনা মুলক । থ্যাংকস ।

অসাধারন
অনেক অনেক ধন্যবাদ l

আমি আরেকটু যোগ করে দিই!ওয়াল্টার আইজাকসন(Walter Issacson) এর লেখা বই স্টিভ জবস(Steve Jobs),প্রকাশনি সংস্থার নাম চারদিক,মুল্য-৪৫০ টাকা(বইয়ের ফ্ল্যাপে লেখা)।দাম টা কম বেশী হতে পারে।যারা স্টিভ জবস সম্বন্ধে জানতে আগ্রহী তারা বইটি পরে দেখতে পারেন।আশা করে ভালো লাগবে।

আর সবশেষে আই.টি সরদার কে ধন্যবাদ তার টিউনের জন্য।