ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

টেকটিউনকে যে জন্য আমার ভাল লাগে

টেকটিউনস চালু হওয়ার পর থেকে আমার প্রযুক্তি মনটা ব্লগাতে দারুন একটা প্ল্যাটফরম খুঁজে পেয়েছি। টেকটিউনসকে ভাল লাগার প্রথম কারণ হচ্ছে এর লেআউট আর ডিজাইন বাংলাদেশের আর দশটা সাইটের মত হিজিবিজি, ননস্ট্রাকচার্ড আর আনপ্রোফেশনাল নয় বরং টেকটিউনসের ডিজাইনটা দারুন পরিচ্ছন্ন আর ফ্রেস। যা আমাকে সত্যিই প্রেরণা যোগায়। তার উপর টেকটিউনসে রয়েছে ইউনিকোড ব্লগ লেখার সকল সুবিধা।

ADs by Techtunes ADs

আমাকে প্রায়ই বিভিন্ন জায়গা থেকে কম্পিউটারে একসেস করতে হয়। আর টেকটিউনসের সুবিধা হচ্ছে কমম্পিউটারে কোন প্রকার ইউনিকোড সেটিংস না থাকলেও যে কোন জায়গা থেকে ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারের যেকোন ভার্সন (অবশ্যই ৬ উপরে) ব্যবহার করে টেকটিউনসে বাংলা লেখা গুলো যেমন একদম ঝকঝকে তকতকে দেখতে পারি ঠিক তেমনি অনায়েসে ব্লগ লেখতে ও মন্তব্য করতে পারি। আর আমার মত যারা IE ছাড়া অন্য ব্রাউজারের ফ্যান ( আমি ফায়ারফক্সের ) তাদের জন্য ইউনিকোড সেটিংস সবচেয়ে সহজ, দ্রুত করার জন্য টেকটিউনস যে Icomplex Bangla টুলটি তৈরি করেছে তা সত্যিই প্রসংশার দাবি রাখে। এই টুলটি ইন্সটল করলে ইউনিকোড ভিত্তিক সকল সাইটের লেখা সহ পুরো সিস্টেমের বাংলা একদম ঝকঝকে তকতকে পড়া যায়। দারুন স্মার্ট, গ্রেইট। তবে আমি সবাইকে সোলাইমানলিপির নতুন ভার্সন টি ডাউনলোড করে ফন্ট ফোল্ডারে ইন্সটল করার পরামর্শ দিচ্ছি। কারণ এটি ইন্সটল করার পর টেকটিউনসের লেখা গুলো আরও দারুন লাগে। এর জন্য একুশেকে ধন্যবাদ।

টেকটিউনস মাঝখানে বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর সত্যিই মনটা খুব খারাপ হয়ে গিয়েছিল। বাংলা ভাষায় এরকম একটি প্ল্যাটফরম তৈরি করার জন্য টেকটিউনস টিমকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি প্রযুক্তিবিদ। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 12 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 10 টি টিউন ও 182 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

আমারও ভালো লাগার প্রথম কারন হলো ঝকঝকে তকতকে বাংলা, সুন্দর লে আউট এবং আপনার মত গ্রেট ব্লগারদের পোষ্ট !

ছোটবেলা আমাকে 1986 সালের ফুটবল ওয়ার্ল্ডকাপ দেখার সময় ফুটবলের প্রেমে পড়ে যাই। তখন রিক্সার টাকা বাচিয়ে ভিউকার্ড কিনতাম বিভিন্ন খেলোয়াড়ের। তবে ম্যারাডোনার ভিউকার্ড ছিলো সবচেয়ে বেশী প্রিয়। প্রায় 500 এর মতো কার্ড কিনেছিলাম, স্বপ্নে দেখতাম আমি ওদের মতো খেলবো ওদের সাথে। সে ছবি গুলো আমি এখনো রেখে দিয়েছি। এটা ছিলো আমার জীবনের প্রথম প্রেম। নবম শ্রেনীতে উঠে ভালো লেগেছিলো এক ক্লাসমেটকে, জানি না ওটা প্রেম ছিলো কিনা, তবে ভালো লাগতো। কোনো কারন ছিলো না, তবুও লাগতো, তবে সে হারিয়ে যায় সময়ের কোনো এক লেয়ারে। সম্প্রতি একজনের সাথে দেখা হয়েছিলো পথ চলতে চলতে। জানিনা কি ছিলো তার মাঝে তবু প্রথম বুঝতে পারলাম এটাই হলো প্রেম যার কোনো যুক্তি নেই। কেউ যদি অংক নিয়ে কষতে বসে কিভাবে কোন পরিস্হিতিতে কোন কোন প্যারামিটারের অস্তিত্ব থাকবে সেটাও খুজতে যাওয়া নেহায়েত বোকামী।
তবু মানুষ সারা কাল আকাশ দেখে উদাস হবে, বৃস্টি দেখে ভিজতে চাইবে, খোলা মাঠে হারিয়ে যাবে, ফুল দেখে আপন করে পেতে চাইবে আর এরকম ব্লগে আটকে যাবে ব্লাক হোলের মতো।

আমার কাছে এই ব্লগটাকে একটি সাধারন ব্লাক হোলের মতই মনে হচ্ছে যেখানে আমরা হলাম দূর হতে পরিভ্রমন করা পথ হারিয়ে ফেলা আলোক কণিকা! সিঙ্গুলারিটির প্রভাব কিন্তু ভয়ন্কর!

টেকটিউন………. না না না………… একে বাদ দিয়ে আমি থাকতে পারবো না………আপনি আমাকে যাই বলুন না কেন……. টেকটিউন থেকে আমি অনেক কিছু শিখতে ও জানতে পারছি………. এবং দূর-দূরান্ত থেকে অনেক বন্ধুর সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করতে পারছি…. আমার কাছে এই ওয়েবসাইট খুবই প্রিয়……… শেয়ার করার জন্ন আপনাকে ধন্নবাদ………..