ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

আপনার ফেসবুক টুইটার গুগল প্লাস ও ইউটিউব চ্যানেলের কভার ফটো সহ যে কোন ধরনের Photo Editing, Graphic Design ও Photo Collages সহ সবকিছু করুন All-in-One Free Online Tool – FotoJet এর মাধ্যমে

এটি একটি Sponsored টিউন। এই Sponsored টিউনটির নিবেদন করছে 'FotoJet'
Sponsored টিউন by Techtunes tAds | টেকটিউনস এ বিজ্ঞাপন দিতে ক্লিক করুন এখানে

ADs by Techtunes ADs

এখনকার যুগটাই গ্রাফিক্সের। কি বলেন, সেটা ওয়েব মিডিয়াতে বা প্রিন্ট মিডিয়া বা ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়াতে হোক না কেন গ্রাফিক্সের ব্যবহার এখন সব জায়গাতে। আর গ্রাফিক্সের একটি অন্যতম উপাদান হলো ফটো। একটি আকর্ষনীয় ফটো একটি ডিজাইনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় বহু গুণে। আবার একটি আকর্ষণীয় ফটো নিজেও কিন্তু একটি অসাধারণ গ্রাফিক্স।

সোশ্যাল মিডিয়ার এই যুগে আমাদের ছবিতোলা নিত্যনৈমিত্তিক কাজ। সোশ্যাল নেটওর্য়াকগুলার তুমুল জনপ্রিয়তার কারণে এখন আর আমরা ছবি তুলে আমরা আমাদের ক্যামেরা, মোবাইল আর কম্পিউটারে রেখে দেই না।

আমাদের মুহূর্তগুলোকে ধরে রাখতে আমরা প্রতিনিয়তই ছবি তুলে থাকি। আর এই ছবিগুলো সোশ্যাল নেটওর্য়াকের মাধ্যমে অন্যদের কাছে শেয়ার করতে খুবই পছন্দ করি। তবে এই ছবিগুলা যখন আমরা তুলে থাকি প্রায়ই আমাদের এই ছবিগুলাোকে আরো সৌন্দর্য বর্ধন করার জন্য ইডিট করার প্রয়োজন পড়ে।

ছবি ইডিটিং জন্য রয়েছে অনেক ধরনের সফটওয়্যার। প্রফেশনাল ছবি ইডিটিং জন্য ফটোশপে ব্যবহার করা হয় এটি আমরা সবাই জানি। কিন্তু আমাদের নিত্যনৈমিওিক প্রয়োজনে ছবি ইডিট করার জন্য ফটোশপের খুব একটা প্রয়োজন পরে না। আবার ফটোশপ দিয়ে ইমেজ ইডিটিং এর কাজগুলা শেখার লারনিং কার্ভ ও অনেক বেশি। যা আমাদের অনেকেরই পক্ষে শেখা সম্ভব হয়ে উঠে না। ফটোশপ দিয়ে আমাদের বেসিক এসব ছবি ইডিটিং করার মানে হচ্ছে যেন মশা মারতে কামান দাগানো।

ফটো ইডিটিং এর অনেক সফটওয়্যার রয়েছে বাজারে। এর কোনোটি হয়তো আপনার মোবাইলে ইন্সটল করে নিতে হবে অথবা আপনার ডেস্কটপ, ট্যাবে ইন্সটল করে নিতে হবে। তাছাড়া এসব সফটওয়্যারের শেয়ার ওয়্যার ভার্শন অথবা ট্রায়াল ভার্শন রয়েছে। এছাড়া বেশিরভাগ সফটওয়্যারগুলারই ইন্টারফেস বোধগম্য নয়।

আমাদের প্রতিদিনের ছবি এবং গ্রাফিক্সের কাজগুলো সহজভাবে করে দেয়ার জন্য সর্ম্পূণ ওয়েববেস টুল নিয়ে এল FotoJet। FotoJet এমন একটি ওয়েববেস টুল যেটি আপনার কম্পিউটার, ল্যাপটপ, ট্যাব, মোবাইল কোনোটিতেই ইন্সটল করার প্রয়োজন হবে না।

সর্ম্পূণ ওয়েববেস এই টুল এর মাধ্যমে আপনি খুব দ্রুত চমৎকার এবং প্রফেশনাল মানের গ্রাফিক্স তৈরি করতে পারবেন কোনো ধরনের গ্রাফিক্স তৈরির পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়াই।

কেননা FotoJet -এর অসাধারণ এবং ইউনিক টেমপ্লেটের মাধ্যমে আপনি শুধু ছবি ড্র্যাগ এবং ড্রপ্ট করেই তৈরি করতে পারবেন প্রফেশনাল মানের ফটো।

ADs by Techtunes ADs

শুধু মাএ গ্রাফিক্স ইডিটিং -এই FotoJet সীমাবদ্ধ নয়

শুধু মাএ গ্রাফিক্স ইডিটিং -এই FotoJet সীমাবদ্ধ নয়। ফ্লেয়ার, ব্রুশিয়ার, টিউনার, ফটোকভার সবকিছুতেই করতে পারবেন FotoJet -এর মাধ্যমে।FotoJet আপনার যেকোনো ফটোকে রূপান্তরিত করবে একটি আর্টওয়ার্কে। FotoJet একটি অল ইন ওয়ান ফ্রি অনলাইন টুল। যার মাধ্যমে আপনি ফটো ইডিটিং, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ফটো কলাজ তৈরি করতে পারবেন।FotoJet -এর কলাজ মেকার এর মাধ্যমে আপনি আপনার ফটোগুলো নিয়ে কলাজ তৈরি করতে পারবেন সর্ম্পূণ ইউনিক ওয়েতে।

৬০০ এরও বেশি স্টার্নিং কলাজ টেমপ্লেট

FotoJet -এর রয়েছে ৬০০ এরও বেশি স্টার্নিং কলাজ টেমপ্লেট যার মাধ্যমে আপনি আপনার মূহুর্তগুলোকে শেয়ার করতে পারবেন অসাধারণ ভাবে। FotoJet -এর কলাজ মেকারের টেমপ্লেটগুলোর মধ্যে রয়েছে বার্থডের জন্য Birthday Collage (বার্থডে কলাজ), যেকোনো Anniversary (অ্যানিভার্সারি) অথবা বিবাহ বার্ষিকির জন্য Anniversary Collage (অ্যানিভার্সারি কলাজ), আপনার প্রিয়জনের জন্য তৈরি করতে পারেন Love Collage (লাভ কলাজ) এবং আপনার ছোট সোনামণির জন্য তেরি করতে পারেন Baby Collage (বেবি কলাজ) এবং আপনার র‌্যান্ডম ছবি নিয়ে তৈরি করতে পারেন Photo montej (ফটো মন্টেজ), এছাড়া আপনার যেকোনো ছবির কালেকশন নিয়ে তৈরী করতে পারেন Photo Gride (ফটো গ্রিড)।

FotoJet -এর গ্রাফিক্স ডিজাইনিং টুল দিয়ে আপনি YouTube Banner (ইউটিউব ব্যানার), Facebook Cover (ফেইসবুক কভার), Twitter Header (টুইটার হেডার), Facebook (ফেইসবুক) টিউনের যেকোনো ইমেজ এমনকি Instagram (ইন্সটাগ্রাম) টিউন এবং আপনার ডে টু ডে বিজনেস এবং Personal Invitaton (পারসোনাল ইনভাইটেশন), Feller (ফ্লেয়ার) তৈরি করতে পারবেন অনায়াশে এবং টিউনার তৈরি করতে পারবেন FotoJet-এর গ্রাফিক্স ডিজাইনার টুলের মাধ্যমে। প্রফেশনাল মানের গ্রাফিক্স তৈরি এবং ডিজাইন করা এখন আর কোনো ইম্পসিবল বিষয় নয়।

FotoJet -এর গ্রাফিক্স ডিজাইনার টুল

FotoJet -এর গ্রাফিক্স ডিজাইনার টুলের মাধ্যমে আপনি ফটো ডিজাইন, অ্যাডভার্টাইজিং ডিজাইন, মার্কেটিং ডিজাইন এবং এরকম অসংখ্য ডিজাইন প্রফেশনাল মানের তৈরি করতে পারবেন FotoJet -এর গ্রাফিক্স ডিজাইনের মাধ্যমে অনায়াশে। FotoJet -এর আরেকটি অসাধারণ টুল হচ্ছে এর ফটো ইডিটর।

আপনার যেকোনো Photo Enhance, Black and White Effect এবং আরও অসংখ্য Effect দিয়ে আপনার ছবিকে আপনার মনের মতো করে ইডিট করতে পারবেন এবং আপনার ছবিতে যেকোনো ধরনের মেসেজ দেওয়ার জন্য আপনি তাতে টেক্সট ছবিকে রোটেট করতে পারবেন, ক্রপ করতে পারবেন অথবা রিসাইজ করতে পারবেন ফটো ইডিটরের মাধ্যমে।

আপনি যেকোনো ফটোর কালার, সাইজ করতে পারবেন এবং ফটো ইডিটরে রয়েছে অসংখ্য লাইভিং যা দিয়ে আপনি আপনার ফটোর উপরে এড করতে পারবেন। সেই সাথে স্লিপারড ইমেজেও এড করতে পারবেন।এ সবকিছুই করা যাবে শুধুমাএ অল্প কিছু ক্লিকের বিনিময়ে।

FotoJet -এর ফটো ইডিটর একটি পাওয়ারফুল ইডিটর

FotoJet -এর ফটো ইডিটর একটি পাওয়ারফুল ফটো ইডিটর যার মাধ্যমে আপনি যেকোনো ছবিতে টেক্সট এড করতে পারবেন, ছবি রিসাইজ করতে পারবেন, ছবি ক্রপ করতে পারবেন, ছবিকে রেডিয়াল এবং ট্রিলড শিফট করতে পারবেন, ছবি ইনহেন্স করতে পারবেন, ছবিকে রোটেট এবং স্রিপ করতে পারবেন।

FotoJet -এর ফটোইডিটরের অসংখ্য ইফেক্ট এবং ফিল্টার লাইব্রেরী থেকে আপনার মনের মাধুরী মিশিয়ে ফিল্টার এবং ইফেক্ট অ্যাপ্লাই করতে পারবেন এবং সেই সাথে যেকোনো ফটোতে অসাধারণ সব সিপ্লার্ড এড করতে পারবেন। অর্থাৎ আপনার ছবিকে মনের মতো করে রাঙিয়ে তুলতে FotoJet -এর ফটোইডিটরের জুড়ি নেই।

গ্রাফিক্স ডিজাইনের পূর্ব কোন অভিজ্ঞতার একদমই প্রয়োজন পরবেনা

FotoJet -এর দারুন বৈশিষ্ঠ্য হচ্ছে FotoJet দিয়ে ছবি এডিট করতে আপনাকে গ্রাফিক্স ডিজাইনের পূর্ব কোন অভিজ্ঞতার একদোমি প্রয়োজন পরবেনা। ফোটজেটের অসাধারন টেমপ্লেটিং সিস্টেমের মাধ্যমে আপনি শুধু আপনার ছবি ড্রেগ এন্ড ড্রপ করে দিলেই তৈরি হয়ে যাবে প্রফেশনাল মানের Stunning গ্রাফিক্স। যেটি আপনি আপনার ফেসবুক প্রোফাইল পেজ অথবা যে কোন ধরনের আপনার গ্রাফিক্স প্রয়োজনে ব্যবহার করতে পারবেন অনায়েশে।

ADs by Techtunes ADs

FotoJet শুধু মাত্র আপনাকে গ্রাফিক্স তৈরিতে সীমাবদ্ধ রাখবে না।আপনার গ্রাফিক্সটি তৈরির পর আপনি তা ডাউনলোড করে আপনার পিসিতে অথবা ট্যাবে অথবা মোবাইলে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন অনায়েশে এবং ফটো ডাউনলোড করার সময় আপনি পেয়ে যাবেন Small, Medium ও Large অপশন আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী।যার মাধ্যমে আপনি তা যদি প্রিন্টআউট অথবা অন্য কিছু করতে যান সে ক্ষেত্রে Large ফরমেটও খুঁজে পাবেন FotoJet -এর মাধ্যমে। এছাড়া আপনার তৈরিক্রিত গ্রাফিক্সটি আপনি একটি ক্লিক এর মাধ্যমে আপনার সোসিয়াল নেটওয়ার্ককে শেয়ার করতে পারবেন FotoJet -এ লগইন করেই।

FotoJet -এর ব্যবহার

FotoJet ব্যবহারের জন্য আপনি FotoJet -এর হোম পেইজে এসে তিনটি ট্যাব পেয়ে যাবেন Design(ডিজাইন), Edit(এডিট) এবং Collage(কলেজ) নামে।

FotoJet -এর এই তিনটি টুল ব্যবহার করে আপনি আপনার গ্রাফিক্স প্রয়োজন মেটাতে পারবেন। FotoJet -এর এই টুলগুলো আপনি কোন ধরনের লগইন এবং রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই ব্যবহার করতে পারবেন।তবে FotoJet -এর এডভান্স যে ফিচার গুলো আছে সে গুলো যদি আপনি ব্যবহার করতে চান তা হলে অবশ্যই আপনাকে একটি ইউজার আইডি খুলে লগইন করতে হবে এবং আপনি এডভান্স ফিচার গুলো ব্যবহার করলে FotoJet -এর পরিপূর্ণ ব্যবহার করতে পারবেন।আর তাই সবচেয়ে ভালো আপনি FotoJet -এ আইডি খুলে লগইন করে নিলে।

FotoJet ব্যবহারের জন্য প্রথমে আপনাকে FotoJet -এর ওয়েবসাইটে এসে সাইনআপ করতে হবে। FotoJet -এর হোমপেইজে এসে সাইনআপ বাটনে ক্লিক করলে আপনি পেয়ে যাবেন FotoJet -এ সাইনআপ এর জন্য অপশন।

আপনি খুব সহজেই আপনার ফেসবুক কানেক্ট এর মাধ্যমে FotoJet  -এ সাইনঅাপ করে ফেলতে পারেন। এছাড়া আপনি যদি‌ ই-মেইলের মাধ্যমে সাইন আপ করতে চান তাহলে শুধু মাত্র আপনার ইমেইল এবং পার্সওয়াড ক্রিয়েট এর মাধ্যমে আপনি FotoJet -এর ওয়েবঅ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন। FotoJet -এর সাইনআপ প্রক্রিয়াটি করা হয়েছে খুবই সিম্পল ভাবে যার ফলে আপনি সাইনআপ করার সাথে সাথে ওয়েবঅ্যাপ ইউজ করতে পারবেন অথ্যাৎ ফটোএডিটর ইউজ করতে পারবেন অাপনার ইমেইলে ভেরিফিকেশন ক্লিক করা ছাড়াই। তবে সাইনআপ করার সাথে সাথে একটি ভেরিফিকেশন ইমেইল আপনার ইমেইলে চলে যাবে, যেটি আপনাকে ক্লিক করে অবশ্যই ভেরিফাই করতে হবে।

FotoJet -এর টুলসমূহ:

তিনটি অসাধারন টুল নিয়ে Fotojet গঠিত,

FotoJet কলেজ

Collage(কলেজ) যার মাধ্যমে আপনি অসাধারন এবং Stunning Collage টেমপ্লেট তৈরি করতে পারবেন। পাওয়ারফুল সব Collage এবং Collage বেকারের মধ্যে রয়েছে ৬০০ এর বেশি Stunning Collage টেমপ্লেট রয়েছে।

FotoJet গ্রাফিক্স ডিজাইনার

দ্বিতীয় টুলটি হচ্ছে FotoJet  Graphics Designer (গ্রাফিক্স ডিজাইনার)। যার মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন ধরনের Photo Design (ফটো ডিজাইন), Advertising Design (এডভাটাইজিং ডিজাইন), Marketing Design(মার্কেটিং ডিজাইন) সহ অসাধারন সব গ্রাফিক্স ডিজাইন করতে পারবেন। সে্ই সাথে আপনার বিজনেস প্রয়োজনে Flyer(ফ্লেয়ার), Invitation (ইনভাইটেশোন), Poster (টিউনার) তৈরি করতে পারবেন গ্রাফিক্স ডিজাইনার টুল এর মাধ্যমে। এছাড়া সোসিয়াল ব্যানারের মাধ্যমে YouTube Banner(ইউটিউব ব্যানার), Facebook Cover (ফেসবুক কোভার),Twitter Header(টুইটার হেডার), Facebook Post (ফেসবুক টিউন), Instagam Post (ইন্সাটাগ্যাম টিউন) এর জন্য ইমেজ এ সবই তৈরি করতে পারবেন গ্রাফিক্স ডিজাইার টুল এর মাধ্যমে এবং ফটোজট এর মূল বৈশিষ্টই হচ্ছে, এ সব গ্রাফিক্স ডিজাইন তৈরি করতে আপনি শুধু মাত্র ড্রেগ এন্ড ড্রপ এর মাধ্যমে প্রফেশনাল মানের Stunning গ্রাফিক্স ডিজাইন তৈরি করতে পারবেন শুধু মাত্র মাউস এর কয়েকটি ক্লিক এ।

ADs by Techtunes ADs

FotoJet -এর তৃতীয় টুলটি হচ্ছে ফটো এডিটর

FotoJet -এর তৃতীয় টুলটি হচ্ছে ফটো এডিটর। যার মাধ্যমে আপনি আপনার ফটোতে Text Add (টেক্স অ্যাড) করতে, যে কোন ছবি Resize (রিসাইজ করতে), Crop (ক্রপ) করতে, সেটিকে টিল করতে, শিপ টিল করত, Photo Avenches (ফট‌ো এভেন্স) করতে, Photo Eset (ফটোতে ইসেট) করতে‌ এবং Filter Apply (ফিল্টার অ্যাপলাই) করতে, সেই সাথে Clipper Photo (ক্লিপার ফটো) তৈরি করতে, Photo Rote (ফটো রোট) করতে এবং Click (ক্লিক) করতে পারবেন শুধু মাত্র কিবোর্ড এবং মাউস এর মাধ্যমে।

প্রফেশনাল মানের গ্রাফিক্স তৈরি এখন খুবই সোজা

প্রফেশনাল মানের গ্রাফিক্স তৈরি এখন খুবই সোজা। FotoJet  -এ লগইন করবার পর আপনি তিনটি ট্যাব পাবেন টুল গুলো ইউজ করার জন্য Collage, Design, Edit। Collage রয়েছে দুই ধরনের Collage তৈরির অপশন। একটি হচ্ছে Classic Collage, যার মাধ্যমে আপনি Photo Grid (ফটোগ্রিক) তৈরি করতে পারবেন এবং অন্যটি হচ্ছে Creative Collage। Creative Collage এ আপনি Modern (মর্ডান), Art (আর্ট), 3D (৩ডি), Creative (ক্রিয়েটিভ) এবং Poster Collage (টিউনার কলাজ) তৈরি করতে পারবেন। যার মাধ্যমে আপনি গতানুগতিক ফটোগ্রিক ছাড়াও Fotojet -এর টেমপ্লেটের মাধ্যমে শুধু মাত্র ড্রেগ এন্ড ড্রপ করে ইউনিক সব Collage তৈরি করতে পারবেন।

এছাড়া কলাজের মধ্যে রয়েছে Comic Collage (কমিক কলাজ), যার মাধ্যমে আপনি বা আপনার বন্ধুর ফেস এড করে মজার সব কমিক তৈরি করতে পারবেন এ Comic Collage (কমিক কলাজের) মাধ্যমে।

আরও রয়েছে Fun Photo (ফান ফটো), Fun Photo (ফান ফটো) কলাজের মাধ্যমে আপনি পেয়ে যাবেন বেশ কিছু কৌতুক রস সর্ম্পূন ফটো, যার মাধ্যমে আপনি এবং আপনার বন্ধুর ছবি এড করে দিলেই পেয়ে যাবেন ইর্স্টানিং ফানফটো।

Magazin Collage (ম্যাগাজিন কলাজ), Magazin Collage (ম্যাগাজিন কলাজ) আপনি আপনার নিজস্ব ছবি দিয়ে তৈরি করতে পারবেন ম্যাগাজিন স্টাইল কলাজ।

এছাড়া, Frame Collage (ফ্রেম কলাজ) এর মাধ্যমে আপনি ছবি ড্রেগ এন্ড ড্রপ করে দিলে তৈরি হয়ে যাবে অসাধারন ফ্রেম কলাজ।

Collage Option (কলাজ অপশন) এ আপনি পেয়ে যাবেন ফটোকার্ড, যার মাধ্যমে আপনি তৈরি করতে পারবেন আপনার প্রিয় জনের জন্মদিনে তৈরি করতে পারবেন Birthday Collage PhotoCard (বার্ডে কলাজ), এনিভারসেরি জন্য তৈরি করতে পারবেন Anniversary PhotoCard (এনিভারসেরি ফটোকার্ড), কাউকে থ্যাংকিউ দেবার জন্য করতে পারেন Thank You PhotoCard (থ্যাংকিউ ফটোকার্ড), আপনার ছোট সোনামনির জন্য করতে পারেন Baby Photocard (বেবী ফটোকার্ড), বিবাহ বার্ষিকি বা উইডিং এনিভারসেরির জন্য করতে পারবেন Weeding Photocard (উইডিং ফটোকার্ড), সেকোন গ্রাজুয়েশন এর জন্য তৈরি করতে পারেন Graduation Photocard (গ্রাজুয়েশন ফটোকার্ড)।

ADs by Techtunes ADs

FotoJet -এর ডিজানই ট্যাবে ক্লিক করলে ডিজাইন করার জন্য বেশ কিছু ট্যাম্পলেট FotoJet -এ ডিজান ট্যাবে রয়েছে ক্লাসিক এবং সোস্যাল মিডিয়ার হেডার তৈরী করার অংশ। ক্লাসিকের মাধ্যমে আপনি টিউনার প্লেয়ার ইন্ভাইটেশন এবং যেকোনো কার্ড তৈরী করতে পারবেন এবং সোস্যাল মিডিয়া হেডারের মাধ্যমে আপনি সোস্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন হেডার এবং ব্যানার তৈরী করতে পারবেন। যেমন ইউটিউব আর ফেসবুক কভার, গুগল প্লাস কভার, টুউটার হেডার ট্রার্মলার ব্যানার এবং ইমেল হেডার তৈরী করতে পারবেন। সবচেয়ে মজার বিষয় হচ্ছে, এ ইমেল হেডার গুলো তৈরী করা এবং প্রোফেশনাল মানের গ্রাফিক্স বা ইমেল হেডার তৈরী করা খুবই সহজ।শুধুমাত্র আপনাকে এ টুলের বাম পাশ থেকে পছন্দের ট্যাম্পলেট নির্বাচন করতে হবে এবং আপনার ইমেজটি ড্রেগ এন্ড ড্রপ দিয়ে ডাবল ক্লিক করে টেক্সট গুলো নির্বাচন করে এডিট করে দিলেই আপনি পেয়ে যাবেন প্রোফেশনাল মানের হাই কোয়ালিটি ব্যানার এবং টিউনার।

FotoJet -এর ফটো এডিটিং টুলটি একটি অসাধারন টুল

FotoJet অথবা ফেসবুক থেকে যেকোনো ছবি নিয়ে আসতে পারবেন এডিটরে এবং এডিটরে ইন্সার্ট করার পরে আপনি আপনার ছবিকে ক্রপ করতে, রিসাইজ করতে, রোটেট করতে, এক্সপোর্ট করতে অথবা কালার কারেকশন করতে পারবেন এ এডিটরের মাধ্যমে। আপনি যদি লগইন করা অবস্থায় থাকেন তাহলে আপনি এডভান্স ফিচার্ড গুলো ইউজ করতে পারবেন। যেটি হচ্ছে আপনি Sharping করতে পারবেন, Vintage Effect দিতে পারবেন, Photo Noise ঠিক করতে পারবেন, Photo Focus Effect দিতে পারবেন, Colour Splash Effect অ্যাপলাই করতে পারবেন এবং যেকোনো সিলেক্টিভ ইফেক্ট ছবিতে যোগ করতে পারবেন।

FotoJet -এর কলাজ ডিজাইন এবং এডিট প্রতিটি টুলেই আপনি পেয়ে যাবেন ইফেক্ট, টেক্সট এবং ক্লিপ আর্ট অ্যাড করার অপশন। যার মাধ্যমে আপনি ছবির উপরে ইফেক্ট অ্যাপলাই করতে পারবেন এবং ছবির উপরে ওভার লে টেক্সট অ্যাপলাই করতে পারবেন, অসাধারন টেক্সট দিতে পারবেন, ক্লিপ আর্ট দিয়ে আপনি আপনার ছবিতে মনের মত করে বিভিন্ন ধরনের ক্লিপ আর্ট অ্যাড করতে পারবেন, যেমন বাবল অথবা ব্যানার বিভিন্ন ধরনের ট্যাগিং বসিয়ে ছবিকে করতে পারবেন আরো অসাধারন। সেই সাথে ছবির পেছনের ব্যাক গ্রাউন্ড চেন্জ করার অপশন তো থাকছেই এবং FotoJet -এর রয়েছে অসংখ্য ব্যাকগ্রাউন্ড লাইব্রেরী। যার মাধ্যমে আপনি আপনার পছন্দ মতো ব্যাকগ্রাউন্ড চুজ করে নিয়ে সে ব্যাকগ্রাউন্ড সাথে কাজ করতে পারবেন অনায়েশে।

FotoJet -এ আর একটি অপশন হচ্ছে, যেখানে আপনি এর ডিজাইনার টুলে ক্লিপ আর্ট অপশনে গেলে পেয়ে যাবেন অথবা ওয়েব থেকে সার্চ করে যেকোনো ইমেজ ব্যবহারের সুযোগ পাবেন। সেজন্য আপনি ক্লিপ আর্টে এসে প্রিসেট এবং ইন্টারনেট নামের একটি অপশন খুঁজে পাবেন। ইন্টারনেটে ক্লিক করে যে সার্চ বক্স পাবেন সেখানে আপনি আপনার পছন্দ মত ক্লিপ আর্ট সার্চ করে বিভিন্ন ধরনের ইন্টারনেট লাইব্রেরী থেকে গ্রাফিক্স নামিয়ে আপনার গ্রাফিক্সকে এনহেম্স করতে পারবেন। যেটি অন্য যেকোনো গ্রাফিক্স সফটওয়্যারের চেয়ে অনেক শক্তিশালী অপশন FotoJet -এর।

FotoJet - এর ফটো এডিটরে রয়েছে

FotoJet -এর ফটো এডিটরে রয়েছে গ্রাফিক্সের উপরে Overly দিয়ে Graphic Tearing করার অনন্য অপশন। আপনি FotoJet -এর ফটো এডিটরে গিয়ে ওভারলেতে গিয়ে পেয়ে যাবেন দারুন সব ওভারলে তৈরি করার অপশন যা আপনার ইমেজকে এনে দিবে প্রফেশনাল এবং স্টানিং লুক।

আপনি FotoJet -এর ফটো এডিটরে গেলে পেয়ে যাবেন Lighting, Cute, Montage, Space, Balash, Paper, Fabric, Paint, metal - এ ধরনের ইফেক্ট গুলো আপনি ওভারলে হিসেবে ছবির উপরে দিলে ছবির টেক্সার এবং ধারাই পাল্টে যাবে সম্পূর্ণ অন্যরকম যেটি আপনি প্রফেশনাল যেকোনো গ্রাফিক্স সফটওয়্যারের দিয়ে করতে অনেক বেগ পেতে হতো, সেটি আপনি FotoJet দিয়ে করতে পারবেন শুধুমাত্র অল্প কিছু ক্লিকে।

ADs by Techtunes ADs


এছাড়া FotoJet  -এ ফটো এডিটরে রয়েছে অসাধারন সব ফ্রেম তৈরি করার অপশন যার মাধ্যমে আপনি আপনার ফটোতে স্টানিং এবং অসাধারন সব ফ্রেম দিয়ে ফ্রেমিং করতে পারবেন। আপনি ফটো এডিটরে ফ্রেমিং অপশনে গেলে Border Frame, Shadow Frame, Classic Frame, Polaroid frame, Adage Frame, Modern Frame, Film Frame, Grand Frame এড করতে পারবেন।

আপনি আপনার ছবিতে একটি ফ্রেম এড করেই দেখুন আপনার ছবির সম্পূর্ণ লুকিন্স ই পাল্টে যাবে এই ফ্রেম এড করার মাধ্যমে। ফটোজেটের প্রতিটি গ্রাফিক্স টুলে আপনাকে দিচ্ছে টেক্সট এড করার এক অনন্য উপায় এবং আপনি মনোটোনাস সব টেক্সট ফাইল থেকে মুক্তি পাবেন চিরতরে।

ফটোজেটের এই টেক্সট টুলের মাধ্যমে আপনার ছবিতে অথবা যেকোনো গ্রাফিক্সে টেক্সট অ্যাড করতে পারবেন সম্পূর্ণ প্রফেশনাল কোয়ালিটির এবং একঘেয়ামি টেক্সট থেকে সম্পূর্ণ আলাদা।এছাড়া আপনি যেকোনো টেক্সট অ্যাড করে তাতে আপনার মনের মতো ফন্ট চেন্জ করার অসংখ্য অপশন পেয়ে যাবেন এই টেক্সট অপশনের মাধ্যমে। এছাড়া আপনি চাইলে আপনার কম্পিউটারে অবস্থান করা যকোনো ফন্টও আপনি নির্বাচন করে দিতে পারেন ফটোজেটের এই টেক্সট টুলের মাধ্যমে।

বিভিন্ন লেয়ার নিয়ে কাজ করতে পারবেন

ফটোজেটের আরেকটি বৈশিষ্ট্য হচ্ছে আপনি বিভিন্ন লেয়ার নিয়ে কাজ করতে পারবেন। আপনি যদি অ্যাডবান্সড লেবেলের ইউজার হন বিভিন্ন লেয়ারের মাধ্যমে আপনি আপনার গ্রাফিক্সকে পরিপূর্ণভাবে ইফেক্ট দিতে পারবেন এবং অবজেক্ট গুলো মেইনটেইন করতে পারবেন।

এছাড়া এর অপাসিটি অপশন আউটলাইন এবং গ্রো অপশনের মাধ্যমে আপনি আপনার টেক্সটকে আরো প্রফেশনাল লুক দিতে পারবেন শুধুমাত্র অল্প কিছু ক্লিকের ফলেই। সর্বোপরি ফটোজেট এমন একটি টুল যেটি হচ্ছে একটি অল ইন ওয়ান ফটো এডিটিং প্ল্যাটফর্ম যেখানে আপনার প্রতিদিনের গ্রাফিক্স এডিটিনের কাজগুলো খুব সহজেই করে নিতে পারবেন এবং সেজন্য আপনাকে কোনো হেভিওয়েটেড সফটওয়্যার ডউনলোড অথবা ইন্সটল করার কোনো প্রয়োজন পরবেনা। শুধুমাত্র আপনার কম্পিউটারের ব্রাউজার এবং ইন্টারনেট কানেকশন থাকলেই ফটোজেটের মাধ্যমে আপনি আপনার গ্রাফিক্স এডিটিং এ প্রফেশনাল গ্রাফিক্স লুক দিতে পারবেন এবং আপনার প্রতিদিনের গ্রাফিক্স প্রয়োজন মিটাতে পারবেন।

ফটোজেটের আরেকটি বৈশিষ্ট্য হচ্ছে আপনি যখন কোনো ইমেজ আপনার কম্পিউটার থেকে আপলোড করেন তখন সেটি ব্রাউজারে সাথে সাথে সো করে এবং কোনো ব্যান্ডউইড খরচ ছাড়াই আপনার শুধুমাত্র ব্রাউজারে লোড হয়। এর ফলে আপনার ইন্টারনেট ব্যান্ডউইড খরচ হয়না।

শুধুমাত্র আপনি গ্রাফিক্সটি নিয়ে এডিট করার পরে যখন সেটি সেভ করবেন তখনই শুধুমাত্র ব্যান্ডউইড এর প্রোয়োজন হয়।এটি দারুণ একটি টেকনোলোজি যার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই এবং দ্রুত আপনার গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং এডিটিংয়ের কাজ করতে পারবেন। ফটোজেট আপনার গ্রাফিক্স লাইফকে এনে দিয়েছে সম্পূর্ণ ভিন্ন এক মাত্রা। আপনার গ্রাফিক্স এডিটিং এবং প্রফেশনাল গ্রাফিক্স এডিটিং এখন আর কোনো প্রফেশনাল জব নয়। বরং আপনি শুধুমাত্র কয়েক ক্লিকের মাধ্যমে প্রফেশনাল সব গ্রাফিক্স তৈরি করতে পারবেন অল্প সময়ে।

ADs by Techtunes ADs

এখনই শুরু করুন FotoJet  ব্যবহার

এখনই শুরু করুন ফটোজেট ব্যবহার।আপনার গ্রাফিক্স লাইফকে করে তুলুন আরো অতুলনীয়। আপনি ফটোজেট ব্যবহার করা শুরু করেছেন, কেমন আপনার অভিজ্ঞতা, ফটোজেটের আর কি ইমপ্রুভমেন্ট চাচ্ছেন বলে মনে করছেন, ফটোজেটে কোন বিষয়টি আপনার ভালো লেগেছে, কোন বিষয়টি আপনি মনে করেন আরো ফিচার অ্যাড করা উচিত।

অবশ্যই টিউমেন্টের মাধ্যমে টিউমেন্ট করুন এবং জানান। নিয়মিত আপডেট থাকুন ফটোজেটের নতুন নতুন ফিচার সম্বন্ধে। আর তাই নতুন ফিচার সম্বন্ধে জানতে লাইক করুন ফটোজেটের ফেইসবুক পেইজে যার মাধ্যমে আপনি নতুন নতুন ফিচারগুলো ফেইসবুকে আপডেট পেয়ে যাবেন সাথে সাথে। ফটোজেটের গ্রাফিক্স প্রয়োজনকে করে তুলেছে আরো সহজ এবং সহজবোধ্য। হ্যাপি গ্রাফিক্সিং!

এটি একটি Sponsored টিউন। এই Sponsored টিউনটির নিবেদন করছে 'FotoJet'
Sponsored টিউন by Techtunes tAds | টেকটিউনস এ বিজ্ঞাপন দিতে ক্লিক করুন এখানে

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি Techtunes tAds। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 9 বছর 1 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 134 টি টিউন ও 2 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 2 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

খুব সুন্দর করে টিউন করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ

অসাধারণ

খুব ভালো উদ্যোগ… all the best…

ধন্যবাদ অসাধারণ টিউনের জন্য…
আমি একটি এন্ড্রয়ড এপ তৈরি করেছি, বিক্রয়[ডট]কম এর অল্টারনেটিভ হিসেবে। ইচ্ছে হলে ট্রাই করে দেখতে পারেন।
এপটির ফীচার সমূহঃ
* কোনো রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই এড পোস্ট করতে পারবেন
* দিনে আনলিমিটেড এড পোস্ট করতে পারবেন
* লোকেশন বেইসড এড সার্চ করতে পারবেন
* কোন হিডেন চার্জ নেই, একদম ফ্রী
* ইনশা আল্লাহ, আমি যতদিন বেঁচে থাকব, অতদিন সার্ভিসটা ফ্রী রাখব
* ইউজার ফ্রেন্ডলি ইন্টারফেস
* ছোট APK সাইজ ( মাত্র ৩ এমবি)
.
গুগল প্লে ডাউনলোড লিঙ্কঃ https://play.google.com/store/apps/details?id=p32929.buysellbd
APK ডাউনলোড লিঙ্কঃ http://tiny.cc/buy_sell_bd
.
এপটি ডাউনলোড করে দয়াকরে একটি হলেও এড পোস্ট করুন। অনেক খুশি হব। আগাম ধন্যবাদ…