ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

1B, 1KB, 1GB, 1TB ঠিক কতটা বড় – Storage Units Explained

টিউন বিভাগ প্রযুক্তি কথন
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

ADs by Techtunes ADs

আসসালমু আলাইকুম

সবাই কেমন আছেন? আশা করি ভাল। অনেক দিন পর টেকটিউনসে টিউন করতে আশা।

এখন টেকটিউনসে তেমন Dynamic টিউন পাই না তাই বেশি আশা হয় না।

যাই হোক অনেক কথা বললাম। অাজকে আমি একটা সাধারন বিষয় নিয়ে আলোচনা করব। বিষয় টা খুবই স্বাভাবিক কিন্তু আমার মতে বিষয়টা সম্পর্কে সবার জানা দরকার।

আমবা সবাই b, kb, MB, GB, TB ইত্যাদি এর সাথে পরিচিত। এগুলো আমাদের IT World এ মেমরি পরিমাপের একক।

তো আলোচনা শুরু করা যাক।

কিভাবে আমরা হাতে 1 গিগাবাইট বা 1 মেগাবাইট অনুভব করতে পারি?

এটা কত বই এর সমতুল্য শব্দ দ্বারা সম্পন্ন করা যেতে পারে? আমি এই টিউনে আমাদের কে 1 b, B, KB, MB, GB, TB ইত্যাদি বাস্তব জীবনে গননা করলে কীরকম দেখাবে সেটা দেখাবো।

বিশ্বের বিভিন্ন জিনিস বিভিন্ন প্যরামিটার ব্যবহার করে পরিমাপ করা যেতে পারে। যেমন: দুধ 1 লিটার বা চিনি 1 কেজি।  মানুষের আবেগ বলে এক ধরনের জিনিস আছে, কিন্তু এই টিউনে আমি আপনার কম্পিউটারে সঞ্চিত তথ্য সম্পর্কে কথা বলছি।

আপনি শুধু জানেন, কত মেগাবাইটে 1 গিগাবাইট। কিন্তু আপনি আসলে আপনার হাতে ধরে রাখতে পারছেন না। কাজ করার আগে আমরা কম্পিউটার মেমরি কে আমরা শারীরিক অনুভূতি দিয়ে বুঝি।

ADs by Techtunes ADs

এর সঙ্গে একটি সহজ কিন্তু সুদীর্ঘ হিসাব জড়িত।

প্রাথমিক থেকেই শুরু করা যাক:

বিট

এটি কম্পিউটারের মেমরি ক্ষুদ্রতম পরিমাপ। একটি বিট 0 বা 1 হতে পারে।

8(আট) টি বিটে ১ বাইট (bytes) যা স্টোরেজ আকারে হিসাবকৃত একটি মৌলিক মেমরি ইউনিট হিসাবে বিবেচনা করা হয়।

বর্ণমালার একটি অক্ষর 1 বাইট ধারণা করে। Techtunes, 9 বর্ণমালা অক্ষর নিয়ে গঠিত হয়, তাই একটি কম্পিউটারে টাইপ করলে আকারে 9 বাইট হবে। আপনি একটি কাগজে এটা লিখে আপনার হাতে এটা মনে করতে পারেন।

কিলোবাইট

1, 024 বাইটে(bytes)  1 কিলোবাইট(KB)।

5 টি অক্ষর ধারণকারী এক এক টি শব্দ পরাপর বসায়ে একটি 100 শব্দে অনুচ্ছেদ তৈরি করলে  1 কিলোবাইট প্রায় দুই অনুচ্ছেদ লেখা যাবে।

মেগাবাইট

1, 048, 576 বাইট(bytes) বা 1024 কিলোবাইটে(KB) বা 1 মেগাবাইট(MB)।

সুতরাং, আমাদের অনুচ্ছেদে অক্ষর, শব্দ পরিমাপ অব্যাহত রাখলে, 1 মেগাবাইট বা 1, 048, 576 বাইট এ প্রায় 100 শব্দের 2, 097 অনুচ্ছেদ

তাহলে 419 পৃষ্ঠার বই হবে যার প্রতিটি পৃষ্ঠায় 5 টি অনুচ্ছেদ অর্থাৎ 2500 অক্ষর / পৃষ্ঠার একটি বই।

ADs by Techtunes ADs

গিগাবাইট

1, 073, 741, 824 বাইট(bytes) বা 1024 মেগাবাইটে(MB) 1 গিগাবাইট(GB) পর্যন্ত. সুতরাং, এটা হবে:

  • 429, 497 পৃষ্ঠা শুধুমাত্র টেক্সট ()আগের হিসাবে)।
  • 500 পৃষ্ঠার 859 টি বই।
  • 1.5 মেগাবাইট এর 682 টি ইমেজ(images)।
  • 5 মেগাবাইট এর 204 টি গান।

টেরাবাইট

1, 099, 511, 627, 776 বাইট(bytes) বা 1, 024 গিগাবাইটে(GB) 1 টেরাবাইট(TB)। এইটা:

  • 100 শব্দের 5 টি অনুচ্ছেদের 439, 804, 651 পৃষ্ঠা।
  • 500 পৃষ্ঠার 879, 609 টি বই।
  • 16 গিগাবাইটের 64 টি পেনড্রাইভ।
  • 1.5 মেগাবাইট এর 699, 050 টি ইমেজ (images).
  • 5 মেগাবাইট এর 209, 715 টি গান।

টেরাবাইট পর আরও স্টোরেজ মাপ হয়:

  • Petabyte (PB): 1, 125, 899, 906, 842, 624 বাইট
  • Exabytes (EB): 1, 152, 921, 504, 606, 846, 976 বাইট
  • Zettabyte (ZB): 1, 180, 591, 620, 717, 411, 303, 424 বাইট
  • Yottabyte (YB): 1, 208, 925, 819, 614, 629, 174, 706, বাইট

আপনি আপনার ক্যালকুলেটর ব্যবহার আরও গণনার করতে পারেন.

ডেটা সীমা টেরাবাইট বাইরে আমাদের কাছে এখনও আসেনি। তবে গুগলের মতো কর্পোরেট প্রতিষ্ঠান 8 বা 10 এর গুণিতক দ্বারা Exabyte এর সীমা অতিক্রম করতে পারে কারণ এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় ডাটা সেন্টার এর ঘর.

Commons Confusions

KB - KiB Confusion

মানুষের মধ্যে একটি সাধারণ ভুল ধারণা তারা মনে করে যে 1 মেগাবাইট (MB) = 1, 024 কিলোবাইট (KB) হয়, কিন্তু তা না। 1 মেগাবাইট = 1, 000 কিলোবাইট.

Binary রূপান্তর,

1, 024 বাইট = 1 KiB (KibiByte), 1024 KiB = 1 MiB (MebiByte), এভাবে চলতে থাকে।

Decimal রূপান্তর,

1, 000 বাইট = 1 কিলোবাইট (KB), 1000 কিলোবাইট = 1 মেগাবাইট (MB), এভাবে চলতে থকে।

এই টিউনে আমি  স্বাভাবিকভাবে অর্থাৎ ধারণা করার জন্য 1 কিলোবাইট = 1024 বাইট আনত হয়েছে। প্রকৃত রূপান্তর স্টিকিং আরো বিভ্রান্তি হতে হবে।

ADs by Techtunes ADs

মেমরি কোম্পানি গুলো Decimal রূপান্তর ব্যবহার করে অর্থাৎ 1 কিলোবাইট = 1000 বাইট ব্যবহার করে। সুতরাং, উপরে গণনার ভিন্ন হবে যদি আমরা বিবেচনাটি মূল কিলোবাইট নিতাম। উদাহরণস্বরূপ, 4.7GB = 4700 মেগাবাইটের একটি DVD.

আমাদের কম্পিউটারে অপারেটিং সিস্টেম KiB এবং MiB মধ্যে ফাইলের আকার গননা করে কিন্তু কিলোবাইট এটি প্রদর্শন। এই বিভ্রান্তির সৃষ্টি করে. যে কারণে আপনার পেন ড্রাইভ Windows OS এর  বৈশিষ্ট্যে আকার ছোট মনে হয়। এটা 1, 048, 576 বাইট = 1 মেগাবাইট যা আসলে 1 MiB দেখায়। কিন্তু Apple 1, 000, 000 বাইট = 1MB ধরে OS X 10.6 release এর পর থেকে।

KB - Kb Confusion

আরেকটি Confusion হল B এবং b এর মধ্যে। আমরা KB লিখলে তা হবে Kilobyte এবং Kb, জন্য, এটা Kilobit এর।

'বিট' ব্যবহার করি যখন আমরা নেটওয়ার্কের গতি সম্পর্কে বলি উদাহরণস্বরূপ, 500 Kbps অর্থাৎ 500 Kilobit per second. যখন আমরা কম্পিউটার মেমরির আকার সম্পর্কে KB ব্যবহার করি। উদাহরণস্বরূপ, 500 কিলোবাইট.

বি.দ্র:হিসাবে ভুল হতে পারে।

তো সবাই ভালো থাকেন। আমার জন্য দোয়া করবেন। আর হ্যা, কোনো প্রয়োজনে টিউমেন্ট করবেন। খোদা হাফেজ। অপেক্ষায় থাকুন পরবর্তীর জন্য।

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি তানভীর রানা রাব্বি। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 5 বছর 4 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 117 টি টিউন ও 248 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 3 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 1 টিউনারকে ফলো করি।

প্রযুক্তির প্রতি একটু বেশি টান । শিখতে ভালোলাগে । গেম ডিজাইন করতে পছন্দ করি । কিন্তু অাড্ডা দিতে একটু বেশি পছন্দ করি ।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

really informative and valuable….

প্রিয় টিউনার,

আপনার টিউন টি খুবই ভাল হচ্ছে। আপনার টিউনটি নন-ফরমেটিং অবস্থায় ছিল যা টিউনের রিডেবিলিটি (Readability) প্রচন্ড রকম কমিয়ে দেয়। টেকটিউনস থেকে তা ফরমেট করে দেওয়া হয়েছে। একটি সুন্দর ফরমেটেড টিউন টিউনের রিডেবেলিটি যেমন বৃদ্ধি করে তেমনি আপনার টিউনের ফলোয়ার ও বৃদ্ধি করে। টেকটিউনস থেকে আপনার টিউনটি ফরমেট করে দেওয়া হয়েছে যেন আপনি নন-ফরমেটেড টিউন প্রকাশ না করে, একটু সময় নিয়ে, সুন্দর ভাবে টিউন ফরমেট করে প্রকাশ করার জন্য উৎসাহিত হোন এবং আপনার পরবর্তী সকল টিউন সঠিক ফরমেট করে টিউন প্রকাশ করতে পারেন। ফরমেটিং এর জন্য নিচে বেশ কিছু গাইডলাইন প্রদান করা হল। নিচের গাইড লাইন গুলো সঠিক ভাবে পড়ুন ও চর্চা করুন এবং আপনার পরবর্তী সকল টিউন ওয়েল ফরমেটেড হিসেবে প্রকাশ করুন।

➡ আপনি আপনার টিউনে প্রয়োজনীয় ছবি ও স্ক্রীনসট ব্যবহার করুন।

ছবি ও স্ক্রীনসট আপনার টিউনের মানকে ও টিউডার (টিউন রিডার) কে আকৃষ্ট করার মান আরও বাড়িয়ে তুলবে। কীভাবে টিউনে ছবি ও স্ক্রীনসট যোগ করবেন তা দেখার জন্য টেকটিউনসের ‘টিউন করা শিখে নিন’ ভিডিও টিউট গুলো https://www.youtube.com/playlist?list=PL578710DA5EB72D31 দেখুন।

➡ আপনার টিউন আর সুন্দর করে ফরমেট করুন।

বিভিন্ন পয়েন্ট গুলো বুলেট আকারে দিন।
টিউনের প্রধান টপিত গুলো H2 করে দিন।
সাব হেডিং গুলো H3 করুন।
টিউনের কোন অংশে কখনও H1 হেডিং ব্যবহার করবেন না।
নিজের সাইট বা কোন লিংক টিউডারের কাছে আকৃষ্ট করার জন্য কখনও কোন লিংকে হেডিং (h1,h2,h3) বা বড় টেক্সট করে দিবেন না। আপনার সাইটের লিংক দেবার জন্য টিউনের নিচে ব্লককোট করে “সৌজন্যে:” লিখে সাইটের লিংক দিন। এই টিউনটি https://www.techtunes.co/internet/tune-id/188009 লক্ষ করুন টিউডার ও টিউজিটরদের কোন প্রকার অযাচিত আকৃষ্ট না করে টিউনের শেষে; নিচে কীভাবে ব্লককোট করে “সৌজনে:” লিখে লিংক দেয়া হয়েছে। এতে আপনার টিউনের টিউডার ও টিউজিটরা আপনার প্রতি পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস স্থাপন করবে।
টিউনে কখনও বিভিন্ন টেক্সট ভিন্ন ভিন্ন কালার ব্যবহার করবেন না এতে টিউডার টিউনে পড়তে বিরক্তি বোধ করবে।

কীভাবে সুন্দর করে টিউন ফরমেট করবেন তা জানতে টেকটিউনসের টিউন করা শিখে নিন ভিডিও টিউট গুলো https://www.youtube.com/playlist?list=PL578710DA5EB72D31 দেখুন।

➡ নিচে কিছু দারুন ও সুন্দর ভাবে ফরমেট করা টিউনের উদহরণ দেয়া হল। লক্ষ করুন

টিউন গুলোতে কিভাবে প্রাসঙ্গিক ছবি => https://www.techtunes.co/freelancing/tune-id/141620
প্রয়োজনীয় স্ক্রিনসটের ব্যবহার => https://www.techtunes.co/tips-and-tricks/tune-id/102544
ঠিক ভাবে হেডিং ও সাব হেডিং এর ব্যবহার => https://www.techtunes.co/reports/tune-id/111219
বিভিন্ন পয়েন্ট গুলোকে বুলেট পয়েন্ট করে দেখানো => https://www.techtunes.co/reports/tune-id/111219
টিউনের মাঝে নির্দিষ্ট প্যারা তৈরি করা => https://www.techtunes.co/tips-and-tricks/tune-id/129685
টিউনে স্ক্রিনসট সহ টিউটোরিয়ালের বিভিন্ন ধাপ দেখানো => https://www.techtunes.co/featured/tune-id/95448
টিউনে কোড থাকলে তা কোড হাইলাইটারের মাধ্যমে উপস্থাপন => https://www.techtunes.co/web-design/tune-id/77692/

ইত্যাদি করে সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে।

এই টিউনের ফরমেট গুলোকে আদর্শ হিসেবে নিয়ে সবসময় আপনার টিউন গুলোকে সুন্দর ফরমেটে উপস্থাপন করুন। এতে আপনার টিউনের পাঠযোগ্যতা টিউডার ও টিউজিটরের কাছে বহুগুণে বৃদ্ধি পাবে।

➡ আপনার টিউনে যদি প্রোগ্রামিং সংক্রান্ত টিউন হয় ও টিউনে কোডের ব্যবহার থাকে তাহলে বিভিন্ন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের কোড যেমন HTML, CSS, JS, PHP ইত্যাদি কোড সুন্দর ও সঠিক ভাবে দেখাতে টেকটিউনসের রয়েছে নিজেস্ব “কোড হাইলাইটার”। টেকটিউনসের “কোড হাইলাইটার” কিভাবে ব্যবহার করতে হয় তা জানতে এই টিউনটি https://www.techtunes.co/web-design/tune-id/77692/ দেখুন।

➡ টিউন করার আগে কিছু সময় নিয়ে পরিকল্পনা করুন।

➡ টিউডার ও টিউজিটররা বিস্তারিত, যত্ন নিয়ে, প্রয়োজনীয় ছবি যোগ করা ও সাবলীল ভাষার টিউনারদের খুবই পছন্দ করে। তাই সময় নিয়ে সুন্দর ভাবে, পরিপাটি করে ভাষা গুছিয়ে, আপনার মেধার পূর্ণ প্রয়োগ করে বিস্তারিত টিউন করুন।

অসম্পূর্ণ, অগোছালো, সুনির্দিষ্ট নয়, নাম মাত্র টিউন বা কোন রকম টিউন – এ ধরনের টিউন না করে সময় নিয়ে, সুন্দর ভাষার সুষ্ঠু প্রয়োগ করে, মেধার পূর্ণ ব্যবহার করে বিস্তারিত ভাবে টিউন করুন।

➡ কিছুদিন পর পর বা বেশ সময় ব্যবধানে টিউন না করে নিয়মিত টিউন করে কমিউনিটিতে আপনার বিশ্বস্থতা ধরে রাখুন। নিয়মিত টিউনারদের টিউডাররা খুব পছন্দ করে ও আস্থা রাখে। টিউন করার জন্য সপ্তাহের দুটি দিন বেছে নিন। এতে আপনার নিয়মিত টিউন করার ধারাবাহিকতা থাকবে।

টেকটিউনস বিজ্ঞান প্রযুক্তি চর্চার এক উন্মুক্ত সৌশাল নেটওয়ার্ক। টেকটিউনসে আপনার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির চিন্তা চেতনা মনন, অভিজ্ঞতার প্রকাশ ঘটান। আপনার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির জানা বিষয় গুলো প্রযুক্তির এই সুবিশাল নেটওয়ার্কে অন্যদের মাঝে ছড়িয়ে দিন। নিজেকে একজন মানসম্মত, দ্ক্ষ, কমিউনিটির অন্যদের সাথে বন্ধু ভাবাপন্ন টিউনার হিসেবে গড়ে তুলুন। হয়ে উঠুন একজন আদর্শ টেকটিউনার।

Thanks @টেকটিউনস_মেন্টর_XI