টুইটারের বিট-কয়েন কেলেঙ্কারির অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে ফ্লোরিডার ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরকে

টিউন বিভাগ টেকটিউনস টেকবুম
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

সম্প্রতি বিশিষ্ট ব্যক্তিদের টুইটার একাউন্ট হ্যাকের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে ফ্লোরিডার ১৭ বছর বয়সী এক কিশোরকে।

Hillsborough State Attorney এর Andrew Warren, ১৭ বছর বয়সী Graham Clark এর বিরুদ্ধে ৩০ টি  অভিযোগ দায়ের করেন, এবং টুইটারের বিট-কয়েন কেলেঙ্কারিতে তাকে মাস্টার মাইন্ড বলে উল্লেখ করে।

তার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে Andrew Warren জানান, "বিখ্যাত ব্যক্তি এবং সেলেব্রিটিদের নাম ব্যবহার করে এ ধরনের অপরাধ করা হয়েছিল, তবে তারাই প্রথম শিকার নয়, আমেরিকানদের কাছ থেকে বিশাল অর্থ চুরি করতেই এই বিট- কয়েন তৈরি করা হয়েছে"।

মার্কিন বিচার বিভাগ আরেকটি বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে এই হ্যাকিং এ জড়িত থাকায় আরও দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে একজন হচ্ছে যুক্তরাজ্যের ১৯ বছর বয়সী বাসিন্দা Mason Sheppard যার ছদ্ম নাম ছিল "Chaewon" এবং অন্যজন ফ্লোরিডার ২২ বছর বয়সী Nima Fazeli যে "Rolex" নাম ব্যবহার করত।

সংবাদ সম্মেলনে Andrew Warren জানায়, "এই মুহূর্তে Graham Clark ফেডারেল অভিযোগের মুখোমুখি হচ্ছে না কারণ ফ্লোরিডার আইন নাবালকদের বিচারের ক্ষেত্রে নমনীয়তার সুযোগ দেয়"।

Graham Clark এর বিরুদ্ধে, একটি ৫০, ০০০ ডলারের সংঘবদ্ধ জালিয়াতি, ১৭ টি ৩০০ ডলারের যোগাযোগ জালিয়াতি, একটি ১০০, ০০০ ডলারের ব্যক্তিগত ডেটা প্রতারণা, ১০ টি ব্যক্তিগত তথ্য গোপনে ব্যবহার, এবং কর্তৃপক্ষের আদেশ ছাড়া কম্পিউটারে এক্সেস এর জন্য ১ টি ক্রিমিনাল চার্জ আনা হয়েছে।

এখানে উল্লেখ্য বেশ কিছুদিন আগে টুইটারের কয়েকটি ভেরিফাইড একাউন্ট হ্যাক হয় যেখানে হ্যাকাররা বিট-কয়েনের মাধ্যমে হাতিয়ে নেয় বিশাল পরিমাণে অর্থ। টুইটার জানায় হ্যাকাররা টুইটারের ইন্টারনাল টুল ব্যবহার করে এই ধরনের কাজ করেছে।

Graham Clark কে অভিযোগ করা মামলার নথিতে উল্লেখ করা হয়, সে টুইটারের কর্মীদের ধোঁকা দিয়ে ইন্টারনাল টুলের এক্সেস নিয়েছিল। সে কর্মীদের কাছে নিজেকে আইটি ডিপার্টমেন্টের সহকর্মী হিসেবে পরিচয় দেয়।

Andrew Warren বলেন "সে কোন সাধারণ ১৭ বছর বয়সী ছেলে নয়। এই আক্রমণটি এমন ছিল যা আগে কখনো দেখা যায় নি, এই হ্যাকটি অর্থনৈতিক বাজারকেও অস্থিতিশীল করে দিতে পারতো"।

এদিকে Graham Clark এর মা NBC News কে বলেন তার ছেলে নির্দোষ, সে এমন কাজে জড়িত থাকতে পারে না।

যুক্তরাষ্ট্রের Department of Justice (DOJ) জানায় এই তদন্ত এবং গ্রেফতারের সাথে জড়িত ছিল, U.S. Attorney Office, FBI, IRS সহ আরও বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারীরা।

টুইটার সম্প্রতি একটি টুইটে জানায় "আমরা এই তদন্তে আইন প্রয়োগকারীদের দ্রুত পদক্ষেপের প্রশংসা করছি এবং মামলাটি এগিয়ে যাওয়ার সাথে সাথে আমরা আমাদের সহযোগিতা অব্যাহত রাখব।

-
টেকটিউনস টেকবুম - ২৬ আগস্ট ২০২০

Level 2

আমি টেকটিউনস টেকবুম। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 8 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 410 টি টিউন ও 0 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস