ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

উইন্ডোজের স্ক্রিণ রেকর্ড করার জন্য চরম এবং জোস কয়েকটি সফটওয়্যার!

টিউন বিভাগ টিপস এন্ড ট্রিকস
প্রকাশিত
জোসস করেছেন

ইউটিউবে পিসি টিপস এবং টিক্স শেয়ার করতে কিংবা কোনো কম্পিউটার টিউটোরিয়াল বানাতে হলে আমাদেরকে স্ক্রিণ রেকর্ডারের সাহায্য নিতেই হয়! আজ আমি আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি কয়েকটি চমৎকার এবং কাজের কিছু স্ক্রিণ রেকর্ডার সফটওয়্যার যেগুলোর ব্যবহার করে আপনি সহজেই বিভিন্ন কাজের জন্য আপনার পিসির স্ক্রিণকে রেকর্ড করে ভিডিও বানাতে পারবেন। ভিডিও রেকর্ড করে আপনি বিভিন্ন টিউটোরিয়ালের স্টেপ বাই স্টেপ প্রসেস বানাতে পারবেন, বিভিন্ন পিসির টিপস রেকর্ড করে অন্যদের সাথে শেয়ার করতে পারবেন, বিভিন্ন ভিডিও গেমসে আপনার প্রোনেস ইউটিউবে শেয়ার করতে পারবেন ইত্যাদি। তো চলুন আর ভূমিকায় বেশি কথা না বাড়িয়ে মূল টিউনে চলে যাই:

ADs by Techtunes ADs

ফ্রি স্ক্রিণ ভিডিও রেকর্ডার:

ফ্রি স্ক্রিণ ভিডিও রেকর্ডার দিয়ে আপনি আপনার পিসির মনিটরের যেকোনো কিছুকে ক্যাপচার করতে পারবেন। এদের মধ্যে আপনি মাল্টিপল উইন্ডোজস, অবজেক্টস, মেনুস সহ অনান্য সকল স্ক্রিণ এক্টিভিটিস নিয়ে আসতে পারবেন। এছাড়াও সফটওয়্যারটি কিভাবে চালাতে হয় সেটারও ছবিসহ স্টেপ বাই স্টেপ গাইড এই সফটওয়্যারের সাথেই দেওয়া থাকে। সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করুন এখান থেকে

ক্যামস্টুডিও:

CamStudio হচ্ছে একটি ওপেন সোর্স, ফ্রি সফটওয়্যার যেটি আপনার স্ক্রিণের সকল এক্টিভিটিসকে AVI ভিডিওতে ক্যাপচার করে থাকে। এছাড়াও সফটওয়্যারটি আপনার AVI ফাইলগুলোকে SWF ফাইলে রুপান্তরও করতে পারবে। এই সফটওয়্যারটি ইউনিক বিশেষত্ব হচ্ছে এদের রেকর্ডকৃত ভিডিও ফাইলের সাইজ অনান্য স্ক্রিণ রেকর্ডারের ফাইলের সাইজের থেকে কম হয়ে থাকে। আমি নিজে অবশ্য এটা টেস্ট করিনি, আপনারা চাইলে টেস্ট করে দেখতে পারেন। সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন এখান থেকে

ইজিভিড!

Ezvid একটি ফ্রিওয়্যার ভিডিও এবং স্ক্রিণ ক্যাপচার সফটওয়্যার। সফটওয়্যারটি সরাসরি আপনার কম্পিউটারের প্রসেসিং পাওয়ার ব্যবহার করে স্ক্রিণ রেকর্ড করে থাকে। তাই বিশেষ করে গেমস খেলার সময় আপনি রেকর্ড করতে চাইলে পিসি স্লো হয়ে পড়তে পারে। তবে অনান্য সকল কার্যে আপনি এই সফটওয়্যারটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন। সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন এই লিংক থেকে

টাইনিটেক!

TinyTake এর ওয়েবসাইটের মতে এটিই হচ্ছে বেস্ট ফ্রি স্ক্রিণ ক্যাপচার ও ভিডিও রেকর্ডিং সফটওয়্যার! সফটওয়্যারটির সাহায্যে আপনি আপনার স্ক্রিণের যাবতীয় এক্টিভিটিসগুলোকে ক্যাপচার করতে পারবেন, এডিটিং করতে পারবেন এবং সরাসরি সোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন! এটি ফ্রি সফটওয়্যার হলেও এর বেশিরভাগ ফিচার শুধুমাত্র পেইড সংস্করণে রয়েছে।

স্মার্টপিক্সেল!

ADs by Techtunes ADs

SmartPixel স্ক্রিণ রেকর্ডারকে গেমারদের জন্য বিশেষভাবে তৈরি করা হলেও আপনি সাধারণভাবে যেকোনো কিছুই রেকর্ড এবং ক্যাপচার করতে পারবেন আপনার মনিটরের। যেহেতু গেমারদের কথা মাথায় রেখে এটা ডিজাইন করা হয়েছে তাই এই সফটওয়্যারের রেকডিং হচ্ছে বেশ স্মুথ এবং সিমলেস এবং খুবই কম পরিমানের র‌্যাম খরচ করবে। স্মার্টপিক্সেল সফটওয়্যারটি রেকডিং এবং ক্যাপচারিংয়ের জন্য এডভান্সড ভিডিও কম্প্রেশন টেকনোলজি ব্যবহার করে কম সাইজের হাই কোয়ালিটির ভিডিও তৈরি করতে পারবেন। সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন এই লিংক থেকে।

স্ক্রিণফ্লো

Screenflow হচ্ছে আরেকটি স্ক্রিণ রেকর্ডার যেটির মাধ্যমে আপনি আপনার স্ক্রিণের সবকিছুই রেকর্ড করতে পারবেন। যার মাধ্যমে আপনি আপনার মনিটরের সকল এরিয়া, ওয়েবক্যাম এবং মাইক্রোফোন সহ কম্পিউটারের সিস্টেম অডিও সবকিছুই রেকর্ড করতে পারবেন। শুরু রেকডিং নয় আপনি ভিডিওগুলো এডিটিংও করতে পারবেন। সফটওয়্যারটিতে কোয়ালিটি কন্ট্রোলের আলাদা অপশন রয়েছে। সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন এই লিংক থেকে।

আইসক্রিম স্ক্রিণ রেকর্ডার!

Icecream Screen Recorder দিয়ে আপনি স্ক্রিণশট সহ ভিডিও ক্যাপচার করতে পারবেন আপনার মনিটরের যেকোনো অংশে। এক্ষেত্রে আপনি নিজেই সিলেক্টশন করে দিতে পারবেন যে মনিটরের কোনটুকু অংশ রেকর্ড হবে। যেটা অনেক ক্ষেত্রে বেশ কাজের। সফটওয়্যাটি একটি ফ্রি সফটওয়্যার এবং এতে একই সাথে ওয়েবক্যাম রেকডিং এবং স্ক্রিণ ক্যাপচারিং দুটো একই সাথে করা যায়। এছাড়াও রেকডিংয়ের সময় জুম ইন ও আউট করা যায়। ফ্রি সফটওয়্যার হলেও এটার পেইড সংষ্করণ রয়েছে। ফ্রি সংস্করণে আপনি সবোর্চ্চ ১০ মিনিট পর্যন্ত রেকর্ড করতে পারবেন এবং শুধুমাত্র WEBM কোয়ালিটির ফাইলে ভিডিওগুলো সংরক্ষণ করতে পারবেন। সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন এই লিংক থেকে।

স্ক্রিণক্যাস্ট ও মেটিক!

Screencast-O-Matic হচ্ছে আরেকটি স্ক্রিণ রেকর্ডার সফটওয়্যার যেটির সাহায্যে আপনি আপনার মনিটরের স্ক্রিণের বা ওয়েবক্যাম দিয়ে ভিডিও রেকর্ড বা ক্যাপচার করতে পারবেন। ভিডিও রেকডিং ছাড়াও এটি দিয়ে আপনি ভিডিও এডিটিং করতে পারবেন এবং স্ক্রিণক্যাস্টের ফ্রি সার্ভারেও আপলোড দিতে পারবেন। সফটওয়্যারটির ফ্রি সংস্করণে আপনি ১৫মিনিট পর্যন্ত ক্যাপচারিং করতে পারবেন আর ফ্রি সংস্করণের রেকর্ডে সফটওয়্যারের ওয়াটারমার্ক থাকবে। সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন এই লিংক থেকে 

আইস্প্রিং ফ্রি ক্যাম!

iSpring Free Cam হচ্চে আরেকটি ফ্রি উইন্ডোজ স্ক্রিণ রেকডিং সফটওয়্যার যেখানে কয়েকটি ভিডিও এডিটিংয়ের অপশন রয়েছে যার মা্ধ্যমে আপনি ভিডিওটির কোনো অংশকে এডিটিং করতে পারবেন, ব্যাকগ্রাউন্ড শব্দ মুছে দিতে পারবেন, নতুন করে অডিও ইফেক্টস দিতে পারবেন। আপনি WMV ফাইল ফরমেটে সংস্করণ করতে পারবেন। এর সুবিধা হলো এটিতে কোনো ওয়াটারমার্ক, টাইম লিমিটস এবং এডভারটাইজমেন্ট নেই। তবে ওয়েবক্যাম রেকডিং এতে নেই। সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন এই লিংক থেকে

ক্যামটাসিয়া!

ADs by Techtunes ADs

Camtasia দিয়ে আপনি প্রফেশনাল ভাবে আপনার মনিটরের এক্টিভিটিসগুলো রেকর্ড করতে পারবেন প্রায় মিনিমাম এফোর্ডের মাধ্যমে। এছাড়াও ভিডিওতে আলাদা করে ইফেক্ট সংযোজন সহ নতুন ভিডিও এডও করতে পারবেন। এছাড়া একই সাথে একাধিক ভিডিও এবং অডিও নিয়ে আলাদা রেকর্ডিং বানাতে পারবেন। তবে সফটওয়্যারটি ফ্রি সংস্করণ আপনি মাত্র ৩০ দিনের জন্য ব্যবহার করতে পারবেন। সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করতে এই লিংকে ক্লিক করুন।

ফ্রাপস!

আমাদের আজকের লিস্টে সবথেকে বেস্ট পজিশনে আমি আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি Fraps সফটওয়্যারটিকে। কারণ আমি ব্যক্তিগত ভাবে এই সফটওয়্যারটি ব্যবহার করে থাকি।

এটি মুলত গেমাররা তাদের গেমসের স্পিড (FPS) দেখার জন্য ব্যবহৃত করে থাকে এছাড়াও এফপিএস সহ গেমিং রেকর্ড করার জন্যেও এটি ব্যবহার করা যায়। তবে এছাড়াও এটি দিয়ে আপনি স্ক্রিণ রেকডিং, স্ক্রিণশট টেকিং এবং এর মূল কাজ বেঞ্চমার্কিং করতে পারবেন! এটি সরাসরি DirectX এবং OpenGL প্রযুক্তি ব্যবহার করে ভিডিও ক্যাপচার করে বিধায় এতে আপনি সবোর্চ্চ কোয়ালিটির আউটপুট পাবেন। ফ্রাপস সফটওয়্যারটি প্রায় ১৮ বছর আগে ১৯৯৯ সালের আগষ্টে মুক্তি দেওয়া হয়। সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন এই লিংক থেকে।

আশা করবো আজকের এই টিউনটি আপনাদের কাছে ভালো লেগেছে। ফ্রাপসের ফ্রি সংস্করণে মাত্র ৩০ সেকেন্ডের জন্য আপনি ভিডিও ক্যাপচারিং করতে পারবেন। কারণ ফ্রাপস মূলত একটি বেঞ্চমার্কিং সফটওয়্যার! তাই সরাসরি তাদের ওয়েবসাইটের লিংক না দিয়ে আমি ফুল ভার্সনের লিংক দিয়ে দিলাম। যদিও টেকটিউনস পাইরেসিকে সমর্থন করে না তাই এই ফ্রাপসের লিংকের সব দায়িত্ব আমার! যাই হোক আজ তাহলে এই পর্যন্তই থাক! আগামীতে অন্য কোনো ভালো টপিক নিয়ে আমি টিউনার গেমওয়ালা চলে আসবো আপনাদেরই প্রিয় বাংলা টেকনোলজি সৌশল নেটওয়ার্ক টেকটিউনসে!

এরকম আরও টিউন পেতে টেকটিউনসে Follow বাটনে ক্লিক করে আমাকে ফলো করুন এখনই! আর আমার নতুন টিউন করার সাথে আপডেট পেয়ে যান আপনার টিউন Screen এ।

টিউনটি ভালো লাগলে অবশ্যই জোসস বাটনে ক্লিক করে টিউনটি জোসস করুন।

টিউনটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ!

ADs by Techtunes ADs
Level 10

আমি ফাহাদ হোসেন। Supreme Top Tuner, Techtunes, Dhaka। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 7 বছর 7 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 663 টি টিউন ও 436 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 81 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

যার কেউ নাই তার কম্পিউটার আছে!


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস