ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

মেয়েদের কাছ থেকে শিখে নিন ৭ টি জিনিস

ছোট বেলা থেকে মেয়েদের গুছিয়ে চলার বেপারটা দেখে আসতেছি। নিয়মিতই ওদেরএই গুছিয়ে চলাটা আমার কাছে বিরক্তের কারন ছিল। কোথাও এক সাথে বের হতে গেলে কয়েক ঘন্টা সাজগোজেই আপচয় হয়ে যাবে। কি ভয়ানক বেপার বলুন তো!!! এক দিনে আমার বান্ধবী যে পরিমানে প্রসাধনী ব্যবহার করে তা হয়তো আমি মাসেও করি না। আর যে কোন বেপারেই ওদের রয়েছে একটা খুতখুতে ভাব। টাকার নোট দিলেও তারা ভাল ভাবে দেখে আর নতুন নোটের প্রতি রয়েছে ওদের অস্বাভাবিক রকমের অপ্রয়োজনীয় চাহিদা। আশ্চর্য সব বেপার!!!

ADs by Techtunes ADs

কিন্তু এ বেপারটাকে আমি একটু পজিটিভ ভাবে দেখলাম যখন ডিজাইন করতে গেলাম। আমার দরকার ছিল একটু সমালোচক, একটু গুছিয়ে চলা লোক। তাহলে মেয়েদের কাছ থেকে কি কিছু শিখে নেয়া যায় নাকি…বলুন তো..।

(Previously Published on: bigganprojukti.com)

সময় সচেতনতা:

কোন দিন ডেটিং এর সময় দেয়া থাকলে একেবারে আগেই হাজির। আসলে ওদের তো কোন কাজ নেই তাই হয়তো তারাতারি এসে পরে। ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে নাকি সময় সচেতনাতা শিখতে হবে মেয়েদের কাছে। যাক.. তাহলে শিখে নেব।

পরীক্ষা নিরীক্ষা:

ঐ যে বলেছিলাম, যে কোন বিষয়ে খুতখুতে স্বভাব। যা এনে দেন তাই পরীক্ষা করে দেখবে। কোন তরকারীতে পোকা আছে তা ওদের কাছে না গেলে বুঝতেই পারবেন না। আপনি না হয় ডিজাইনার। একটা ডিজাইন করে ফেলেছেন। এখন যদি ভাল করে না দেখেন তাহলে কি চলবে?

রং সচেতনাতা:

আমার বড় দুই বোন। ওরা সব সময় একই রঙের জিনিস এক সাথে পড়তো। আমি ছোট ছিলাম তাই হা… করে তাকিয়ে থাকতাম। কানের, নাকের, গলার গহনা, হাতের চুরি, জামা, ওড়না এমন কি জুতার মধ্যেও নাকি একই রকমে রঙের ডিজাইন প্রয়োজন। মার্কেটে গিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা কেটে যায় মিলানো যায় না সহজে। ইদানিং কালের ভাল ভাল ওয়েব ডিজাইনারদের মাঝেও এই বেপারটা দেখতেছি। প্রতিটি ডিজাইনের লগো,আইকন, ফেভিকন, থিমের ডিজাইন, কনটেন্ট ও ফন্টের রঙের মাঝে বেশ একটা রঙের মিল। মনে হয় এটা ওই সব মেয়েদের কাছ থেকেই শিখেছে ওরা।

সামাজিকতা:

নতুন এলাকাতে গেলাম কিছু দিন আগে। আমার বোনেরা আসে পাসের অন্যান্য মেয়েদের সাথে বেশ ভাল এক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপন করে ফেলেছে। আমি কারো সাথে পরিচিত হতেই পারি নি। পরীক্ষার হলে ম্যাডাম গার্ড দিতে এলে আমার বিরক্তের অন্ত ছিল না। আমি জানি ..মেয়েরা একটু বেশি-ই বক বক করে।আজ কাল মোবাইল ফোনে মেয়েরা মিস কল দিয়ে দিয়ে ছেলেদেরা টাকা শেষ করে শুধু ওদের বক বক স্বাধ মিটায়।

কিন্তু এই বেশি বেশি বক বক করাটা নাকি আজ কাল নেটওয়ার্কিং এর জন্য ভাল। ফেসবুক টুইটার,ম্যাসেঞ্জারে সারাদিন বক বক করে নাকি আনেক লাভ হয়। অনলাইনের একটা ধন্দাও নাকি এর মধ্যে লুকিয়ে থাকে.. কি ভয়ানক!!!

গুছিয়ে রাখা:

দশ বছরের ব্যাচেলর জীবনে কখনো গুছিয়ে থাকি নি। সে দিন খালাম্মা বেড়াতে এলো । আমরা তো আমাদের মতোই সব কিছু এলো মেলো রাখি। অপরিস্কার জীবনটাই আমাদের স্বাভাবিকতা। কয়েক ঘন্টার মধ্যে খালাম্মা আমাদের ঘরের চেহারাটাই পাল্টে দিল।

ওয়েব ডিজাইনারদেরও নাকি গুছিয়ে রাখতে হয়। সিএসএস এর বক্স বানিয়ে বানিয়ে কনটেন্টগুলোকে ভাজ ভাজ করে রাখা খুব দরকারী। আরএই কাজ টা করতে পারলেই তো ওয়েব ডিজাইনের ৯০ ভাগ শেখা হয়ে যায়।

ADs by Techtunes ADs

দামাদামি:

Things Designer Can Learn From Girls

ছবি: Rave Master

বাজারে ইদানিং মেয়েদের আনাগোনা বেড়েছে। কারন ছেলেরা নাকি ভাল জিনিস পছন্দও করতে পারে না, বেশি দাম দিয়ে কিনে ফেলে। দোকানদাররাও জানে মেয়েরা অনেক দামাদামি করে।

কয়েক জনের ওয়েব বানিয়ে দেওয়ার অফার পেলাম, কিন্তু আমি দামের বেপারে কিছুই বলি নি। “ঠিক আছে বানিয়ে দবে টাকা পয়সার বেপারে কিছু বলতে হবে না।” কাজ শেষে যা দিল-তা রীতি মতো অপমানজনক। তাই মেয়েদের কাছ থেকে দামাদামিটা শিখেই নিতে হবে -ভাবছি।

ক্রিয়েটিভিটি:

মেয়েরা কি ক্রিয়েটিভ? আমার অফিসের বন্ধু বলে-”মেয়েদের মাঝে নাকি ক্রিয়েটিভ কিছু নাই।” কিন্তু কয়েকটা বান্ধবীর ক্লাস হ্যান্ড নোট দেখে মনে হলো একটু বেশিই ইউনিক। যাই হোক। বেশ কিছু ইউনিক আইডিয়া পেতে মেয়েদের কাছে গেলে আসুবিধা কোথায়?

ভাবছি কোন একটি ডিজাইনের কাজ শেষ করার আগে কোন এক মেয়ে মানুষকে সমালোচনা করার জন্য দিব। … বেপারটা কি একটু বাড়াবাড়ি নাকি?

তাহলে আজ মনের স্বাদ মিটিয়ে মেয়েদের বিরুদ্ধে বললাম। সমালোচনা করতে ভুলে গেলে চলবে না।

লেখাটি  Nikunj Tamboli ‘র মাথা থেকে নেওয়া ও নিজের মতো সম্পাদনা করা

আমার অন্যান্য লেখা:

ADs by Techtunes ADs

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি টিউটো। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 11 বছর 5 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 66 টি টিউন ও 478 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 0 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

তিনি দীর্ঘ দিন ধরে সাফল্যের সাথে টিটোরিয়াল বিডি ব্লগটি পরিচালনা করে আসছেন। বর্তমানে ব্লগিং এর পাশাপাশি একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে চাকরি করছেন। http://www.facebook.com/#!/mahbubpalash http://twitter.com/tuto_mahbub


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

ভাই বিষয় গুলি পজেটিভ চেঞ্জে চিন্তা করার জন্য ধন্যবাদ।

    আপনাকেও ধণ্যবাদ, আউলিয়া…।

ভাই এগুলোর সাথে ওগুলোর তুলনা করাটা কেমন হয়ে গেল না? সব ব্যাপারে আপনার সাথে একমত হতে পারলাম না। মেয়েদের ব্যাপার না জড়িয়ে নিজের চিন্তা চেতনার মধ্যে দিয়ে করাটাই ভাল মনে করছি। টিউনের জন্য ধন্যবাদ

    তুলনাটা কেমন হইলো জানাইলে খুসি হইতাম। এর চেয়ে ভাল কিছু পারি না কিনা। হয়তো কিছু দিন পরে ছেলেদের সমালোচনা করতে বসবো।

    Level 0

    কৌশিক ভাই আপনি আউয়াল ভাইয়ের কমেন্ট দেখুন
    সব কিছু পজিটিভলি দেখতে হবে
    কারন
    Everything has a Positive & a Negative Side

    আমি মনে করি সব কিছুই পজিটিভ নেগেটিভ বলে দুনিয়াতে কোন কথা নাই। অনেকদিন টেকিতে ঝগড়ার পরিবেশ হয় না !!! চাইছিরাম এরকম কিছু একটা করতে!!!

    Brother,
    If you haven’t got anything like negative than listen…..
    negative is there , when positive is here…..

    as you made a good tune. but if I say something bad in my comment than what it will be in you eyes?
    Positive ?

    if you think that everything is positive than please don’t mind for your kind information this tune is like- “fucking bull sheet nothing else!” (now take my comment positively because everything is positive in your thought)…..

    Sorry Friends!!!!!

আপনি সবই লিখেছেন কিন্তু সমালচনার ব্যাপার টা লিখেন নাই। তাই-

[b]” ভাবছি কোন একটি ডিজাইনের কাজ শেষ করার আগে কোন এক মেয়ে মানুষকে সমালোচনা করার জন্য দিব।”[/b]

আইডিয়াটা ভাল।

    আমিই যদি সব লিখি তাহলে আপনি লিখবেন কি?

    ভাই আপনি যা গবেষণা করছেন তো পুরাটাতো আপনিই লিখবেন তাই না। আমি তো গবেষণার জন্য গবেষণার বস্তুই খুঁজে পাই নাই। তাই বলি ভাই পুরাটাই লেখেন।

সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করার জন্য, ধন্যবাদ। আপনার বিষয়টি আমিও মনে রাখব।

    আপনাকেও ধন্যবাদ। পোস্টটি দিয়ে তো আমার কিংকর্তব্যবিমূঢ় অবস্থা। কেউ বলে জোস হইসে-কেউ বলে নট।

ধন্যবাদ ………।।

মেয়েদের কাছ থেকে সেখার চেয়ে বাবা মায়ের কাছ থেকে সেখাটাই হচ্ছে প্রধান বিষয়।বাবা মা যে শিক্ষায় শিক্ষিত , দায়িত্নশীল,আদব কায়দায় বড় করেন তাদের জীবনে এইধরনের ডেটিং ফেটিং ,মেকাপ ,কুটিলতার মধ্যে না জড়ানোই ভাল।আর স্মার্টতা নিয়ে চিন্তা না করাই বেটার কারন ওটা সম্পুর্ন নিজের উপর নির্ভরশীল।মাথা থেকে ফালতু চিন্তা ফেলে দিয়ে মানুষ কিভাবে উন্নতি করবে সেটা চিন্তা করুন।ok

    আপনি মনে হয় মেয়েদের ক্ষপ্পের……….

    সৌন্দর্য জিনিসটা আপনার কাছে খারাপ হতে পারে। কিন্তু একজন ওয়েব ডিজাইনারের কাছে বেপারটা খুবই দরকারী।

    তৌফিক ভাই আমি একমত

    আমি নিজেও আনস্মার্ট বয়। কিন্তু সেই জন্য কারো ভাল দিকগুলার অবহেলা করি না। বাবা মায়ের খাছ থেকে শিখতে কে আবার নিষেধ করলো… ? আমার মাথা কি আপনার মাথার কথা মতো চলবে। আমার টিউনে কোথাও কাউকে উদ্দেশ্য করে কিছু বলা নাই। নিজে নিজের চিন্তার প্রকাশ।

ভাই আপনাকে অনুরোদ করছি এইসব টিউন না দিয়ে টিপস দিলে খুশি হবো,Don’t mind।

    জি ভাই, আমিও আপনার সাথে একমত….. (Don’t mind)

    আমি আসলে করো কথা মতো লিখি না। আমার যা ভাল লাগে তাই লিখি। আপনার যা ভাল লাগে তাই পড়ুন। এডমিন নিজেই আমার পক্ষে কথা বলেছে। আপনি টিউনটি সম্পূর্ণ পড়েন নাই মনে হয়। আরেকবার পড়ে আরেকবার কমেন্ট করুন।

কি দারুন… তবে মেয়েরা বেশীর ভাগ কাজই ছেলেদের টাকা উরিয়ে……. ( so, অলস মস্তিস্ক শয়তানের কারখানা)……….. ছেলেরা সরাদিন খাটে তাই তারা এইসব বেপারে পিছিয়ে……………

কি দারুন… তবে মেয়েরা বেশীর ভাগ কাজই করে ছেলেদের টাকা উরিয়ে……. ( so, অলস মস্তিস্ক শয়তানের কারখানা)……….. ছেলেরা সরাদিন খাটে তাই তারা এইসব বেপারে পিছিয়ে……………

    তাহলে তো মেয়েরা বুদ্ধিমতি..(সেই সব) ছেলেরা বোকা। ছেলেরা সারাদিন খেটে টাকা সব মেয়েদেরকে দেয়… 🙂 কি জটিল পৃথিবী বোঝা বড় দায়..।

কি ভয়ানক বেপার বলুন তো!!! এক দিনে আমার বান্ধবী যে পরিমানে প্রসাধনী ব্যবহার করে তা হয়তো আমি মাসেও করি না।এইটা যদি বুঝেন সহজ ব্যাপারগুলো বুঝতে কস্ট হয় কেন ভাই।ভাই অনুরোধ মেয়েলী ব্যাপার নিয়ে টিউন বাদ দিন।এইসব মেয়েলী ব্যাপার অন্যে কোন ব্লগে লিখুন ।

    এই ব্লগে লিখেই তো মজা পাইতাছি। আপনি ওয়েব ডিজাইনার হলে আমার প্রসংশা করতেন যেমন অন্যরা করেছে।

ব্যপক হইছে . . . তা এর কোন গুলো আপনার মাঝে আছে তা তো বললেন না!!! ভাল থাকবেন।

    সবগুলোই তো আমার মাঝে আনতে চাই।

চমৎকার একটা টিউন ,…. দারুন উপস্থাপনা …. এই ধরনের টিউন বিভিন্ন ইংলিশ ব্লগে রেগুলারভাবে চর্চা হলেও বাংলায় নাই …. টেকনোলজিকে একটু ডিফেরেন্ট ওয়ে তে রিপ্রেজেন্ট করা ….

ভালো লাগিল …. এবং প্রিয় তে ও গেল 😉

    Level 0

    একেবারে সঠিক পয়েন্ট ধরেছেন টিনটিন ভাই

    Level 0

    @ দুঃসাহসী টিনটিন ভাইজান

    আপনাকে একটা কথা বলি আশা করি কিছু মনে করবেন না এবং এটি এই টিউনের সাথে কোন সম্পর্ক নেই।

    টেকটিউন কর্তৃপক্ষের সাথে যারা জড়িত বিশেষ করে পরিচালনার ক্ষেত্রে, তাদের উচিত স্বজনপ্রীতি বাসায় রাখা। কারণ টেকটিউন শুধু বাংলাদেশের মানুষরা ভিজিট করে না বিশ্বের অনেক দেশ থেকে এই সাইটকে ভিজিট করা হয়। আর যেহেতু এই সাইটকে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে ভিজিট করা হয় সেজন্য টেকটিউন কর্তৃপক্ষের পরিচালকদের উচিত Decent and polite behave করা। টেকটিউন কর্তৃপক্ষের পরিচালকদের পক্ষপাত আচরণ এর কারণে দিন দিন টেকটিউন এর মান কমছে।

    বলা বাহুল্য যে, আমি কয়েকবছর ধরে টেকটিউন নিয়মিত ভিজিট করি এবং এর উন্নতি এবং অবনতি সম্পর্কে ভাল ধারণা রাখি।

    ধন্যবাদ আপনাকে ।

    আর এই টিউনটির থিম অনেক ভাল তবে উদাহরণগুলো অন্যভাবে দিলে এইরকম সমালোচনা হত না।

    এমদাদ ভাইয়ের সাথে একমত।

    @emdad এবং রনি : হয়তো জানে না, আমি টেকটিউনসের স্বজন না টিউনার। এডমিন বিভাগের কোন লোকও না, আমি। টেকটিউনসে আমার পরিচয় আমার টিউনগুলো।
    টেকটিউনস দিন দিন উন্নতি করছে। আলেক্সা ও গুগলে এর র‌্যাংক দিন দিন বাড়ছে।

Level New

সৃষ্টির শুরু থেকে মেয়েরা এমন তাই এদের নিয়ে চিন্তা না করাই ভাল।
ভাইজান টেকটিউনস এ রকম টিউন না করার জন্য অনুরোধ করছি।
এমন পোষ্ট দেয়ার অনেক ব্লগ আছে।
কারন টেকটিউনস প্রযুক্তির কথা বলে।
তাই আমাদের সকলকে সচেতন হওয়া উচিত।
টেকটিউনসে এমন টিউন আসলে বেমানান।

    Level 0

    আপনারা যারা টিউন না পড়েছেন তারাই এইরকম মন্তব্য করেছেন;
    আপনাদের অনুরোধ করছি যারা পড়েননি তারা আগে পড়েন তারপর কিছু বলুন

    Level New

    প্রথমেই বলি শিরোনামটা হওয়া উচিত ছিল
    (ওয়েব ডিজাইনার রা শিখে নিন ৭টি জিনিস) এখানে মেয়েদের সাথে তুলনাটা হাস্যকর।
    সহজ বিষয়কে সহজভাবে বলাই শ্রেয়। এত জটিলতার কোন প্রয়োজন নাই।
    আসলে মশা মারতে কামান দাগা…………………

    রবিন্দ্রনাথ বলেছে, সজহ কথা যায়না বলা সহজে…..

টিউটো ভাই, আপনাকে কি বলে ধন্যবাদ ঠিক বুঝতে পারছি না । প্রথমে শিরোনাম “মেয়েদের কাছ থেকে শিখে নিন ৭ টি জিনিস” দেখে তো আমার আক্কেলগুরুম অবস্থা আর কি ।
কিন্তু শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ে বুঝতে পারলাম আসল কাহিনী । উপস্থাপনা দারুণ । প্রযুক্তিকে একটু আলাদাভাবে মেলে ধরা হয়েছে । এক কথায় অসাধারণ । আমার কাছে এই টিউনটি নির্বাচিত হওয়ার যোগ্য । A

    আপনাকেও ধন্যবাদ পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ার জন্য। অনেকে পোস্টের হেডিংগুলো পড়েই কমেন্টে এসে পড়েছে- তাই বুঝতে পারে নাই।

মচৎকার…. মচৎকার….মচৎকার …..

    চমৎকার সেতো হতেই হবে সাহেবের মতে অমৎকার।

আপনার সাথে একমত হতে পারলাম না ।

    আমি অবশ্য আপনার সাথে একমত।

এই পৃথিবীতে যা কিছু মহান সৃষ্টি চির কল্যাণ কর……….
অর্ধেক তার আনিয়াছে নারী, আর কিছু নর………
আর কিছু করিয়াছে বানর,,,,,,,,,,,,!!!!!!!!!!

    বানর আবার কি করলো? বানর নিধনের বিপক্ষে নারী আর নরদের নিয়ে ঝাপিয় পরবো নাকি?

    হাঃ হাঃ হাঃ…..
    জোশ বলেছেন ভাই……

    যাহা চিরকাল থাকিবে অনড় !!!!!!!!!!!!!

    টিউনটি চিরকাল তাকিবে অনঢ়..তাই বলে থাকলে ভাল..

Level 0

je jai boluk vai, amar ai tiun khana boroi valo lagse vai.

    যে যা বলুক ভাই আমার সোনার হরিণ চাই।

আমাকে ওকটা ল্যাপটপ দেওয়ার কথা ছিল, দিলেন না যে….

লেখা পড়ে আমার প্রচন্ড হাসি এবং ব্যাপক মজা পেয়েছি। কিন্তু এখানে সমস্যা আছে, মেয়েদের বেশি পাত্তা দিলে গাছের আগায় উঠে, এখন গাছের আগা থেকে নামানোর টিপস আপনার টিউনে নেই কেন?

সিরিয়াস প্রশ্ন যার উত্তর কারো কাছ থেকে পাইনি তা হলঃ ওয়েবসাইট ডিজাইন করার জন্য নেট এ বিভিন্ন টুলস পাওয়া যায়।কিন্তু বেশির ভাগই বাংলা সাপোর্ট করে না। microsoft front page বাংলা সাপোর্ট করে। এরকম বাংলা সাপোর্ট করা টুলস কি আর আছে?

    মেয়েদের বেশি পাত্তা দিলে গাছের আগায় উঠে, এখন গাছের আগা থেকে নামানোর টিপস আপনার টিউনে নেই কেন? আপনার সাথে একমত

    গাছ থেকে নামানোর একটা টিপস পেয়েছি.. কিন্তু এখানে বলবো না। তারপর সবাই গাছ থেকে নামিয়ে পানিতে ফেলতে পারেন।

Level 0

চমৎকার একটা লেখা। মজা পেলাম পড়ে

    কেমন মজা…টক না মিস্টি? এরকম আরো পোস্ট দিবো নাকি???

দেখি …. এইবার বালিকাদের নিকট হইতে কিছু শিক্ষা গ্রহণ করা যায় কিনা….
নিঃসন্দেহে বেশ মজার একটা লেখা……

    ওয়েবে যেই কয়দিন আছি ..খালি শিখা শিখি নিয়ে ব্যস্ত…এই বার ওয়েব ছেড়ে বালিকাদের নিকট গমন করার সময় হইছে 😀

আমিও চিন্তা করতেছি টিপসগুলি কাজে লাগাবো। ধন্যবাদ টিউন করার জন্য।

    প্রথম কোন টিপসটা কাজে লাগানো যায় বলুন তো….

যারা মেয়ে পাগল তারাই কেবল এগুলা মানবে।

    আমি মনে হয় একটু মেয়ে ঘেষা পাবলিক… আপনি কি মেয়েদের পছন্দ করেন না?

Level 0

চমৎকার! চমৎকার !! চমৎকার !!!

    জাবেদ ভাই, বেশি আবেগ ভালো না…মেয়েদের থেকে সাবধান।

Level 0

মেয়েদের কাছ থেকে ছাড়া এইগুলা কি শিকাহ যায় না ?

    সবাই এতো মেয়ে বিরোধী কেন বুঝলাম না !!! কেউ কি আঘাত দিয়েছে নাকি?

আরে বাহ! কি দারুন ব্যাপার, সরাসরি স্টিকি পোষ্টে। অন্যান্য ভাইয়েরা সরাই ওই রকম বাজে টিউন বাদ দিয়ে এই রকম টিউন করেন। অসবিধা নাই সরাসরি স্টিকি পোষ্টে যাবে। ( দয়া করে কেউ কি বলতে পারেন যে এই টিউনে যা বলা হয়েছে তা কি কখনও কেউ করতে পারবে?)। এটা কিভাবে স্টিকি পোষ্ট হয়?!

    আপনি মনে হয় কোন ইংরেজি অথবা বাংলা ব্লগে এর আগে এরকম টিউন পড়েন নি ….. আমি আবারও বলছি এটা খুবই স্বভাবিক এবং সম্পূর্ণ রুপেই ওয়েব ডিজাইনিং এর সাথে যায়……….. তবে আপনার মন্তব্য আমাকে হতাশ করেছে …. এইরকম টিউন করলেই যে স্টিকি হবে সেই গ্যারান্টি আপনাকে কে দিল রে ভাই? আরেকজনকে এরকম উৎসাহ দিচ্ছেন এরকম টিউন করার ….. ব্যাপারটা পরিস্কার হওয়া দরকার যে শুধু কোয়ালিটি এবং কিছু স্পেশাল টিউনই স্টিকি অথবা নির্বাচিত করা হয়।

    আর আপনার এই ধরনের টিউন নিয়ে সমস্যা থাকলে আপনি নিচের লিংক থেকে আমার এই একটি টিউন পড়ে দেখতে পারেন।

    https://www.techtunes.co/tech-humour/tune-id/14374/

    পড়ার পরে আপনি নিশ্চই আর এ নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করবেন না বলে আশা রাখি ……….

    সবাই যদি এরকম টিউন করতো.. কত না মজা হইতো। টিনটিন ভাই যেখানে কথা বলেছে সেখানে আমি কিছু বলবো না।

    তবে স্টিকির ব্যাপারটা আমার কাছে কেমন যেন লাগছে, টিউনটি নির্বাচিত হলেও মনে হয় এরকম মন্তব্য করতাম না……

    অদ্ভুত আঁধার এক-জীবনানন্দ দাশ
    ————————————–

    অদ্ভুত আঁধার এক এসেছে এ পৃথিবীতে আজ,

    যারা অন্ধ সবচেয়ে বেশি আজ চোখে দেখে তারা;

    যাদের হৃদয়ে কোনো প্রেম নেই-প্রীতি নেই-করুনার আলোড়ন নেই

    পৃথিবী অচল আজ তাদের সুপরামর্শ ছাড়া।

    যাদের গভীর আস্থা আছে আজো মানুষের প্রতি,

    এখনো যাদের কাছে স্বাভাবিক বলে মনে হয়

    মহৎ সত্য বা রীতি, কিংবা শিল্প অথবা সাধনা

    শকুন ও শেয়ালের খাদ্য আজ তাদের হৃদয়।

Level 0

হৃদয়হীনারা (মেয়েরা) ভালো অভিনয় করতে জানে…কাজেই অভিনয়টাও শিখা যায়…

    এ বেপরটা তো মনে ছিল না। অভিনয়টা ওয়েব ডিজাইনে কিসে যেন দরকার পরে…..মনে করতে পারছিনা।

টিউটো says:

সৌন্দর্য জিনিসটা আপনার কাছে খারাপ হতে পারে। কিন্তু একজন ওয়েব ডিজাইনারের কাছে বেপারটা খুবই দরকারী।

সত্যি কথা, প্রিয় তে।

    গাহি সাম্যের গান…তার পরে কি যেন … মেয়েদের পেছনে ঘুরতে ঘুরতে সব ভুলে গেছি।

    😉

কিছু বুঝলাম না ভাই কার সাথে কি
Computer Tips & Tricks
http://www.a2zbd.info

    এইটা তো বুঝেছেন যে, আমি মেয়েদের পক্ষে কথা বলেছি । এইবার আপনার উচিত এর বিপক্ষে বলা।

সবঠিক আছে কিন্তু মেয়ের সাথে তুলনাটা মানতে পারলাম না । মেয়েদের থেকে কেন শিখব ? পুরুষদেরকে নারীদের উপর শ্রেষ্টত্ব প্রদান করেছেন আল্লাহ । তাহলে আমরা নারীর কাছ থেকে শিখতে যাব কেন ?

    ডিজাইনিং এর সাথে সৌন্দর্য চেতনার ব্যাপারটা পুরোপুরি যায় এটা তো পরিস্কার …. এর এই ব্যাপারটা মেয়েদের সাথে বরাবরই যায় …. টিউনটা নিছক ফানের মাধ্যমে ডিজাইনিংকে তুলে ধরা …. এই যা …

    আর আপনার সব কথা মেনে নিয়েই বলি …… নারীদের কাছ থেকে কেন কিছু শেখা যাবে না? তাদের কাছে থেকে শেখার মত কিছুই নাই? আর আমরা জন্মের পরে জীবনের অনেক কিছুই শ্রদ্ধেয় মা এবং বোনের কাছ থেকে শিখে থাকি …… তার মানে কি আমাদের সেই শিক্ষাও বর্জন করতে হবে নাকি?

    হ্যাঁ, আপনি মেয়েদের কাছ থেকে ভালো শিক্ষা নিন। তাদের খারাপটা অনুসরণ করতে কেউ আপনাকে বলছে না ….

    আমি মনে করি আপনাকে বোঝাতে পেরেছি …..

    ভালো থাকবেন

লেখাটা সুন্দর উপস্থাপন হইছে………………… কিন্তু মেয়েদের নিয়া ভাবনা টা জেন কেমন লাগসে…………

    আমি মেয়েদের নিয়ে একটু বেশিই ভাবি। কোন ছেলেকে দেখি নাই যে, কোন মেয়েকে নিয়ে ভাবে নাই। আর ওদের ভাল কিছু বলতে গেলে কেন যে সবাই জ্বলে ওঠে… একটু হাসি ঠাট্টাও কি করা যাবে না..নাকি!!!

এগুলোর অনেক গুনেই আমার মাঝে আছে বলে আমি মনে করি

——— টেক টিউনে আমার ১ম কমেন্ট যদিও অনেক দিন থেকেই সব পোষ্ট দেখি

    অন্যান্য ব্লগে তো আপনি অনেক কমেন্ট করেন। আশা করি নিয়মিত অংশগ্রহণ করবেন, ধণ্যবাদ।

সবাই কে উদ্দেশ্য করে বলতে হচ্ছে, একজন ওয়েব ডিজাইনার হিসাবে এই টিউনের
“কোন দিন ডেটিং এর সময় দেয়া থাকলে একেবারে আগেই হাজির”
এই অংশ টি ছারা বাকি সম্পূরন লেখার সাথেই একমত হতে হচ্ছে।
আপনারা যারা একমত নন তারা একটু ডিজাইনিং বিষয়টা কি জেনে বুঝে কমেন্ট করুন,

টিউন ষ্টিকি করায় টিনটিন ভাইকে ধন্যবাদ।

    এই পোস্ট যতবার দেখা হয়েছে টিনটিন ভাইকে ততটা ধন্যবাদ,স্টিকি করার জন্য। ১০০+ প্লাস কমেন্ট হলে এটাই হবে আমার সবচেয়ে সেরা লেখা। 🙂

Level 0

আসলেই funny কিন্তু এটাকে পজেটিভ ভাবে নিলে অনেক শিক্ষনীয় বিষয় আছে। টিউনটি ষ্টিকি করায় টিনটিন ভাইকে ধন্যবাদ।

    আপনাকেও ধন্যবাদ, আপনার HD নামটার অর্থ জানতে চাই, আমি ফানী কিছু লেখার চেস্টা করছি।

১)কোন দিন ডেটিং এর সময় দেয়া থাকলে একেবারে আগেই হাজির —মানে ওদের ক্যারেক্টার লুজ এবং লোভী।
২)ঐ যে বলেছিলাম, যে কোন বিষয়ে খুতখুতে স্বভাব। যা এনে দেন তাই পরীক্ষা করে দেখবে। কোন তরকারীতে পোকা আছে তা ওদের কাছে না গেলে বুঝতেই পারবেন না-এর মানে এই না ওরা খুবই বিচক্ষন তাহলে বড় বড় বিজ্ঞানিরা এবং ওয়েব ডেবলপেরা না খেয়ে মারা যেত।
৩)মার্কেটে গিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা কেটে যায় মিলানো যায় না সহজে রঙ এই ব্যপারগুলো যদি বুঝতে এতোই কষ্ট হয় তাহলে চিএ শিল্পী লিওনার্দোর এত নাম ফুটতোনা।
৪)এবারে আসা যাক সামাজিকতা নিয়ে—ওরা যদি সামাজিকতা বুঝত তাহলে তাদের পোশাকের দিকটা একবার লক্ষ্য করুন তাহলেই বুঝতে পারবেন ওদের মধ্য সামাজিকতার কতখানি ঘাটতি রয়েছে।আবার দেখা যায় যে মেয়েরা ছেলেদেরকে বেশিরভাগ মিসড কল দিয়ে থাকে এটা কি সামাজিকতার মধ্য পড়ে আপনিই বলুন।
৫)ওয়েব ডিজাইনারদেরও নাকি গুছিয়ে রাখতে হয়। সিএসএস এর বক্স বানিয়ে বানিয়ে কনটেন্টগুলোকে ভাজ ভাজ করে রাখা খুব দরকারী। আরএই কাজ টা করতে পারলেই তো ওয়েব ডিজাইনের ৯০ ভাগ শেখা হয়ে যায় —–এটা সম্পুর্ন ভুল ধারনা কারন তাহলে আর ১০ ভাগ কথার বিবরন তো দিলেননা।
৬)দামাদামি: ছোটো বেলা থেকে যদি নিযের কাজ নিজেই করতেন এবং নিজের বাসার বাজার/কেনাকাটা করার আভ্যাস থাকতো তাহলে এই সমস্যায় পড়তে হতোনা।
৭)ক্রিয়েটিভিটি:যে প্রসংসার দাবিদার তাকে প্রসংসা করতেই হবে এজন্য মেয়েদের সমালোচনা করার কোন মানে নেই।এটা দিয়ে কোন কিছুই শিক্ষার নেই ।
বিঃদ্রঃ যদি কারো সেখার আগ্রহ থাকে তাহলে টিউটো ভাইকে একটা মেয়েলি কোচিং খুলতে বলুন।

    এই পোস্টে সবচেয়ে বড় মন্তব্যের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আমি অনেক মেয়েদের পড়াইছি-এক সময়। ভাবছি প্রেম বিষয়ক একটা অনলাইন ফানী আড্ডাখানা বানাবো। সেখানে ভার্সিটি চত্তরের প্রেমিক প্রেমিকা জোড়ারা সদস্য থাকবে। সেকা খাওয়া পাবলিককে নতুন উদ্যমে প্রেম করার জন্য অন্যান্যরা উৎসাহ দেবে…
    মেয়েলি কোচিং এ আপনার মতো মেয়ে বিদ্বেসী কিছু সদস্যও রাখা যেতে পারে..আছেন তো আমার সাথে???

    Level 0

    টিউটো মনে হয় মেয়েদের এম্বাসডর

    আপনাকে ছেলে হয়ে জন্ম না নিয়ে মেয়ে হয়ে জন্ম নেয়া উচিত ছিল।আর মেয়েদের কাছ থেকে তো অনেক কিছু শিখেছেন আরো শিখতে থাকুন ……………………।।

    @ তৌফিক :একটা লেখা নিয়ে বিতর্ক হতে পারে। কিন্তু আপনার কথাগুলো বিতর্ক ছাড়িয়ে ঝগড়ার দিকে যাচ্ছে। আশা করি কোন টিউন নিয়ে কারো সাথে সম্পর্ক খারাপ হবে না। আপনাকে আইসক্রিম খাওয়ার পরামর্শ দেব।
    @ reza123 : ২ বছর ধরে বাংলা কম্পিউটিং এ লিখছি। আমাকে এখনো চিনতে পারেন নাই??? বিভিন্ন ব্লগে ২৫০+ আমার লেখা আছে। আর একটা লেখা দেখেই ভরকে গেলেন? দূ:খে আমার হাসি পাচ্ছে ..খিক,খিক,খিক।

টিউনটি আমার খুব ভাল লেগেছে। সবচেয়ে ভাল লেগেছে এর উপস্থাপনা। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ চমৎকার এ টিউনটির জন্য। 🙂 🙂

    মাথা টা একটু গরম ছিল। আপনার কথাটা হৃদয়ে বাতাস বুলিয়ে দিল। থাংকু…

টিউটো ভাই ভালই মজা পেয়েছি। আর খুবই ভাল উপস্থাপনা।

    অনেক দিন পরে দেখা….. কোথায় থাকেন??? মাঝে মাঝে আমার সাইটে গিয়ে দেখা কইরেন..হারিয়ে যায়েন না …. হৃদয় থেকে…

আবার এই টিউনে আসলাম, সব গুলো কমেন্ট পড়ার জন্য। মজা পাইছি ! কোচিং সেন্টারের কি নাম দিবেন? আমার একজন বন্ধুকে ভর্তি করামু। ফী কত ?
(secret কমেন্টঃ ফী এর অর্ধেক আমার, বাকী অর্ধেক আপ্নের )

    piriti.com এখনো খালি আছে। এই ডোমেইনটা কিনলে কেমন হয়? টাকা লগবো না, তয় ভাল ভাল টিপস দিতে হইবো- আমার এই পোস্টের মতো হিট টিপস। চলেন মেয়ে মানুষ থেকে শিখে নেই কিভাবে বানাতে হয় পিরিতি ডট কম।

মনে হয় বিষয়টা বেশী একসেস হইতেছে। টিউনটি স্টিকি থেকে সরানোটা ঊচিত মনে করি। এডমিন যদি নিজের ইচছাকেই প্রাধান্য দেয়, তাহলে বিষয়টা এই ফোরামের পাঠকরা
ভালো দিষ্টিতে নিবে না।

    স্টিকি হতে সরানো হলো। তার পরেও লোক জন খুজে খুজে আমার এই পোস্টটাতে আসতাসে। তার মানে কি দাড়ালো???

ভাই আপনে একটা জিনিস মিস করছেন সেটা হলো ওয়েব সাইটের সাথে মেয়েদের সবচেয়ে বড় মিল, তা হল ওয়েবসাইটে নতুন কিছু আনতে হইলে এডমিন প্যানেলে ঢুকতে হয় আর মেয়েদের থেকে কিছু বের করতে হইলেও তাদের এডমিন প্যানেলে ……..(সেন্সর)

    প্রথমে তো রেজিস্ট্রেমন করতে হবে। তার পর ভাল ভাল পোস্ট দিতে হবে। তার পর সাইটের মালিক যদি মনে করে আপনাকে এডমিন বানাবে তার পরে এডমিন প্যানেলের একসেস পাবেন। অবশ্য অনেকে সরাসরি হ্যাক কইরাই এডমিন প্যানেলের দখল দিতে চায়। গুড থিংকিং।

একদিকে বিষয়টি ভাল লেগেছে অন্যদিকে একপাক্ষিক দেখাচ্ছ, তবে এই টিউনটি স্টিকি হওয়ার কোন যোগ্যতাই দেখছি না

নাহ! বেশ জটিল পর্যায় চলে গেছে। প্রথমে এ টিউনটি পড়ে তেমন খারাপ লাগেনি।
রনি ভাইয়ের টিউন+ সব মন্তব্য+ স্টিকি+টিনটিন ভাই মানে সব মিলিয়ে ঘোলাটে আকার ধারন করেছে।
এ থেকে মুক্তি একমাত্র মডারেটরই দিতে পারবে।
সেই প্রত্যাশায়………………………………….

    আপনাদের সবার কমেন্ট আর আমার এ টিউনটি নিয়ে আপনাদের মাথা ব্যথাই আমাকে অনেক উপরে তুলে দিয়েছে। কেন যে, আপনার বোঝেন না !!! এরকম বিরোধীতা করলে টিউনারেরই লাভ। এই টিউনের বিরোধী আরেকটা টিউন হওয়াতে আমি গর্বিত। মেয়েদের বেপারে অতি সচেতনতা অনেককে ঝামেলায় পড়িয়ে দিয়েছে।

পুরুষরাতো দেখছি মেয়েদের অধিকার রক্ষায় অনেক সচেতন! লেখার শিরোনামে মেয়েদের নাম আনায় টিউনারের উপর দিয়ে দিয়ে প্রবল বেগে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাচ্ছে।মাশাল্লাহ টিউনার ও শক্ত হাতে বৈঠা ধরে আছেন। দেখা যাক এ ঝড়ো হাওয়া কোথায় গিয়ে সমাপ্ত হয়? তবে ভালই লেগেছে আপনার টিউনটি। ধন্যবাদ আপনাকে।

    বেপারটা আপনে ঠায়োর করতে পারছেন। মেয়েদের কথা বলাতেই সব পোলাপান এই টিউনে বার বার আসতাছে। মেয়েদের প্রতি আমার মতো অনেকেরই রয়েছে জটিল একটা টান…। ঝড়ো হাওয়া শেষ পর্যায়ে।

প্রেম কল্যাণকর নাকি ক্ষতিকর ? http://www.somewhereinblog.net/blog/anisurrahman2015/29206120

    লিংকটা কাজ করে না। আমার টিউনের কোথাও প্রেমের বিষয়ে বলা নাই। পোলাপান বেপারটাকে মেয়েদের পক্ষ বিপক্ষে টেনে বিষয়টাকে নাচাচ্ছে।

Level 0

I have ever seen this type of tech tune, thanks tuner & who comment here. Its a grate tech related tune, give us more more…………………

এই ধরনের পোষ্ট…. শেয়ার করার জন্ন আপনাকে ধন্নবাদ..