ADs by Techtunes ADs
ADs by Techtunes ADs

উইন্ডোজ টাস্ক ম্যানেজার কি হ্যাং হওয়া সফটওয়্যার বন্ধ করতে গিয়ে নিজেই হ্যাং হয়ে যায়? আসুন জেনে নিন কঠিন কিছু বিকল্প, তাও একদম ফ্রি।

ADs by Techtunes ADs

Windows Task Manager হলো উইন্ডোজের একটি বিল্ট-ইন টুল যা আপনার কম্পিউটারের ব্যাকগ্রাউন্ডে কি কি প্রোগ্রাম চলছে, সে প্রোগ্রামগুলো আপনার কম্পিউটারের কতটুকু রিসোর্স ব্যবহার করছে তা আপনাকে দেখতে সাহায্য করে। তাছাড়া, Windows Task Manage ব্যবহার করে যে প্রোগ্রামগুলো "Not Responding" দেখাচ্ছে, সেগুলো আপনি বন্ধও করতে পারেন।

যদিও Windows Task Manager এ কিছু ভাল টুল আছে, কিন্তু অনেক সময়  "Not Responding"  প্রোগ্রাম বন্ধ করতে গিয়ে Windows Task Manager নিজেই "Not Responding" হয়ে যায়। এর চেয়ে আমার মতে বিকল্প কোন Task manager সফটওয়্যার ব্যবহার করাই উত্তম। অনেক এরকম বিকল্সপ আছে যেগুলো আপনাকে কিছু বাড়তি এবং বর্ধিত সুবিধা প্রদান করে। তাছাড়া, এসব বিকল্প সফটওয়্যারগুলো দিয়ে আপনি আরো নিবিড়ভাবে আপনার সিস্টেমের কাজ পর্যবেক্ষন করতে পারবেন এবং সে আনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবেন।

আমার আজকের টিউন সেসব বিকল্প সফটওয়্যারগুলোর সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দেবার জন্যই করা।

Process Explorer

প্রথমেই আমরা যে সফটওয়্যারটির ব্যাপারে জানবো তার নাম হচ্ছে Process Explorer। এটি তৈরী করেছে Microsoft Windows Sysinternals team যা আমার ব্যক্তিগত পছন্দের একটি টুল। এটি আপনার সিস্টেমের সমস্ত রানিং সম্পর্কে তথ্য প্রদর্শন করে। ভিউ মেনু থেকে Process Explorer এর ভিউকে দুই ভাগে ভাগ করতে পারেন। এর উপরিভাগে আপনার সিস্টেমের সমস্ত চলমান প্রসেস গুলো প্রদর্শন করে আর নিচের অংশে কোন একটি নির্দিষ্ট প্রসেসের তথ্য প্রদর্শন করে যা আপনি উপরিভাগের ভিউতে সিলেক্ট করেছেন। যদি আপনি DLL মোড সিলেক্ট করেন তাহলে এটা আপনাকে প্রসেস দ্বারা ওপেন করা সমস্ত DLL এবং মেমরি ম্যাপড ফাইল গুলোর তথ্য প্রদর্শন করে। এই অনন্য বৈশিষ্ট্যের জন্য আপনি প্রসেস দ্বারা চালু হওয়া DLL গুলোর ভার্শন সমস্যা, হ্যান্ডেল লিকস গুলোর সমাধান করতে পারবেন। তাছাড়া অপারেটিং সিস্টেমের কর্মপদ্ধতি সম্পর্কে আরো সম্যক ধারণা পেতে পারবেন। এর সাথে আরো আছে শক্তিশালী সার্চ অপশন যা দ্বারা আপনি খুব সহজেই কোন একটা বিশেষ প্রোগ্রাম এবং এর দ্বারা লোডকৃত DLL গুলো খুঁজে পেতে পারেন। এছাড়া আরো অনেক অপশন পাবেন যে আপনি হতবাক হয়ে যাবেন।

মাত্র ১ মেগাবাইটের এই অসাধারণ সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করতে পারেন এখান থেকে

Process Hacker

Process Hacker অনেকটা Process Explorer এর মতোই, কিন্তু এতে আপনি পাবেন আরো এ্যাডভান্সড ফিচার। অধিক কাস্টমাইজ করার সুবিধা একে এক অনন্য সফটওয়্যারে পরিনত করেছে। ট্রি ভিউ এর মাধ্যমে আপনি আপনার কম্পিউটারে কি কি প্রসেস চলছে তা দেখতে পাবেন। এটি আপনাকে আরো যেসব সুবিধা দেবে তা হলো, সিস্টেম পরিসংখ্যান গ্রাফের মাধ্যমে দেখা, নেটওয়ার্ক কানেকশনের অবস্থা দেখা এবং নেটওয়ার্ক কানেকশন বন্ধ করা। এটি দিয়ে আপনি পিসির সার্ভিসগুলো দেখতে পারবেন, এডিট করতে পারবেন এবং সেগুলোকে কন্ট্রোল করতে পারবেন, এমনকি সেসব সার্ভিসগুলোও; যেগুলো সাধারণ সার্ভিস কনসোলে দেখায় না। এটিতে এমন কিছু ফিচার পাবেন যা অন্য কোন সফটওয়্যারে পাবেন না। যেমন: গ্রাফিক ডিজাইন হ্যান্ডেলস এবং হিপস ভিউ, DLL ইনজেক্ট করা বা DLL আনলোড করা, ডিবাগার থেকে বিচ্ছিন্ন করা এবং শক্তিশালী প্রসেস টার্মিনেশন সিস্টেম যা সিকিউরিটি সফটওয়্যার এবং রুটকিটকে বাইপাস করতে পারে। আরো একটা ব্যপার তো বলতে ভুলেই গিয়েছিলাম, এটার স্টার্ট-আপ টাইম অন্য যেকোন সফটওয়্যার থেকে ভালো, প্রায় সাথে সাথেই খুলে যায়।

খুবই কাজের কিন্তু মাত্র ১.৮ মেগাবাইটের এই সফটওয়্যারটির লেটেস্ট ভার্শন ২.২৮ ডাউনলোড করতে পারেন এখান থেকে

ADs by Techtunes ADs

AnVir Task Manager

Windows Task Manage এর আরেকটি পূর্ণাঙ্গ বিকল্প হলো AnVir Task Manager। এটি আপনার কম্পিউটারের সমস্ত প্রসেস, সার্ভিস, ইন্টারনেট সংযোগ, সিপিউ এবং হার্ডডিস্কের তাপমাত্রা এবং লোড পর্যবেক্ষন করে। এটি একটি tweaker ও প্রদান করে যা দ্বারা আপনি আপনার কম্পিউটারকে টিউন আপ করতে পারবেন, হোক সে কম্পিউটার উইন্ডোজ 7, ভিস্তা বা এক্সপি। Tweaker টি আপনাকে শত শত উইন্ডোজ সেটিংয়ে আপনাকে এক্সেস দেবে এবং এমন কিছু সেটিংয়ে এক্সেস দিবে যা কিনা শুধু মাত্র সরাসরি রেজিস্ট্রি এডিট করে করা সম্ভব। AnVir Task Manager দ্বারা আপনি আপনার পিসি স্পীড-আপ করতে পারেন এবং উইন্ডোজ স্টার্ট-আপ টাইমকে আরো কমাতে পারেন। স্টার্ট-আপ ট্যাব আপনাকে আপনার সমস্ত স্টার্ট-আপ প্রোগ্রামগুলোর একটি লিস্ট দেবে। সেখান থেকে আপনার যে এ্যাপ্লিকেশন স্টার্ট-আপে দরকার নেই সেগুলো প্রয়োজন মতো ডিসেবল বা ডিলিট করতে পারবেন। আপনি যদি কোন সফটওয়্যারকে উইন্ডোজ স্টার্ট হবার কিছুক্ষন পর স্বয়ংক্রিয় ভাবে চালু করতে চান তাহলে এই সফটওয়্যারের "Delayed Startup" সুবিধা ব্যবহার করে তা করতে পারেন।

আমার ব্যক্তিগত পছন্দের মাত্র ৩.৫৭ মেগাবাইটের এই সফটওয়্যারটি আপনারা ডাউনলোড করতে পারেন এখান থেকে

System Explorer

System Explorer হলো উইন্ডোজ টাস্ক ম্যানেজারের আরেকটি বিকল্প যা দ্বারা আপনি আপনার সিস্টেম প্রসেসগুলোকে দেখতে এবং ম্যানেজ করতে পারবেন। এছাড়াও এর আরো অনেক সুবিধা আছে। এটি দ্বারা আপনি উইন্ডোজ উইন্ডোজ স্টার্ট-আপকেও ম্যনেজ করতে পারবেন। তাছাড়া, এই সফটওয়্যার দ্বারা আপনি আপনার সিস্টেমের এ্যাড-অন, ড্রাইভার এবং সার্ভিস সম্পর্কে বিস্তারিত ও প্রয়োজনীয় তথ্য পেতে পারেন। কোন প্রসেস সম্পর্কে যদি আরো বিস্তারিত তথ্য প্রয়োজন পড়ে তাহলে System Explorer এর আছে অনলাইন ফাইল ডাটাবেজ যা ভাইরাস ডাটাবেজের সাথে আপনার প্রসেসগুলোর তুলনা করে যাতে করে আপনি এবং আপনার কম্পিউটার আরো নিরাপদ থাকতে পারেন।

এই সফটওয়্যারটি  উইন্ডোজ 8, উইন্ডোজ 7, ভিস্তা ও এক্সপি প্লাটফর্ম সাপোর্ট করে।

অনেক কাজের কাজী, কিন্তু মাত্র ১.৯৫ মেগাবাইটের ইনস্টলার ভার্শন ডাউনলোড করতে পারেন এখান থেকে এবং পোর্টেবল ভার্শন পেতে পারেন এখান থেকে

Daphne

Daphne ডেভলপারদের মতে এর জন্ম হয়েছিল উইন্ডোজের কোন প্রসেসকে বন্ধ করার জন্য। কিন্তু সত্যিকার অর্থে এটি Windows Task Manager এর আরেকটি বিকল্প সফটওয়্যার যা দ্বারা আপনি আপনার কম্পিউটারের চলমান প্রসেস, সিপিউ এর ব্যবহার, প্রসেস আইডি, প্রসেসের নাম, প্রসেসের অবস্থান, প্রসেসের অগ্রাধিকার, ক্লাস (প্রসেস/সার্ভিস), বর্তমানে কতটুকু র্যাম ব্যবহৃত হচ্ছে, কতটুকু Swap মেমরি ব্যবহৃত হচ্ছে এবং কতগুলো থ্রেড ব্যবহৃত হচ্ছে তার সম্পর্কে তথ্য জানতে পারেন। এটি একটি পোর্টেবল টুল যা কিনা উইন্ডোজের সিস্টেম ট্রে তে থাকে এবং সেখান থেকেই আপনাকে উইন্ডোজের প্রসেসগুলো ম্যানেজ করতে সাহায্য করে। এর সাহায্যে বিভিন্নভাবে আপনি কোন একটি প্রসেস বন্ধ করতে পারেন, যেমনঃ মূল প্রসেস লিস্টের উপর প্রসেসের নামের উপর মাউসের রাইট ক্লিক প্রদান করে অথবা এর “crosshair” আইকনকে কোন এ্যাপ্লিকেশনের উপর ছেড়ে দিয়ে। এছাড়া এর আছে "Traps" নামে একটি বিশেষ সুবিধা যা দ্বারা আপনি কিছু নিয়ম তৈরী করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে কোন প্রসেসকে মডিফাই করতে পারবেন বা বন্ধ করতে পারবেন।

এই সফটওয়্যারটি ৬৪ বিট সহ উইন্ডোজ 7, ভিস্তা ও এক্সপি প্লাটফর্ম সাপোর্ট করে।

ADs by Techtunes ADs

মাত্র ৫.৫ মেগাবাইটের এই সফটওয়্যারটির পোর্টেবল ভার্শনটি ডাউনলোড করতে পারেন এখান থেকে

যদি ইনস্টলার চান, তাহলে এখান থেকে ডাউনলোড করে নিন: ৩২ বিট / ৬৪ বিট

What’s Running

Windows Task Manager এর আরো একটি ফ্রি বিকল্প প্রোগ্রাম হলো What’s Running। এটি আপনার কম্পিউটারে চলমান সবগুলো প্রসেস গুলো প্রদর্শন করে, বর্তমান র্যামের অবস্থা, সিপিউ ব্যবহার এবং I/O অবস্থা প্রদর্শন করে। এসব তথ্য থেকে আপনি সহজেই এমন যে কোন প্রোগ্রামকে খুঁজে বের করতে পারবেন যা আপনার সিস্টেমকে অহেতুক ব্যস্ত রাখছে। এটি দ্বারা আপনি যেকোন প্রসেসকে খুলতে বা বন্ধ করতে পারবেন এবং স্টার্ট-আপ এর প্রোগ্রামগুলো ম্যানেজ করতে পারবেন।

যেকোন প্রসেসের নাম দেখে সবসময় বলা যায় না যে কোন প্রোগ্রামটা সেই প্রসেসকে চালু করেছে। আর এই তথ্য সঠিকভাবে জানার জন্য What’s Running এ আছে বিশেষ “check online” অপশন যা আপনি কোন প্রসেসের উপর মাউসের ডান বাটন চেপে ব্যবহার করতে পারেন। এই অপশন আপনার প্রসেসটিকে তার অনলাইন ডাটাবেজের সাধারণ প্রসেসগুলোর সাথে তুলনা করবে এবং সেই প্রসেস সম্পর্কে আরো বিস্তারিত ধারণা দেবে।

What’s Running এ্যাপ্লিকেশনের আরো একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো এটি আপনাকে সিস্টেমের প্রসেসগুলোর এক মাসের স্ন্যাপশট রাখার সুযোগ করে দেবে যা দ্বারা আপনি পরবর্তী অন্য মাসের স্ন্যাপশটের সাথে তুলনা করবে। এই দুই স্ন্যাপশট ব্যবহার করে আপনি দেখতে পাবেন যে এই সময়ের মধ্যে আপনার সিস্টেমের কি পরিবর্তন হলো এবং কোন প্রসেসটা বা প্রসেসগুলো সেই পরিবর্তনের জন্য দায়ী। যাতে করে আপনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারেন।

অসম্ভব সুন্দর এবং অতি উপকারী এই সফটওয়্যারটির বেটা ভার্শন ৩.০ এখান থেকে আর স্টেবল ভার্শন ২.২ ডাউনলোড করতে পারবেন এখান থেকে

কোনটা আপনারা ব্যবহার করেছেন আর কোনটা আপনাদের ভালো লাগলো তা জানালে আমরা সবাই উপকৃত হবো।

আমি আমার যথাসাধ্যে চেষ্টা করেছি টিউনের মাঝে বানান এবং ব্যকরণ ঠিক রাখার জন্য। আজ অনেক বছর হলো বাংলা লেখা হয়না। যদি আপনারা কোন ভুল-ত্রুটি খুঁজে পান তাহলে আমি আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী। যদি আপনারা আমার ভুলগুলো ধরিয়ে দেন, তাহলে ভবিষ্যতে চেষ্টা করবো আরো সঠিক ভাষায় টিউন উপহার দিতে।

আপনাদের গঠনমূলক মন্তব্য, টিউনটি নির্বাচিত হবার জন্য মনোনয়ন ভবিষ্যতে আমাকে আরো টিউন করতে উদ্বুদ্ধ করবে।

ADs by Techtunes ADs

সবাই ভালো থাকবেন, সুস্থ্য থাকবেন। ধন্যবাদ।

ADs by Techtunes ADs
Level 0

আমি শামীম রাহমান। বিশ্বের সর্ববৃহৎ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সৌশল নেটওয়ার্ক - টেকটিউনস এ আমি 10 বছর 10 মাস যাবৎ যুক্ত আছি। টেকটিউনস আমি এ পর্যন্ত 16 টি টিউন ও 355 টি টিউমেন্ট করেছি। টেকটিউনসে আমার 1 ফলোয়ার আছে এবং আমি টেকটিউনসে 0 টিউনারকে ফলো করি।

বিষন্নতা এক নীরব ঘাতক।


টিউনস


আরও টিউনস


টিউনারের আরও টিউনস


টিউমেন্টস

এতোগুলো টাস্ক ম্যানেজারের সাথে পরিচয় করিয়ে দেবার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ 🙂

josh hoy sa vhy

শামীম ভাই, টিটির অধিকাংশ ভিজিটরই আমার মতো অলস তাই মন খারাপ করবেন না।অবাক করার বিষয় হলো আমি যখন মন্তব্য লিখছি তখন পর্যন্ত তিন জন মন্তব্য করলাম কিন্তু নির্বাচিত হতে ভোট পেয়েছেন ৪ টি। খুবই সুন্দর করে গুছিয়ে লিখেছেন টিউন আগামী টিউনের প্রত্যাশায় রইলাম।

ধন্যবাদ,ভাই আপনার মত আপনার টিউন গুলো ও খুব সুন্দর। সত্যি বলতে কি টিটিতে আপনার পোস্ট গুলো কখনোই মিস করি না। আশাকরি আগামিতে আরো সুন্দর সুন্দর টিউন করবেন এবং আপনার মঙ্গল কামনা করি।

    @mahmudkoli: আলহামদুলিল্লাহ। আপনার মন্তব্য পড়ে আমার বুকের ছাতিটা আরো ১” বেড়ে গেলো। একটা সত্যি কথা বলি। আমি আগে টিউন করতাম না, সম্প্রতি এ্যাকটিভ হয়েছি কিছুটা। কারণ গত ১ মাস ধরে আমি ঘুমাতে পারছিনা একদম। আর তাই যখন ঘুম আসে না, তখন টিউন নিয়ে বসি। যদি পারেন আমার জন্য একটু দোয়া করবেন যাতে একটু ঘুমাতে পারি। এভাবে যদি আমার নির্ঘুম রাত্রি চলতে থাকে তাহলে হয়তো আর বেশিদিন বাঁচবো না।

ধন্যবাদ

Level New

নির্ঘুম এর যন্ত্রনা আমি বুঝি !
আপনার জন্য পার্থনা রইল…

    @আরমান: আপনার শুভকামনার জন্য ধন্যবাদ। আজ খুব কড়া মাত্রার ঘুমের ট্যাবলেট খুব কষ্টে সংগ্রহ করলাম। যেখানে থাকি, সেখানে এসব জিনিস সংগ্রহ করা কঠিন। আশা করি আজ ইনশাল্লাহ ঘুমাতে পারবো।

Eder modhdhe konta best?

    @md_alamin_khan: ভাইজান, আপনাদের সিলেকশনের সুযোগ রাখার জন্যই একসাথে সবগুলোর বর্ণনা দিলাম যাতে আপনারা নিজে থেকে বেছে নিতে পারেন আপনাদের চাহিদা মতো। তার পরও, যদি আমার পছন্দ জানতে চান তাহলে আমার প্রথম পছন্দ হলো Anvir এবং দ্বিতীয় হলো Process Hacker. অবশ্য সবগুলোই ভালো আর কাজের কর্মপদ্ধতি প্রায় একই। আপনার মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

ভাই আপনি হোওমিওপ্যথিক ভালো একজন ডাক্তার দেখান,আশাকরি আপনি চিরতরে এই রোগ থেকে মুক্তি পাবেন। কারণ এ্যলোপ্যথিক পদ্দতিতে যদি আপনি চিকিৎসা করেন তাহলে খুব দ্রুত এর ফলাফল পাবেন। কিন্তু এ্যলোপথিক চিকিৎসা পদ্দতিতে একটি রোগকে চাপিয়ে নিরবে নিভৃতে আরেকটি নতুন রোগের জন্মদেয় এবং রোগিকে ধীরে ধীরে আরেকটি বিপদে ফেলে। যেমন ছোট বেলায় আমার এ্যজমা ( হাপানি ) রোগ ছিল যা এ্যলোপথিক পদ্দতিতে চিকিৎসা করিয়ে উপকার পাই । কিন্তু এ্যজমা থেকে মুক্তি পাবার পর আমার শরীরে আরেকটি নতুন রোগ বাসা বাধে আর সেটি হল এ্যলাজি । এবং এ্যলাজি থেকে মুক্ত হয়ে বতমানে চুলকনির সম্যসায় ভুগছি। তাই আপনি একজন হোওমিওপ্যথিক ডাক্তার দেখান,আশাকরি চিরতরে এই রোগ থেকে মুক্তি পাবেন। কিন্তু কোন ঘুমের বড়ি খেয়ে ঘুমানোর চেস্ট কইরবেন না। যদি ঘুমের বড়ি খেয়ে ঘুমানোর চেস্টা করেন তাহলে পরবতিতে ঘুমের বড়ি না খেলে আপনার আর ঘুম আসবে না। আপনি আমার প্রিয় টিউনারদের একজন তাই বিস্তারিত বলছি….আমার এক মামা জনতা ব্যাংকের একজন ম্যনেজার ছিলেন। তারও একই সম্যসা ছিল রতে ঘুম হতো না । এই সম্যসার কারনে ২০০৩ সলে ব্রেইনে strock করেন, পরবতীতে বরিশাল গিয়ে চিকিৎসা করান এবং ডাক্তার তাকে ৩ মাসের জন্য Deleta ট্যবলেট খেতে দেন এবং উপকার পেয়ে একটান প্রায় ৫ বছর ডাক্তারের অনুমতি ছাড়াই ঐ ট্যবলেট খেতে থাকেন এবং শেষ পযায়ে ২ টি ট্যবলেট না খেলে রাতে তার যুম হতো না। ২০১০ এ তিনি রিটাড করেন এর পর এই বছরের মাঝামাঝি সময়ে আবার ব্রেইনে strock করেন, এরপর খুলনা হাজি মহাসিন রোডে ডাঃ হালিম সরদারকে দেখিয়ে সে উপকার পান এরপর ডা্ক্তার তাকে যে ঐষুধ দিল তা খাবার পর মাসখানেক উপকার পান এবং রাতে ধুম হতো। কিন্তু ১ মাস যেতে না যেতেই ঐ ওষুধ খাবার পর তার আর ধুম হয়না । এরপর ডক্তারের শরনাপন্ন হলে ডাক্তার তাকে প্রতিদিন রাতে ২ টি করে ঐষুধ খাওয়ার পরামশ দেন। এবং আরও বলেন ২ টি ঐষধে কাজ না করলে ৩ খাওয়ার কথা বলেদেন। এবং যতদিন বাচবেন এ ঐষুধ খেয়েই তাকে বাচতে হবে।আশা করি বিষয়টি খুব ভালভাবে বুঝেছেন। তাই খুব শিগ্রই একজন ভালো হোওমিওপ্যথিক চিকিৎসকের শরনাপন্ন হয়ে হোওমিওপ্যথিক চিকিৎসা পদ্দতি গ্রহন করুন।

    @mahmudkoli: আপনার পরামর্শের জন্য অশেষ ধন্যবাদ। পরবর্তী সময়ে যখন বাংলাদেশে যাবো তখন অবশ্যই একজন হোমিওপ্যাথিককে দেখাবো।

আরেকটি কথা ধুমের ঐষধ সেবন করলে কিন্তু সরাসরি ব্রেইনেটের উপর এর প্রভাব পড়ে। যা কিনা রোগির জন্য চরম দুভোগের কারণ হয়ে দাড়ায়। আর আমি চাইনা আপনার এরকম কোন সম্যসা হোক, তাহলে ভবিষৎএ এই রকম সুন্দর সুন্দর পোস্ট থেকে আমরা বঞ্চিত হব। আপনার জন্য পার্থনা রইল…

টাস্ক ম্যানেজার নিয়ে অনে কিছু বললেন, কিন্তু টাস্ক ম্যানেজার যদি ভাইরাসর আক্রান্ত হয়ে ডিযেবল হয়ে যায় তখন ব্যবহারকারি আপনার এইসব সফটওয়্যার দিয়ে কি করব। আপনার এই পোস্টে এই একটা বিষয়ের অভাব বোধ করছি।আপনি ইচ্ছে করলে টাস্ক ম্যানেজার এই সমস্যা সমাধানের জন্য এই লিংকটি আপনার পোস্টে সংযুক্ত করতে পারেন।
http://jugantor.us/enews/issue/2012/11/01/all0465.htm

    @mahmudkoli: আপনার মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ না দিয়ে পারছি না। আপনি হয়তো আমার পোষ্টটি ঠিকমতো পড়েননি। আমি windows task manager নিয়ে কোন আলোচনা করিনি। আমি করেছি বিকল্প কিছু টাস্ক ম্যানেজার নিয়ে। আর যদি আপনার টাস্ক ম্যানেজার ভাইরাস আক্রান্ত হয়, তাহলে ভাইরাস থেকে আপনার সিস্টেমকে মুক্ত করার জন্য আপনি আমার নিম্নোক্ত টিউনটি পড়তে পারেন।

    https://www.techtunes.co/how-to/tune-id/161461

পরবর্তী সময়ে যখন বাংলাদেশে যাবো …. ঠিক বুঝলাম না। আপনি মূলত কেথায় থাকেন।